এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "24 Ghanta News Online"

এনআরএস উপস্থিত হয়েছেন অপর্ণা সেন, ছাড়াও আরো অনেক বুদ্ধিজীবী

এনআরএস উপস্থিত হয়েছেন অপর্ণা সেন |মুখ্যমন্ত্রীকে তার বিনম্ৰ অনুরোধ তিনি সেখানে গিয়ে ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলুন সমস্ত মান অভিমানকে সরিয়ে রেখে |কারণ তিনি তো বয়সে বড় | আন্দোলনকারী ডাক্তারদের পাশে অপর্ণা সেন |আন্দোলনকে পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন তিনি |অপর্ণা সেন এর বক্তব্য, তিনি আন্দোলনকারীদের প্রতিনিধি নন, তিনি সেখানে উপস্থিত হয়েছেন সাধারণ নাগরিক

মমতা সরকার আর বেশিদিন নেই- অভিযান থেকে হুঁশিয়ারি কেন্দ্রীয় নেতার

রাজ‍্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির সার্বিক অবনতির বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে আজ রাজ‍্য বিজেপি লালবাজার অভিযানের কর্মসূচী নিয়েছে। মূলত সন্দেশখালির ন‍্যাজাট সহ গোটা রাজ‍্য জুড়ে যেভাবে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের ওপর আক্রমণ নেমে আসছে তারই প্রতিবাদে এই পদক্ষেপ বলে জানা যাচ্ছে। সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার থেকে শুরু হয়েছে এই মিছিল। প্রথম থেকেই মিছিল আটকাতে তৎপর কলকাতা

সন্দেশখালিতে বিজেপি কর্মীরা নাকি নিজেদের গুলিতেই মারা গেছেন! নতুন তত্ত্ব মুখ্যমন্ত্রীর

লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর রাজ্যজুড়ে একের পর এক হিংসার ঘটনা হতবাক করে দিয়েছিল সকলকে।সম্প্রতি সন্দেশখালিতে 2 বিজেপি কর্মীর মৃত্যু রাজ্যের আইনশৃঙ্খলাকে প্রশ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে। আর এদিন এই নিয়ে মুখ খুললেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান। কেননা তিনি মুখ্যমন্ত্রী আবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও বটে। তাই আইন শৃঙ্খলার ব্যর্থ রূপ বেরিয়ে পড়লে তাকে

নিজেদের গরজেই “তৃণমূল বিরোধিতা” থেকে আপাতত শত হাত দূরে থাকবেন সোমেন মিত্ররা!

শ্যাম রাখবেন না কুল রাখবেন! এখন এই প্রশ্নই ঘোরাফেরা করছে রাজ্য প্রদেশ কংগ্রেসের সদর দপ্তর বিধান ভবনের অন্দরমহলের। লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিজেপি ভালো ফল করার পরই শাসক দল তৃণমূল থেকে একাধিক বিধায়ক বিজেপিতে যোগদান করতে শুরু করেন। আর এমত একটা উদ্ভূত পরিস্থিতিতে তারা যাতে বিরোধী দলের তকমা না খোয়ান তার

বাংলার ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে ক্ষুব্ধ ও চিন্তিত কেন্দ্র, কড়া পদক্ষেপ নিতে নবান্নকে কড়া নির্দেশ

কথায় আছে, ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি হয়। লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর থেকে রাজ্যে যে রাজনৈতিক সংঘর্ষ এবং হিংসার খবর পাওয়া যাচ্ছে তা 2011 সালের আগের পরিস্থিতিকে মনে করিয়ে দিচ্ছে। সম্প্রতি সন্দেশখালির ন্যাজাটে তৃণমূল এবং বিজেপির সংঘর্ষে সরকারিভাবে তিনজনের মৃত্যুর ঘটনায় এবার উত্তপ্ত হয়ে উঠল রাজ্য রাজনীতি। পুলিশের পক্ষ থেকে জানা গেছে,

ভোট যত এগিয়ে আসছে মেদিনীপুর জুড়ে শাসকদলের বিরুদ্ধে তত সন্ত্রাসের অভিযোগ বাড়ছে বিরোধীদের

ইতিমধ্যেই রাজ্যে চতুর্থ দফার প্রায় 18 টি লোকসভা কেন্দ্রের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। বাকি রয়েছে আরও তিন দফার নির্বাচন। তবে সেই তিন দফায় নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধে পরিণত করতে কমিশনের কাছে আর্জি জানিয়েছে বিরোধীরা। কিন্তু যতই ভোট এগিয়ে আসছে, ততই যেন উত্তাপের পারদ চড়ছে মেদিনীপুরে। আর যাকে ঘিরে এখন শাসক বনাম

আমি ভাবতেই পারছি না, মমতা দিদি এতটা বদলে গিয়েছেন – মন্তব্য প্রধানমন্ত্রীর

তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়ে একদা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছায়াসঙ্গী মুকুল রায় কোলকাতার রানী রাসমনির সভা থেকে মন্তব্য করেছিলেন, "পাল্টে গেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর নেই।" আর মুকুলবাবুর এহেন মন্তব্য নিয়েই তোলপাড় হয়ে ওঠে রাজ্য রাজনীতি। আর এবার বিজেপির সর্বোচ্চ সেনাপতি তথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর গলাতেও সেই একই মন্তব্য শোনা গেল।

রাজ্যে বাকি আসনে পদ্মফুল ফোটানোর লক্ষ্যে দায়িত্ব পেলেন ত্রিপুরায় বিজেপি সরকারের কারিগর এই বিজেপি নেতা

এবারের লোকসভা নির্বাচনে বাংলা থেকে 22 থেকে 23 টি আসন নিজেদের দখলে রাখবার জন্য বহুদিন আগে থেকেই রাজ্য নেতৃত্বকে টার্গেট বেঁধে দিয়েছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। ইতিমধ্যেই তিন তিনটে দফায় মোট দশটি লোকসভা কেন্দ্রের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে এরাজ্যে। আর সেই 10 টি নির্বাচন হওয়া কেন্দ্রের মধ্যে অধিকাংশই বিজেপি তাদের দখলে রাখবে বলে

রবার্ট বঢ়রাকে আর্থিক তছরুপের দায়ে জেরার পেছনেও বিরোধী জোট ভাঙার “চক্রান্ত” দেখছেন তৃণমূল নেত্রী

কেন্দ্রের বর্তমান বিজেপি সরকার উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই বিরোধীদের পেছনে সিবিআই লাগিয়ে তাদের হেনস্তা করছে বলে দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ করে আসছে দেশের বিজেপি বিরোধী দলগুলো। সম্প্রতি কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের বাড়িতে সিবিআই হানা নিয়ে সেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে ধর্মতলার মেট্রো চ্যানেলে ধরনায় বসে পড়েন খোদ তৃনমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা

বিরোধীদের উপযুক্ত জবাব দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দাবি-‘তৃণমূলের নয়, গণতন্ত্র রক্ষা জন্য রাজ‍্য সরকারের কর্মসূচি এই ধর্ণা “

এদিন পুলিশ কমিশনারের বাড়িতে সিবিআই এর আধিকারিকের যাওয়া আর জোর করে কেন্দ্রীয় সরকারের সিবিআইকে দিয়ে তৃণমূলকে হেনস্থা করার অভিযোগ এনে মেট্রো চ্যানেলে মুখ্যমন্ত্রী ধরনায় বসেছেন। তাঁর সঙ্গে রয়েছেন ADG, পুলিশ কমিশনার। আর তাই নিয়েই জোর বিতর্ক শুরু হয়েছিল। বিরোধীরা দাবি করেছিলেন যে, রাজীব কুমার কি তৃণমূলের নেতা যে তাঁকে সিবিআই

Top
error: Content is protected !!