এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "২৪ ঘন্টা র নিউজ চ্যানেল"

বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে মার খেল মুকুল পুত্রের সমর্থক, জোর চাঞ্চল্য এলাকায়

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভরাডুবি এবং বিজেপির প্রবল উত্থানের পরই শাসকদলের একাধিক জনপ্রতিনিধি বিজেপিতে যোগদান করতে শুরু করেন। কিছুদিন আগেই বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের পুত্র তথা বীজপুরের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায় ঘাসফুলের পতাকা ছেড়ে পদ্মফুলের পতাকা নিজের হাতে তুলে নিয়েছেন। আর এরপরই অনেকে ভেবেছিলেন যে, এবার হয়তো বীজপুরে বিজেপির সংগঠনের কাছে তৃণমূল কুপোকাত

আন্দোলনরত চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলার জন্য ফের মুখ্যমন্ত্রীকে পরামর্শ রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর

এনআরএস কান্ড এবং জুনিয়র চিকিৎসকদের লাগাতার ধর্মঘটের জেরে বর্তমানে রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় অচলাবস্থা তৈরী হয়েছে। প্রায় প্রত্যেকেরই এখন একটাই দাবি যে, আন্দোলনকারী চিকিৎসকদের সঙ্গে একবার কথা বলে আসুন রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী। আর এইখানেই তৈরি হয়েছে সমস্যা। শাসক বনাম চিকিৎসকদের এই দড়ি টানাটানিতে এখন চরম হতাশায় ভুগছেন বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন

মমতার নির্দেশকে মান্যতা দিয়ে বিজেপিতে যোগ তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভরাডুবি এবং বিজেপির প্রবল উত্থানের পর থেকেই শাসক দলের একাধিক জনপ্রতিনিধিরা গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে শুরু করেন। যা নিয়ে তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয় রাজ্য রাজনীতিতে। এমনকি একের পর এক দলীয় জনপ্রতিনিধিরা বিরোধী শিবিরে নাম লেখানোয় তীব্র অস্বস্তিতে পড়েন স্বয়ং তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। আর এই পরিস্থিতিতে দলের ভাঙ্গন

এনআরএস কান্ড নিয়ে রাজ্যের চাপ বাড়াল হাইকোর্ট,জেনে নিন

এনআরএস কান্ড ও চিকিৎসকদের ধর্মঘটে বর্তমানে রাজ্য স্বাস্থ্য ব্যবস্থা তলানিতে ঠেকেছে। কিভাবে সুদিন ফেরানো যায় তা নিয়ে চিন্তিত সব পক্ষই। আর এই পরিস্থিতিতে এবার এনআরএসের ঘটনাকে অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক বলে মন্তব্য করলেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি থোট্টাথিল ভাস্করন নায়ার রাধাকৃষ্ণ। সূত্রের খবর, একটি জনস্বার্থ মামলার শুনানিতে বৃহস্পতিবার কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টি

কলেজে ভর্তিতে আবারো প্রকাশ্যে তোলাবাজি, চলছে লক্ষ-লক্ষ টাকার “খেলা”?

স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় রাজ্যে যখন তীব্র সংকট চলছে, যখন চিকিৎসকরা দিকে দিকে গণইস্তফা দিতে শুরু করেছেন, ঠিক তখনই এবার শিক্ষা ব্যবস্থার দুর্নীতিও সামনে আসা শুরু করল।প্রসঙ্গত, গত বার কলেজে ভর্তির সময় শাসক দলের ছাত্রসংগঠন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের বিরুদ্ধে ব্যাপক তোলাবাজির অভিযোগ উঠেছিল। যা নিয়ে মাঠে নামতে দেখা গিয়েছিল শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়

মমতা ডাক্তারদের প্রতি বিরূপ হলেও, তার ভাইপো থেকে দলীয় নেতারা ডাক্তারদের পাশেই!

রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার তীব্র সংকটে এবার যেন ঘরে বাইরে চাপের মুখে তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একদিকে চিকিৎসকদের ধর্মঘট তুলে নিতে যেমন রনংদেহী মেজাজে অবতীর্ণ হচ্ছেন তিনি, ঠিক তেমনই এবার তারই ঘরের ছেলে মেয়েরা সেই মুখ্যমন্ত্রীর ভূমিকার বিরুদ্ধে গিয়ে চিকিৎসকদের পাশে দাঁড়ানোয় শুরু হয়েছে বিতর্ক। প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবারই এসএসকেএম হাসপাতালে

এনআরএস উপস্থিত হয়েছেন অপর্ণা সেন, কি বার্তা দিলেন তিনি

এনআরএস উপস্থিত হয়েছেন অপর্ণা সেন |মুখ্যমন্ত্রীকে তার বিনম্ৰ অনুরোধ তিনি সেখানে গিয়ে ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলুন সমস্ত মান অভিমানকে সরিয়ে রেখে |কারণ তিনি তো বয়সে বড় | আন্দোলনকারী ডাক্তারদের পাশে অপর্ণা সেন |আন্দোলনকে পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন তিনি |অপর্ণা সেন এর বক্তব্য, তিনি আন্দোলনকারীদের প্রতিনিধি নন, তিনি সেখানে উপস্থিত হয়েছেন সাধারণ নাগরিক

ফের নতুন করে উত্তেজনা এনআরএস -এ, গেট বন্ধ করলো জুনিয়ররা

পুলিশকে বের করে দিলেন জুনিয়ররা। সাথেই বের করে দেওয়া হলো বহিরাগতদের। জুনিয়ার ডাক্তারদের অভিযোগ বহিরাগতরা তাদের উপর আক্রমণ করার চেষ্টা করেছে। জুনিয়রদের দাবি বাইরে থেকে একদল দুষ্কৃতী ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করেছে। তাদের বাইরে বের করা সময় তাদের তরফ থেকে জলের বোতল ও ইঁট ছোড়া হয়।  

বেআব্রু হয়ে গেলো তৃণমূলের অন্দরের ক্ষোভ, কর্মীরা পোস্টারে জবাব চাইছে নেত্রীর কাছ থেকে

লোকসভা ভোটে সারা রাজ্যে তৃণমূলের ভরাডুবি এবং বিজেপির প্রবল উত্থানের পরই কালীঘাটের বাসভবনে ফলাফল পর্যালোচনা বৈঠক ডেকে একাধিক জেলার সংগঠনে রদবদল করেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে কিছুদিন আগেই কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে আশা শংকর সিংহকে রানাঘাটের দায়িত্ব দেওয়া হয়। এদিকে শঙ্করবাবু দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকেই দলের একাংশ তার বিরুদ্ধে বিষোদগার শুরু

সিঙ্গুর থেকে সারদা নারদ একাধিক বানে মুকুল রায়কে বিদ্ধ করলেন অভিষেক

এদিন মুকুল রায় বলেছেন সিঙ্গুর আন্দোলন ভুল ছিল। আর আজ সাংবাদিক বৈঠকে এই প্রসঙ্গেই মুকুল রায়কে তীব্র কটাক্ষ করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন তিনি প্রশ্ন তুললেন যদি সিঙ্গুর আন্দোলন ভুল ছিল তাহলে কেন তিনি সেদিনে দল ছাড়েননি? আমি তাকেই প্রশ্নটিই করতে চাই. যেদিন 2016 সালে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সিঙ্গুরে

Top
error: Content is protected !!