এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "রাহুল গান্ধী"

তৃণমূল নেত্রীর চিন্তা বাড়িয়ে এবার প্রধানমন্ত্রীত্বের দৌড়ে ঢুকে পড়লেন এই হেভিওয়েট নেতাও

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্র থেকে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারকে হঠাতে মরিয়া বিরোধীরা। আর সেই লক্ষ্যে গত ১৯ শে জানুয়ারি কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে ২৩ দলের ২৬ জন শীর্ষনেতা উপস্থিত থেকে এক বিশাল জনসমাবেশে অংশগ্রহণ করেন। কিন্তু, সেই জোটকে তীব্র কটাক্ষ করে গেরুয়া শিবির প্রশ্ন তোলে - এই জোটের নেতা

পিসি-ভাইপোর ‘চক্রান্তেই’ কি টুকরো টুকরো হয়ে যাবে ‘বাঙালি প্রধানমন্ত্রীর’ স্বপ্ন?

প্রিয় বন্ধু বাংলা এক্সক্লুসিভ - আর মাস দুয়েকের মধ্যেই শুরু হয়ে যাবে দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের লক্ষ্যে সাধারণ লোকসভা নির্বাচন। আর সেই নির্বাচনে বিজেপিকে কেন্দ্র থেকে হঠাতে দীর্ঘদিনের বৈরিতা ভুলে এক ছাতার তলায় আসার প্রক্রিয়া শুরু করেছে কংগ্রেস সহ বিভিন্ন আঞ্চলিক দলগুলো। আর তা দেখে, গেরুয়া শিবিরের একটাই প্রশ্ন -

চা-ওলাকে প্রধানমন্ত্রী করার পর এবার কাগজ কুড়ানিকে গুরুত্বপূর্ণ শহরের মেয়র করে চমকে দিল বিজেপি

লোকসভা নির্বাচনে বিরোধী দলগুলি বিজেপিকে পরাভূত করতে হাতে হাত মেলাচ্ছে, দীর্ঘদিনের বৈরিতা ভুলে এক ছাতার তলায় আসছে - একে অপরের বিরুদ্ধে লড়তে থাকা দলগুলি। বিরোধীদের অভিযোগ বিজেপির নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ জুটি দেশে একনায়কতন্ত্র কায়েম করে গণতন্ত্রকে হত্যা করছে। এমনকি, আম আদমি পার্টির সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল এক ধাপ এগিয়ে দাবি করেছেন

নতুন রাজ্যে ক্ষমতায় আসতে না আসতেই শুরু নৃশংস দুষ্কৃতীরাজ! লোকসভার আগে ব্যাকফুটে কংগ্রেস?

মাত্র কিছুদিন আগেই প্রবল প্রতিষ্ঠান বিরোধী হাওয়াকে কাজে লাগিয়ে গো-বলয়ের তিন রাজ্য মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড় ও রাজস্থানে ক্ষমতায় এসেছে কংগ্রেস। বিজেপি কড়া টক্কর দিলেও, শেষ হাসি হেসেছে রাহুল গান্ধীর দল - কিন্তু সেই জয়ের রেশ মিলিয়ে যেতে না যেতেই এবার বড়সড় অস্বতির মুখে রাহুল গান্ধী। কেননা আজ ভোরে প্রাতঃভ্রমণের জন্য বাড়ি

ব্রিগেডে হাসিমুখে পাশে বসে থাকলেও, এবার কি বড় ধাক্কা দিতে চলেছেন দিদির এই বিশেষ বন্ধু?

২১ শে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকেই তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বোচ্চ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন ২০১৯ এর ১৯ শে জানুয়ারী ব্রিগেডে বিজেপি বিরোধী দেশের সকল রাজনৈতিক দলকে নিয়ে এক বৃহত্তর সমাবেশ করবেন। আর সেই লক্ষ্যে দুর্গাপুজো শেষ হতেই কার্যত নাওয়া-খাওয়া ভুলে গেছেন শাসকদলের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীরা। আর সেই অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে - ব্রিগেড

বাংলাই পথ দেখায় – মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্ব কার্যত মেনে নিলেন রাহুল গান্ধী

কেন্দ্র থেকে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারকে উৎখাত করে দেশে নতুন সরকার প্রতিষ্ঠার স্বপ্নকে সামনে রেখে আজ কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের মহা জনসমাবেশ। রাজ্যের কংগ্রেস নেতারা যতই তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তোপ দাগুন বা তৃণমূল রাজ্যের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করছেন বলে অভিযোগ জানান - কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল

তৃণমূলের মহা-ব্রিগেডে রাহুল গান্ধীর অবস্থান সুবিধা করে দিল বিজেপির, হাত কামড়াচ্ছে কংগ্রেস-বামফ্রন্ট

বর্তমানে সাড়া দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি যাই হোক না কেন - বাংলার ক্ষেত্রে সমীকরণটা একদম সোজা। হয় তৃণমূল-পন্থী, নাহয় তৃণমূল বিরোধী। একদিকে যখন শাসকদলের কর্মী-সমর্থকদের দাবি বাম জামানায় রাজ্য যতখানি পিছিয়ে পড়েছিল, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব নিয়ে বিপুল ঋণের বোঝা মাথায় নিয়েও রাজ্যজুড়ে শুধুই উন্নয়ন করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের পরিস্থিতি পুরোটাই

কবে হতে পারে লোকসভা নির্বাচন? মোট কত দফায় ভোট? স্পষ্ট করে দিল নির্বাচন কমিশন

একদিকে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারের অভিমত তারা দেশের সাধারণ মানুষের জন্য যা কাজ করেছে তাতে নরেন্দ্র মোদির টানা দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে বসা শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা। অন্যদিকে রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বাধীন জাতীয় কংগ্রেস মনে করছে মানুষ মোটেই বিজেপির দেখানো সপ্নমত 'আচ্ছে দিন' পায় নি, আর তাই রাজনীতির চাকা ঘুরবে -

কর্ণাটক এখনই গেরুয়া হচ্ছে না? বিধায়ক কান্ডে নতুন পদক্ষেপে নতুন মোড় দক্ষিণের রাজনীতিতে

স্বস্তি ফিরল কর্নাটকের কংগ্রেস শিবিরে। ঘোড়া কেনাবেচার আশঙ্কাকে মিথ্যা প্রমাণ করে হদিশ না পাওয়া ৫ কংগ্রেস বিধায়কের মধ্যে ৩ জনের খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল আগেই। তবে বাকি দুজনের কোনো খোঁজ খবর না পেয়ে বেশ উদ্বিগ্নই হয়ে পড়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী। তাঁর সেই উদ্বেগের ইতি ঘটিয়ে বুধবার বিকালেই রাজ্যে ফিরে এলেন

মুকুল রায়ের থেকেও বড় চ্যালেঞ্জ মমতা ব্যানার্জির দিকে ছুঁড়ে দিলেন অধীর চৌধুরী

লোকসভা নির্বাচনের যত দিন এগিয়ে আসছে ততই জমে উঠছে রাজ্য রাজনীতি। বাংলায় এক দিকে যখন ৪২ এ ৪২ করে তৃণমূল কংগ্রেস প্রথম বাঙালি প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন উস্কে দিচ্ছে - তখন গেরুয়া শিবির বাংলা থেকে অন্তত ২৩ টি আসন জিতে রাজ্যে তৃণমূলী শাসনের পতনের হুঙ্কার ছাড়ছে। আর এর মাঝেই যেন কোথাও গিয়ে

Top
error: Content is protected !!