এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "মুখ্যমন্ত্রী"

বিধানসভায় ক্রমশ শক্তি বাড়াচ্ছে বিজেপি, দলীয় বিধায়কদের কড়া নির্দেশিকা তৃণমূলের

বেশ কিছুদিন আগেই তৃণমূলের কোর কমিটির বৈঠকে দলীয় বিধায়কদের বিধানসভায় হাজিরা দেওয়ার ব্যাপারে কড়া নির্দেশ দিতে দেখা যায় তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কিন্তু নেত্রীর সেই নির্দেশ যে দলীয় বিধায়কদের কানে এখনও পৌঁছায়নি তা ফের স্পষ্ট হয়ে গেল। লোকসভা নির্বাচনের পর যখন বাংলায় বিজেপির শক্তি দিনকে দিন বৃদ্ধি হচ্ছে,

৪০ বিধায়ক যোগে মোদীর প্রার্থীপদ বাতিল হলে দল ভাঙানোয় মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিত, দাবি বিজেপির

প্রিয় বন্ধু বাংলা এক্সক্লুসিভ - বাংলায় ক্রমশ জমে উঠছে ভোটযুদ্ধ - আর তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বাকযুদ্ধ। চতুর্থ দফার নির্বাচন সবে শেষ হয়েছে, এখনো বাকি তিন দফার ভোটগ্রহণ। আর এই সময়ে এই বাকযুদ্ধ যে ক্রমশ আরও বাড়বে - তার ইঙ্গিত স্পষ্ট করছে যুযুধান দুই প্রতিপক্ষ তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি

ফেডারেল ফ্রন্ট ভাঙতে ‘অতীতের কথা’ তুলে হেভিওয়েট নেত্রীকে ‘বড় অফার’ বিজেপি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

আর মাস দুয়েকের মধ্যেই দেশের লোকসভা নির্বাচন - যেখানে ঠিক হয়ে যাবে পরবর্তী পাঁচ বছরের জন্য দেশের শাসনভার থাকবে কার বা কাদের হাতে। একদিকে, যখন সেই নির্বাচনে জিতে পুনরায় ক্ষমতায় ফিরে আসতে আত্মবিশ্বাসী বর্তমান শাসকদল বিজেপি - অন্যদিকে, তখন বিজেপির ঘুম উড়িয়ে দীর্ঘদিনের বৈরিতা ভুলে গাঁটছড়া বাঁধার প্রক্রিয়া শুরু করে

নতুন রাজ্যে ক্ষমতায় আসতে না আসতেই শুরু নৃশংস দুষ্কৃতীরাজ! লোকসভার আগে ব্যাকফুটে কংগ্রেস?

মাত্র কিছুদিন আগেই প্রবল প্রতিষ্ঠান বিরোধী হাওয়াকে কাজে লাগিয়ে গো-বলয়ের তিন রাজ্য মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড় ও রাজস্থানে ক্ষমতায় এসেছে কংগ্রেস। বিজেপি কড়া টক্কর দিলেও, শেষ হাসি হেসেছে রাহুল গান্ধীর দল - কিন্তু সেই জয়ের রেশ মিলিয়ে যেতে না যেতেই এবার বড়সড় অস্বতির মুখে রাহুল গান্ধী। কেননা আজ ভোরে প্রাতঃভ্রমণের জন্য বাড়ি

কর্ণাটক এখনই গেরুয়া হচ্ছে না? বিধায়ক কান্ডে নতুন পদক্ষেপে নতুন মোড় দক্ষিণের রাজনীতিতে

স্বস্তি ফিরল কর্নাটকের কংগ্রেস শিবিরে। ঘোড়া কেনাবেচার আশঙ্কাকে মিথ্যা প্রমাণ করে হদিশ না পাওয়া ৫ কংগ্রেস বিধায়কের মধ্যে ৩ জনের খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল আগেই। তবে বাকি দুজনের কোনো খোঁজ খবর না পেয়ে বেশ উদ্বিগ্নই হয়ে পড়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী। তাঁর সেই উদ্বেগের ইতি ঘটিয়ে বুধবার বিকালেই রাজ্যে ফিরে এলেন

বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর – কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে রাজ্যের প্রতি পরিবার পিছু একজনকে সরকারি চাকরি

গোটা দেশ জুড়েই কেন্দ্র সরকার ও বিভিন্ন রাজ্য সরকারের সবথেকে বড় মাথাব্যথার কারণ বেকারত্ব ও কর্মসংস্থান। কিন্তু, এবার সেই বিষয়ে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিয়ে চমকে দিলেন সিকিমের মুখ্যমন্ত্রী পবন কুমার চামলিং। দীর্ঘদিন ধরেই সিকিমের মুখ্যমন্ত্রীত্ব সামলাচ্ছেন তিনি - ভেঙে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে সর্বকালীন সব রেকর্ড। কিন্তু, এবারে তিনি তাঁর রাজ্যবাসীর জন্য

জঙ্গলমহলবাসীকে বড় ধাক্কা দিয়ে বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর – জানুন বিস্তারিত

রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে জঙ্গলমহলের মানুষের জন্য উপহার হিসাবে শুরু হয়েছিল জঙ্গলমহল উৎসব। কিন্তু, এবছর জঙ্গলমহলের মানুষকে ধাক্কা দিয়ে নির্ধারিত ১৩ ই জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া সেই জঙ্গলমহল উৎসবকে পিছিয়ে দেওয়া হল। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ১৩ ই জানুয়ারি থেকে ২০ শে জানুয়ারি পর্যন্ত জঙ্গলমহল ঝাড়গ্রামে এই

আজ যুবরাজ ও মেয়রকে পাশে নিয়ে কলকাতাবাসীকে বড় উপহার দিতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী

অবশেষে এবার কলকাতাবাসীর জন্য ফের এক নতুন উপহার দিতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, আজ বিকেল চারটেয় জিঞ্জিরা বাজার থেকে বাটানগর পর্যন্ত নবনির্মিত উড়ালপুলের উদ্বোধন করবেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান। জানা গেছে, আউটরাম ঘাটের কাছে গঙ্গাসাগর মেলা গ্রাউন্ড থেকে রিমোটের মাধ্যমেই এই প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন তিনি। আর মুখ্যমন্ত্রী যখন রিমোটের মধ্যে

সাম্প্রদায়িকতা ও বিজেপি বিরোধী হয়ে হয়েও কেন্দ্র বিরোধী ধর্মঘট কেন ও কিভাবে ব্যর্থ করা হবে জানালেন পার্থ চ্যাটার্জি

দেশ থেকে বিজেপিকে উৎখাত করতে প্রায় উঠতে বসতেই গেরুয়া শিবিরের উদ্দেশ্যে এখন তোপ দাগেন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের নেতারা। এবার বিজেপির বিরুদ্ধেই গর্জে উঠে আগামী ৮ এবং ৯ জানুয়ারি সারা দেশ জুড়ে বাম এবং দক্ষিণপন্থী ট্রেড ইউনিয়নের পক্ষ থেকে দু'দিনব্যাপী এক ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। কিন্তু বিজেপি বিরোধী সেই ধর্মঘট

দিলীপ ঘোষের তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদানের সম্ভবনা নিয়ে মুখ খুললেন হেভিওয়েট তৃণমূল কংগ্রেস নেতা

রাজ্য রাজনীতি আপাতত তুলকালাম প্রবল প্রতিপক্ষ তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বোচ্চ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের প্রধানমন্ত্রীর আসনে দেখার বাসনা নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক। গত ৫ ই জানুয়ারী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্মদিনে তাঁকে শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে দিলীপবাবু একেবারে তাঁকে প্রধানমন্ত্রীর কুর্শিতেই বসিয়ে দেন! দিলীপবাবু সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, বাংলার যদি কারও প্রধানমন্ত্রী

Top
error: Content is protected !!