এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "মধ্যপ্রদেশ"

বড় ধাক্কা কংগ্রেসের! একযোগে ১০ বিধায়কের যোগ বিজেপিতে

বাংলায় এবার লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস দাবি করেছিল - ৪২ এ ৪২, একইসঙ্গে তাদের দাবি ছিল - প্রধানমন্ত্রীর চেয়ার থেকে নরেন্দ্র মোদিকে সরিয়ে দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু গত ২৩ শে মে ফলাফল বেরোলে দেখা যায় সেসব কিছুই হয় নি, উল্টে একাই ৩০৩ টি আসন

নতুন রাজ্যে ক্ষমতায় আসতে না আসতেই শুরু নৃশংস দুষ্কৃতীরাজ! লোকসভার আগে ব্যাকফুটে কংগ্রেস?

মাত্র কিছুদিন আগেই প্রবল প্রতিষ্ঠান বিরোধী হাওয়াকে কাজে লাগিয়ে গো-বলয়ের তিন রাজ্য মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড় ও রাজস্থানে ক্ষমতায় এসেছে কংগ্রেস। বিজেপি কড়া টক্কর দিলেও, শেষ হাসি হেসেছে রাহুল গান্ধীর দল - কিন্তু সেই জয়ের রেশ মিলিয়ে যেতে না যেতেই এবার বড়সড় অস্বতির মুখে রাহুল গান্ধী। কেননা আজ ভোরে প্রাতঃভ্রমণের জন্য বাড়ি

বিজেপির হয়ে আর টিকিট পাবেন না এই হেভিওয়েটরা? জল্পনা চরমে

সামনেই লোকসভা ভোট - আর সেখানে পুনরায় জয় লাভ করে দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে বসতে মরিয়া নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি। কিন্তু, এবারের কাজটা যে মোটেই সহজ নয় তা বিগত বেশ কিছু নির্বাচনের ফলাফলেই প্রমাণিত। প্রথমত, ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিজেপি মানুষকে 'আচ্ছে দিনের' স্বপ্ন ফেরি করেছিল - কিন্তু, ২০১৯-এ এসে মানুষ

নির্বাচনী ক্রিকেটের ময়দানে মোদিজির আরও ছক্কা আসতে চলেছে’ – জল্পনা বাড়ালেন হেভিওয়েট মন্ত্রী

সংসদের বাজেট অধিবেশন নিয়ে প্রথম থেকেই কৌতূহল ছিল দেশবাসীর মধ্যে। এই অধিবেশন নিয়ে একইরকম চর্চা চলেছে বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যেও। এই বাজেট অধিবেশন আর নতুন কী কী চমক দেবেন মোদী? এ প্রশ্নের উত্তর জানতে রুদ্ধশ্বাসে অপেক্ষার প্রহর গুনছে রাজনৈতিকমহল। কারণ এটা মোদী সরকারের পঞ্চম বছর। ১৯'এর লোকসভা ভোটের আগে

শীর্ষ নেতৃত্ব চাইলে এক মুহূর্তেই রাজ্য সরকার বদলে দিতে পারেন বলে বড়সড় দাবি কৈলাশ বিজয়বর্গীয়র

সম্প্রতি হয়ে যাওয়া পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনে - গো-বলয়ের তিন রাজ্য থেকে ক্ষমতাচ্যুত হয়েছে বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের কাছে ছত্তিশগড়ের ফলাফল হতাশাজনক হলেও, গো-বলয়ের বাকি দুই রাজ্য মধ্যপ্রদেশ ও রাজস্থানে কংগ্রেসের সঙ্গে সমানে সমানে টক্কর দিয়েছে বিজেপি। কিন্তু, কড়া টক্কর দিলেও গেরুয়া শিবিরকে বসতে হয়েছে বিরোধী আসনেই। রাজস্থানে অশোক গেহলতের পাশাপাশি মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী

বিধানসভা নির্বাচনের রেশ কাটতে না কাটতেই রাজস্থানে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিয়ে জয়ের সরণীতে বিজেপি

সম্প্রতি হয়ে যাওয়া বিধানসভা নির্বাচনে গো-বলয়ে বড়সড় ধাক্কা খেয়েছে গেরুয়া শিবির। হাতে থাকা তিন রাজ্য মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান ও ছত্তিশগড় গেছে কংগ্রেসের দখলে। আর এর পরেই কংগ্রেস সহ অন্যান্য বিরোধীদের দাবি - বিজেপি তথা নরেন্দ্র মোদির 'আচ্ছে দিন' শেষ! তৃণমূল কংগ্রেস তো দাবিই করে বসে - ২০১৯, বিজেপি ফিনিশ! কিন্তু, এই হারে

গো-বলয়ে বিজেপি ধরাশায়ী হতেই বাংলায় গেরুয়া নেতা-কর্মীরা ঘাসফুলে পা বাড়াচ্ছেন – দাবি শাসকদলের

বিধানসভা নির্বাচনে গো-বলয়ে বিজেপির কোনঠাসা অবস্থার বড়সড় প্রভাব পড়েছে বাংলায় বলে দাবি শাসকদলের। সম্প্রতি, নদীয়ার বিজেপি সংগঠনের ফাটল প্রকাশ্যে এসেছে - বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনে পদ্ম চিহ্নে লড়াই করে বেশ কয়েকজন জয়ী প্রার্থী শাসকদলে যোগ দিয়েছেন। এছাড়া কয়েকজন জেলা নেতাও নাকি তৃণমূলের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়িয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে ঘাসফুল শিবিরের অন্দরে

অপমানিত ‘ভাইপোর’ জেদে ‘পিসি-ভাইপোর’ মহাজোটে ঠাঁই নেই কংগ্রেসের, জুটতে পারে মাত্র দুটি আসন!

মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে অ-বিজেপি মহাজোটের আসন সমঝোতা প্রায় চূড়ান্ত হয়েই গিয়েছে। এই মহাজোটে অখিলেশ যাদবের সপা বা মায়াবতীর বসপা কেউই কংগ্রেসের সঙ্গ চায় না বলে সূত্রের খবর। কার্যত রাহুল গান্ধীকে দূরে রেখেই লোকসভা ভোট যুদ্ধে লড়াই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের 'বুয়া-ভাতিজা' বা 'পিসি-ভাইপো' বলে খ্যাত মায়াবতী ও অখিলেশ যাদব।

বাঙালি প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন উস্কে দিয়ে শুভেন্দু অধিকারীর দাবি বিজেপি-কংগ্রেস-সিপিএম এক হয়ে গেছে

তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে যতই বলুন - তিনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন না - তাঁর অনুগত সৈনিকরা কিন্তু সেই স্বপ্নে বিভোর। একইসঙ্গে সেই 'বাঙালি প্রধানমন্ত্রীর' স্বপ্ন তাঁরা বঙ্গবাসীকেও দেখতে শুরু করে দিয়েছেন। গতকাল, ভরতপুর ২ নম্বর ব্লকের সালার বাসস্ট্যান্ডে ব্রিগেড কর্মসূচির প্রস্তুতিসভায় আরও একবার তা স্পষ্ট করে দিলেন

পাঁচদিনের দড়ি টানাটানির শেষে কে পাচ্ছেন শেষপর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রীত্ত্ব? জানুন বিস্তারিত

পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে যে রাজ্য নিয়ে সবথেকে বেশি নিশ্চিন্ত ছিল বিজেপি - সেই ছত্তিশগড়েই হয়েছে সবথেকে খারাপ ফলাফল। কিন্তু, তারপরেই বিজেপি নয় - এই রাজ্যে সবথেকে চিন্তায় ছিল যে দল তার নাম কংগ্রেস। মধ্যপ্রদেশ বা রাজস্থানেও যে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় নি রাহুল গান্ধীর দলকে - সেই সমস্যায় জর্জরিত

Top
error: Content is protected !!