এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট"

নরেন্দ্র মোদির কামাল! প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনায় পার ১ লক্ষ কোটি টাকা!

এবার বড়সড় সাফল্য পেল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির স্বপ্নের প্রকল্প প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনা। প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে বসেই নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করেছিলেন দেশের সব মানুষের বিশেষ করে গরিব ও পিছিয়ে পড়া মানুষের নিজস্ব ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থাকাটা জরুরি। কেননা, এরফলে সরকার সমস্ত রকমের সরকারি সুবিধা ও সাবসিডি সরাসরি গরিব মানুষের অ্যাকাউন্টে পৌঁছে দিতে পারবে।

সাধারণ মধ্যবিত্ত ও কৃষকদের জন্য বড়সড় ‘উপহার’ ঘোষণার পথে প্রধানমন্ত্রী, খরচ হতে পারে ১ লক্ষ কোটি টাকা

২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেশের দায়িত্ব নেওয়ার পর নরেন্দ্র মোদির সামনে দুটি রাস্তা খোলা ছিল। এক, আগের সরকারগুলির দেখানো পথেই জনমোহিনী হয়ে নিজের জনপ্রিয়তা আরও বাড়িয়ে নেওয়া। আর দুই, দেশের অর্থনীতির কড়া সংস্কার করে ভারতের অর্থনীতিকে আরও মজবুত করা। দ্বিতীয় পথটি নিতে গেলে অবশ্যই আমজনতাকে খুশি করা যাবে না -

বকেয়া ডিএ ও বেতন কমিশনের পাশাপাশি এবার নতুন আতঙ্ক তাড়া করছে সরকারি কর্মচারীদের!

চাকরি থেকে অবসর নিলে সাধারণ মধ্যবিত্তের ভরসা বলতে মাসের প্রথমে হাতে পেনশনের কটা টাকা! রাজ্যের বিরোধী নেত্রী থাকার সময় তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন - যে সরকার সরকারি কর্মচারীদের বঞ্চনা করে, তাদের এক মুহূর্তও ক্ষমতায় থাকার অধিকার নেই! আর তাই, মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব নিয়েই তিনি ঘোষণা করেছিলেন রাজ্যের সরকারি কর্মচারী,

লোকসভা নির্বাচনের আগে কল্পতরু হয়ে মাস্টারস্ট্রোক প্রধানমন্ত্রীর, এঁদের অ্যাকাউন্টে সরাসরি ঢুকতে চলেছে টাকা

২০১৪ সালে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে দেশের প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসার পর থেকেই তাঁর পূর্বসূরিদের দেখানো জনমোহিনী পথে নয় - বরং নরেন্দ্র মোদী হেঁটেছিলেন আর্থিক সংস্কারের পথে। আর তারফলে - নিয়েছিলেন নোট বন্দি থেকে জিএসটির মতো একের পর এক কড়া পদক্ষেপ। স্বাভাবিকভাবেই বিরোধীরা তো বটেই দেশের একটি বড় অংশ এই সিদ্ধান্তে রীতিমত

প্রথম শ্রেণী থেকে গ্র্যাজুয়েশন পর্যন্ত – শুধু হুগলি জেলাতেই ৫৭ হাজার সংখ্যালঘু পড়ুয়াকে ১১ কোটির স্কলারশিপ রাজ্য সরকারের

হুগলি জেলার প্রথম থেকে গ্র্যাজুয়েশন পর্যন্ত সংখ্যালঘু পড়ুয়াদের স্কলারশিপ পাওয়া নিয়ে বড়সড় তথ্য উঠে এল প্রশাসনিক রিপোর্টে। ২০১৭-১৮ আর্থিক বর্ষে সংশ্লিষ্ট জেলায় প্রায় ৫৭ হাজার সংখ্যালঘু পড়ুয়াকে স্কলারশিপ হিসাবে প্রায় ১১ কোটি টাকা দিচ্ছে রাজ্য সরকার। এর মধ্যে প্রায় ৯ কোটি টাকা ইতিমধ্যেই পড়ুয়াদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পাঠানো হয়েছে বলে সূত্রের

Top
error: Content is protected !!