এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "বিজেপির রাজ্য সভাপতি"

কাট-আউটে গোবর ল্যাপা থেকে পোস্টার ছেঁড়া – অমিত শাহের সভার আগে একের পর এক বিস্ফোরক অভিযোগ

আজ থেকে বাংলায় 'পরিবর্তনের পরিবর্তন' করার লক্ষ্যে একাধিক পদক্ষেপের পথে গেরুয়া শিবির। আর তারই প্রাথমিক পদক্ষেপ হিসাবে সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহকে দিয়ে মালদায় জনসভা করাতে চলেছে বঙ্গ-বিজেপি। এমনিতেই অমিত শাহের শারীরিক অসুস্থতার কারণে - তাঁর এই জনসভা একাধিকবার পিছোতে হয়েছে। তার উপরে অভিযোগ উঠেছে প্রশাসনিক অসহযোগিতার। কখনও জনসভার জন্য জমি বা

এখন শাসকদলের রাজ্যসভার সাংসদ মানস ভুঁইয়া, তাই জয়দেব জানাকে ‘কেউ খুন করে নি!’

গত ২০১৬-র বিধানসভা ভোটে সবংয়ের দুবরাজপুরে খুন হতে হয় তৃণমূল কর্মী জয়দীপ জানাকে। আর এই ঘটনায় তৎকালীন বাম- কংগ্রেস জোটে থাকা কংগ্রেস নেতা তথা বর্তমান তৃণমূল সাংসদ মানস ভূঁইয়ার নাম জড়িয়ে পড়ে। তবে শুধু মানসবাবুই নয়, এই ঘটনায় বাম এবং কংগ্রেসের মোট ২৩ জনের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন

দিলীপ ঘোষ বিজেপির সভাপতি থাকলে আমাদের লাভ, আমরা চাই উনি আরও ২০ বছর থাকুন – জানিয়ে দিল তৃণমূল

রাজ্য রাজনীতিতে বর্তমানে দুই যুযুধান প্রতিপক্ষের নাম তৃণমূল কংগ্রেস ও ভারতীয় জনতা পার্টি। তৃণমূল বিজেপিকে কেন্দ্র থেকে ক্ষমতাচ্যুত করতে চায় - আবার উল্টোদিকে বিজেপি তৃণমূলকে রাজ্য থেকে ক্ষমতাচ্যুত করতে চায়। ফলে, স্বাভাবিকভাবেই দুই দলের চাপান উতোর থাকবে। কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেসের হেভিওয়েট নেতা তথা রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক সবাইকে চমকে দিয়ে

এরাজ্যে আর কোনও মুখ্যমন্ত্রী মহিলাদের এত সম্মান ও মাথা উঁচু করে বেঁচে থাকার সুযোগ সুবিধা দেননি: চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য

লোকসভা নির্বাচনের দিন যতই এগিয়ে আসছে, ততই যেন বিরোধী দল বিজেপি বনাম শাসক দল তৃণমূলের দ্বৈরথ বেড়েই চলেছে বঙ্গ রাজনীতিতে। এবার ফের বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিতর্কিত মন্তব্যকে ঘিরে গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে সরব হলেন রাজ্যের মহিলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রী তথা স্বাস্থ্য দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আগামী ১৯ শে

বিজেপির সভা করার অনুমতি দিল না প্রশাসন, ট্রাক্টরের ডালাতেই মঞ্চ বেঁধে অভিনব সভা দিলীপ ঘোষ-মুকুল রায়ের

পুরুলিয়ার কাশীপুরের কলেজ মাঠে বিজেপিকে সভা করার অনুমতি দেয়নি প্রশাসন। তার পরেও রবিবার সেই মাঠেই ট্রাক্টরের ডালায় মঞ্চ বেঁধে সভা হল। সেখান থেকে প্রশাসনের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও মুকুল রায়। গত ২০ শে ডিসেম্বর মৌতোড়ে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যে বক্তব্য রেখেছিলেন তার

Top
error: Content is protected !!