এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "পার্থ চট্টোপাধ্যায়" (Page 2)

আজ কি দিল্লিতে আবার মুকুল-ম্যাজিক? শাসকদলের আরেকটি উইকেটের পতনের আশায় গেরুয়া শিবির

বিগত কয়েকদিনে মুকুল রায়ের হাত ধরে দু-দুজন হেভিওয়েট যোগ দিয়েছেন গেরুয়া শিবিরে। প্রথমে যোগ দেন বিগত দিনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মৌসুমী চট্টোপাধ্যায় - আর তার রেশ মিলিয়ে যেতে না যেতেই সবাইকে চমকে দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ - দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দলের অঘোষিত দুনম্বর নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে

শুধু তৃণমূল ভাঙিয়েই ক্ষান্ত নন, স্বয়ং তৃণমূল নেত্রীর বিরুদ্ধে এবার বিস্ফোরক অভিযোগ সামনে আনলেন মুকুল রায়!

রাজ্য রাজনীতি আজ দুপুরের পর থেকে তোলপাড় হয়ে যায় দু-দুটি ঘটনায়। প্রথমেই, তৃণমূল কংগ্রেসের বিষ্ণুপুর লোকসভার বর্তমান সাংসদ সৌমিত্র খাঁ স্বয়ং তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দলের অঘোষিত দুনম্বর নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষোভ উগরে দিয়ে প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপিতে যোগদান করেন। আর এই ঘটনার পরে তৃণমূল কংগ্রেস মহাসচিব পার্থ

সৌমিত্র খাঁয়ের বিজেপিতে যোগদানের রেশ মেলাতে না মেলাতেই দল থেকে বহিস্কৃত আরেক তৃণমূল সাংসদ!

আজ দুপুরের পর থেকেই রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল ফেলে দিয়েছিল যে খবর তা হল - রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রের বর্তমান সাংসদ সৌমিত্র খাঁ দল ছেড়ে মুকুল রায়ের হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান করেন। গতকাল রাতেই নিজের ফেসবুক লাইভে তিনি বিষ্ণুপুরের এসডিপিও সুকমল দাসের বিরুদ্ধে তাঁকে হত্যার চক্রান্ত ও তাঁর

সাম্প্রদায়িকতা ও বিজেপি বিরোধী হয়ে হয়েও কেন্দ্র বিরোধী ধর্মঘট কেন ও কিভাবে ব্যর্থ করা হবে জানালেন পার্থ চ্যাটার্জি

দেশ থেকে বিজেপিকে উৎখাত করতে প্রায় উঠতে বসতেই গেরুয়া শিবিরের উদ্দেশ্যে এখন তোপ দাগেন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের নেতারা। এবার বিজেপির বিরুদ্ধেই গর্জে উঠে আগামী ৮ এবং ৯ জানুয়ারি সারা দেশ জুড়ে বাম এবং দক্ষিণপন্থী ট্রেড ইউনিয়নের পক্ষ থেকে দু'দিনব্যাপী এক ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। কিন্তু বিজেপি বিরোধী সেই ধর্মঘট

লোকসভা নির্বাচনের আগে আরও বড় দায়িত্ত্ব অনুব্রত মন্ডলের কাঁধে – জানুন বিস্তারিত

রাজ্য রাজনীতিতে কোনো জনপ্রতিনিধি না হয়েও সব সময়েই যিনি খবরের শিরোনামে থাকেন তিনি আর কেউ নন, বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অনুব্রত মন্ডল। কিছুদিন আগেও যিনি বিখ্যাত ছিলেন - পুলিশের উপর বোমা মারার নিদান দিয়ে, বা বিরোধীদের গুড়-বাতাসা বা ঢাকের চরাম চরাম বোলের জন্য। পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকে অবশ্য উনি বিশেষ

মুখ্যমন্ত্রীর উন্নয়নে বড় বাধা! কন্যাশ্রী বিশ্ববিদ্যালয় আটকানো পথে বামেরা – জানুন বিস্তারিত

ক্ষমতায় আসার পর থেকে বিভিন্ন সময় রাজ্যের উন্নয়নে বিরোধীরা বাধা দিচ্ছে বলে অভিযোগ করতেন শাসকদলের নেতা মন্ত্রীরা। যদিও বা বিরোধীদের তরফ সেই অভিযোগকে বারবার নস্যাৎ করা হয়েছে। তবে এবার সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বপ্নের কন্যাশ্রী বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের ব্যাপারে প্রবল বিরোধিতায় নামল রাজ্যের একদা ক্ষমতাসীন দল হিসেবে পরিচিত বামফ্রন্টের বড় শরিক

বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের ‘কুকথা ও হুমকির’ পাল্টা দিয়ে এবার আসর জমালেন পার্থ চ্যাটার্জি

এবার ফের সম্মুখ সমরে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস ও প্রধান বিরোধী দল বিজেপি। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে ফের বিজেপিকে কড়া ভাষায় কটাক্ষ করলেন তৃণমূল মহাসচিব তথা রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত, রাজ্যে বিজেপির "গণতন্ত্র বাঁচাও" নামক রথযাত্রা নিয়ে প্রচুর পরিকল্পনা থাকলেও আইনি জটিলতার জেরে তা এখন কার্যত থমকে গেছে। আর তার পরিপ্রেক্ষিতে

ধান কেনায় দালালরাজ নিয়ে এবার তৃণমূল মহাসচিবের কাছে অভিযোগ দলের হেভিওয়েট মন্ত্রী বিধায়কদের

দেশজুড়ে যখন কৃষকদের কৃষি ঋণ মুকুবের দাবিতে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে ক্রমশ সরব হচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস সহ অন্যান্য বিরোধীরা, ঠিক তখনই এই রাজ্যে সেই কৃষকদেরই ধান কেনা বেচায় দালালরাজের দৌরাত্ম্যের অভিযোগে সরব হলেন খোদ শাসকদলের হেভিওয়েট মন্ত্রী বিধায়কেরাই। সূত্রের খবর, গত কাল কৃষ্ণনগর জেলা পরিষদের সভাগৃহে সরকারি সহায়ক মূল্যে ধান

শাসকদলের সরকারি কর্মী সংগঠনের লেটারহেডে সই জাল! বিতর্ক বাড়িয়ে ভেঙেই দেওয়া হল কমিটি!

লোকসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে - ততই যেন অনভিপ্রেত অভিযোগে অস্বস্তি বেড়ে চলেছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের অভ্যন্তরে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে যখন গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের খবরে টালমাটাল শাসকশিবিরের অন্দরমহল - তখন এবার সামনে এল আরেক অভিনব ও বিস্ফোরক অভিযোগ। আর তার জেরে রীতিমত বড়সড় পদক্ষেপ নিলেন শাসকদলের শীর্ষনেতৃত্ত্ব। সূত্রের খবর, শাসকদল প্রভাবিত কৃষি

তদন্তে ‘অন্য কারণ’ উঠে এলেও জয়নগর থেকে আদ্রা সর্বত্রই তৃণমূল কর্মী খুনে ‘গেরুয়া আতঙ্ক’ দেখছেন তৃণমূল মহাসচিব

দু'দিনের মধ্যে দুই জায়গায় চার তৃণমূল কর্মী খুন নিয়ে রীতিমত চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে, একদিকে বিরোধীদের দাবি শাসকদলের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে এই খুন। অন্যদিকে তৃণমূল দোষী করছে বিজেপিকে। দক্ষিণ ২৪ পরগনার জয়নগর ও পুরুলিয়ার আদ্রায় তৃণমূল কর্মী খুনের প্রসঙ্গে শুক্রবার তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় নাম না করে সরাসরি

Top
error: Content is protected !!