এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "পশ্চিমবঙ্গ"

কোপা আমেরিকায় সাম্বা ঝড়ে উড়ে গেলেন মেসিরা, ফাইনালে গেল ব্রাজিল

চিংড়ি-ইলিশ, মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল, তৃণমূল-বিজেপির মত বাঙালির আরও একটি প্রিয়তম লড়াইয়ের নাম ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ফুটবল মাঠের যুদ্ধ। এই দিনও গোটা পশ্চিমবঙ্গ আড়াআড়ি দুভাগে বিভক্ত হয়ে যায়। একদল সবুজ-হলুদের ব্রাজিল ভক্ত, তো অপরদল নীল-সাদা আর্জেন্টিনার। কিন্তু, আজ কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে আর্জেনিটনাকে ২-০ গোলে পরাজিত করে কোপা আমেরিকা ফাইনালে চলে গেল ব্রাজিল। ব্রাজিলের হয়ে গোল দুটি

সময়ের আগেই আছড়ে পড়তে চলেছে ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’, কি জানাচ্ছে মৌসম-ভবন?

সারা দেশে বিশেষ করে দেশের পূর্ব উপকূলের রাজ্যগুলোর বর্তমান আতঙ্কের নাম 'ফণী', ঘন্টায় সর্বোচ্চ ২০০ কিমি বেগে ওড়িশার পুরীর কাছে স্থলভাগে আছে পড়তে চলেছে এই ঘূর্ণিঝড় বলে আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছিল। প্রথমে ওড়িশার উপরে আছড়ে পড়লেও ধীরে ধীরে এই ঘূর্ণিঝড় পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বাংলাদেশে চলে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে

প্রশ্নফাঁস কাণ্ডে এযাবৎ কালের সবথেকে বড় শিক্ষক জমায়েত ও আন্দোলন আগামীকাল, ঝড় উঠতে চলেছে বিকাশ ভবন অভিযানে

রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষকদের এক বৃহদংশের অভিযোগ, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ওপেন স্কুলিং বা NIOS কর্তৃপক্ষের অমানবিক ও অনৈতিক সিদ্ধান্তে, বর্তমানে রাজ্যের ১ লক্ষ ৬৯ হাজার প্রাথমিক, এস.এস.কে, এম.এস.কে ও বেসরকারী চাকুরীরত শিক্ষক-শিক্ষিকাদের জীবন-জীবিকা আজ বিপন্ন। আর তাই, প্রশ্নফাঁস কাণ্ডের জেরে কর্তৃপক্ষের দুই 'অমানবিক' সিদ্ধান্তে চাকরি খোয়ানোর আতঙ্কে ভুগছেন রাজ্যের হাজার হাজার

কর্তৃপক্ষের দুই ‘অমানবিক’ সিদ্ধান্তে চাকরি খোয়ানোর আতঙ্কে ভুগছেন রাজ্যের হাজার হাজার শিক্ষক

প্রশ্নফাঁস কাণ্ডের জেরে কর্তৃপক্ষের দুই 'অমানবিক' সিদ্ধান্তে চাকরি খোয়ানোর আতঙ্কে ভুগছেন রাজ্যের হাজার হাজার শিক্ষক। পশ্চিমবঙ্গে নবনিযুক্ত ও অবশিষ্ট প্রাথমিক শিক্ষকদের জন্য ন্যাশনাল ইন্সটিউট অফ ওপেন স্কুলিং-এর (এনআইওএস) যে প্রশিক্ষণের পরীক্ষা (ডিএলএড) হয়েছিল - তাতে অভিযোগ ওঠে প্রশ্নফাঁসের। সর্বভারতীয় পরীক্ষা হলেও, প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়ে যাওয়ার দরুন শুধুমাত্র পশ্চিমবঙ্গে পরীক্ষা বাতিলের

অর্থদপ্তরের অনুমোদন না থাকলেও ঢালাও নিয়োগ শিলিগুড়ি পুরসভায় – বাড়ছে জল্পনা

অর্থ দপ্তরের অনুমোদন ছাড়াই বেআইনিভাবে পুরসভায় অস্থায়ী কর্মী নিয়োগ করে বিতর্কের মুখে পড়লেন শিলিগুড়ির মেয়র তথা সিপিএম নেতা অশোক ভট্টাচার্য। তৃণমূলের তরফ থেকে অভিযোগে জানানো হয়েছে, পুরসভার কোষাগারের দৈন্যদশা - অথচ অর্থহীনভাবে একের পর এক লোক নিয়োগ করে যাচ্ছেন অশোকবাবু। কর্মী নিয়োগ করা হলেও তাঁরা কোথায় কিসের ভ্যাকান্সিতে নিযুক্ত হলেন

পরিকাঠামোর অভাবে পাচারের সময় গরু বাজেয়াপ্ত করেও নাকাল পুলিশ, নবান্নের কাছে এল বিশেষ আবেদন

উপযুক্ত স্থানের অভাবে পাচারের সময় ধরা পড়া গবাদি পশু বাজেয়াপ্ত করা সত্ত্বেও সমস্যায় পড়তে হচ্ছে পুলিশকে। তাই এবার নবান্নে দরবার করল তাঁরা। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বাংলাদেশ লাগোয়া হওয়ায় এখানে প্রায়শই সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাকারবারিদের একটি চক্র কাজ করে। এর বিশেষ অঙ্গ হিসাবে বর্ডার দিয়ে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য পাচার হওয়াই ছিল

NIOS-এর প্রশ্নফাঁস কাণ্ডে কলকাতা হাইকোর্টে আজ বড়সড় পদক্ষেপ শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের – জানুন বিস্তারিত

পশ্চিমবঙ্গে নবনিযুক্ত ও অবশিষ্ট প্রাথমিক শিক্ষকদের জন্য ন্যাশনাল ইন্সটিউট অফ ওপেন স্কুলিং-এর (এনআইওএস) যে প্রশিক্ষণের পরীক্ষা (ডিএলএড) হয়েছিল - সেই পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে পরীক্ষা বাতিল হয়ে যায় শুধুমাত্র পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষকদের জন্য। সর্বভারতীয় পরীক্ষা হলেও - শুধুমাত্র বাংলার ক্ষেত্রে এহেন সিদ্ধান্ত নেওয়ায় চূড়ান্তরূপে ক্ষুব্ধ বঙ্গের শিক্ষক সমাজ। ইতিমধ্যেই রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষকদের

পিআরটি স্কেল ও অন্যান্য দাবিতে দিলীপ ঘোষের নেতৃত্ত্বে কলকাতার রাজপথে ঝড় তুলতে চলেছে বিজেপি শিক্ষক সেল

পশ্চিমবঙ্গের সমগ্র শিক্ষক সমাজ বর্তমান সরকারের শিক্ষার পরিকাঠামো ও বেতন বঞ্চনার বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফুঁসছে। শিক্ষার হাল ফেরাতে ও শিক্ষকদের বেতন বঞ্চনার অবসান ঘটাতে সবসময় শিক্ষক সমাজের পাশে আছেন - এই বার্তা দিলেন পশ্চিমবঙ্গের প্রধান বিরোধী দল বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দিলীপবাবুর নির্দেশে নতুন বছরের শুরুতেই পথে নামছে ভারতীয় জনতা

তৃণমূলের ‘প্যাঁচে’ তৃণমূলেরই ‘ঘুম ওড়াতে’ দিল্লিতে বড়সড় পরিকল্পনায় মুকুল রায় – জানুন বিস্তারিত

রাজ্য রাজনীতিতে ইদানিং দুটি কথা খুব জনপ্রিয় হয়ে গেছে। এক - রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছে উন্নয়ন আর দুই, বাংলায় গণতন্ত্র নেই! বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগেই তৃণমূল কংগ্রেসের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডল প্রথম 'রাস্তায় উন্নয়ন দাঁড়ানোর' তত্ত্ব বলেন। যা নিয়ে কম বিতর্ক হয় নি সেই সময়! অনুব্রতবাবু নিজের ব্যাখ্যায় জানিয়েছিলেন -

এখনো সময় আছে, সরকারি কর্মচারী ও শিক্ষকদের ন্যায্য প্রাপ্য মিটিয়ে দিন, অন্যথায় বৃহত্তর আন্দোলন: দিলীপ ঘোষ

দীর্ঘদিন ধরেই বকেয়া ডিএ ও কেন্দ্রীয়হারে বেতন না পেয়ে ক্ষোভের পরিমান আকাশ ছুঁয়েছে রাজ্যের সরকারি কর্মচারী ও শিক্ষকদের। দিকে দিকে বিভিন্ন সংগঠন বিভিন্নভাবে আন্দোলন করছে দলমত নির্বিশেষে। এমনকি, এই নিয়ে মুখ খুলে বদলি হতে হয়েছে শাসকদলের ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত একাধিক সরকারি কর্মচারী সংগঠনের নেতাকে। বিরোধীদের অবস্থাও তথৈবচ। আর এইসবের পরিপ্রেক্ষিতে বিজেপি

Top
error: Content is protected !!