এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "নির্বাচন কমিশন"

৪০ বিধায়ক যোগে মোদীর প্রার্থীপদ বাতিল হলে দল ভাঙানোয় মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিত, দাবি বিজেপির

প্রিয় বন্ধু বাংলা এক্সক্লুসিভ - বাংলায় ক্রমশ জমে উঠছে ভোটযুদ্ধ - আর তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বাকযুদ্ধ। চতুর্থ দফার নির্বাচন সবে শেষ হয়েছে, এখনো বাকি তিন দফার ভোটগ্রহণ। আর এই সময়ে এই বাকযুদ্ধ যে ক্রমশ আরও বাড়বে - তার ইঙ্গিত স্পষ্ট করছে যুযুধান দুই প্রতিপক্ষ তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি

১৯ তারিখ তো পেরিয়ে গেল! আদৌ কি পড়বে তৃণমূলের উইকেট? কি বলছে গেরুয়া শিবির?

রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস আগেই ঘোষণা করেছিল যে ২০১৯ সালের জানুয়ারী মাস পড়লেই কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে এক বিশাল জনসমাবেশ করবে। যেখানে, সারা ভারতের সমস্ত বিজেপি বিরোধী শক্তি এক জায়গায় হয়ে আওয়াজ তুলবে - দুহাজার উনিশ, বিজেপি ফিনিশ! আর এরই পরিপ্রেক্ষিতে কিছুদিন আগে জল্পনা রটে, একদিকে যখন ১৯ শে জানুয়ারী

বেজে গেল লোকসভা ভোটের দামামা, রাজ্য পুলিশ নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্তের পথে জাতীয় নির্বাচন কমিশন

দেখতে দেখতে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন সরকার পাঁচ বছর পূর্ন করতে চলল। ফলে সময় এসেছে আবার দেশজুড়ে সাধারণ নির্বাচনের। ইতিমধ্যেই রাজ্যে ভোটার তালিকা সংশোধনের কাজ সম্পূর্ণ। অন্যদিকে, গতকালই নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে আগামী নির্বাচন ঘোষণা হতে পারে মার্চের প্রথম সপ্তাহে এবং ৬-৭ দফায় হতে পারে সেই নির্বাচন। আর এর পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্য

কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে বড়সড় বিড়ম্বনায় বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ – জানুন বিস্তারিত

রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের আক্রমণের নিশানায় এখন সবার উপরে যে দুটি নাম তা হল মুকুল রায় ও দিলীপ ঘোষ। এমনকি, দিলীপবাবুকে নিয়ে ক্ষোভ দলেরই একাংশের মধ্যে। কেননা, বিভিন্ন জনসভায় গিয়ে দিলীপবাবু যেসব আক্রমণাত্মক কথা বলেন তা নাকি বিজেপির ভাবমূর্তি নষ্ট করছে বলে দলের ওই অংশের অভিযোগ। এরই মধ্যে দলের প্রাক্তনী তথা

নিরাপত্তা সুনিশ্চিত না হলে লোকসভা ভোটে ভোটকর্মী হিসাবে ভোট নিতে যাবেন না শিক্ষক শিক্ষাকর্মীরা

লোকসভা নির্বাচনে ভোটকর্মী হিসাবে যথাযথ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানিয়ে গতকাল পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলা শাসকের নিকট ডেপুটেশন দিল শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী-শিক্ষানুরাগী ঐক্যমঞ্চ। ঐক্যমঞ্চের ১১ জনের এক প্রতিনিধিদল জেলাশাসকের এডিএম প্রতিমা দাসের সাথে সাক্ষাৎ করেন। তিনি বলেন, নিরাপত্তার বিষয়টি অবশ্যই দেখা হবে। স্পর্শকাতর বুথ গুলিতে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এর পাশাপাশিই তিনি জানান,

রাজকুমার রায়ের মৃত্যুকে সামনে রেখে ‘বাঁচতে চেয়ে’ আদালতের কাছে বড়সড় দাবী জানানোর পথে রাজ্যের শিক্ষকরা

শীতের আমেজ ভালো করে কাটতে না কাটতেই - লোকসভা নির্বাচনের প্রহর গোনা শুরু হয়ে গেল। আজ, রাজ্যের প্রায় সমস্ত ব্লকে শিক্ষকদের 'ইলেকশন আরজেন্ট' বলে একটি ফর্ম পাঠানো হয়েছে প্রশাসনিক স্তরে এবং তা যথাযথভাবে পূরণ করে আগামী ১৫ তারিখের মধ্যে জমা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ফর্মটিতে ভালো করে লক্ষ্য করলে দেখা

বেজেই কি গেল লোকসভা নির্বাচনের দামামা? জানুয়ারী থেকেই এই নিয়ে বড়সড় পদক্ষেপ নিতে চলেছে নির্বাচন কমিশন

আগামী বছরের শুরুতেই লোকসভা ভোটের দামামা বেজে যাবে - এমনটাই বিগত কয়েক মাস থেকে শোনা গেলেও, এখনও দিনক্ষণ স্থির হয়নি ভোটের। তবে এপ্রিল-মে মাস নাগাদ এই নির্বাচন হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা কথা আগেও জানা গিয়েছে রাজনৈতিক সূত্রের খবরে। এবার এই সম্ভাবনা আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল নির্বাচন কমিশনের কর্মতৎপরতা দেখে। বিরোধীরা বিভিন্ন

গণনা শুরুর ১১ ঘন্টা পরেও স্পষ্ট নয় মধ্যপ্রদেশের চিত্র – কোন ‘ফ্যাক্টরে’ কে গড়তে পারে সরকার – জানুন বিস্তারিত

সকাল ৮ টার সময় গণনা শুরু হয়েছে - তারপরে কেটে গিয়েছে নয়-নয় করে ১১ ঘন্টা। কিন্তু এখনও স্পষ্ট নয় মধ্যপ্রদেশের রাজ্যপাট কার দখলে যাবে? বিজেপি না কংগ্রেস কার দখলে আসবে ম্যাজিক নাম্বার ১১৬-এর বেশি আসন? ইতিমধ্যেই দুই দল বেশ কয়েকবার সেই ম্যাজিক নাম্বার ছুঁলেও - সেখানে নিজেদের জায়গা ধরে রাখতে

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল লোকসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ – আসল সত্যিটা জেনে নিন

গত পরশু থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট রীতিমত ভাইরাল হয়ে গেছে - যে পোস্টে দেখা যাচ্ছে আগামী লোকসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ ও দফা নাকি ঘোষণা করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। পাঁচ দফায় হতে চলা সেই লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গে সঙ্গেই নাকি পাঁচ বিধানসভা আসনে উপনির্বাচনও হতে চলেছে। কয়েকশো পাঠকের কাছ থেকে আমরা প্রশ্ন পেয়েছি

Top
error: Content is protected !!