এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "তৃণমূল"

মন্ডল সভাপতি নির্বাচনের নামে চলছে স্বজনপোষণ! ক্ষোভে ফেটে পড়ছে গেরুয়া শিবিরের অন্দরমহল

বীরভূম তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি বলে পরিচিত। অনুব্রত মণ্ডলের দাপটে এখানে বিরোধীরা কার্যত নিশ্বাস ফেলতে পারেন না। সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে বিভিন্ন জেলায় বিজেপি দাগ কাটলেও বীরভূমে তারা একটি আসনও দখল করতে পারেনি। তবে কিছু বুথে বিজেপির জয় লক্ষ্য করা গেছে। যা নিঃসন্দেহে অনুব্রত মণ্ডলের মত দক্ষ সংগঠকের কাছে অত্যন্ত চিন্তার কারণ।

বিগ ব্রেকিং নিউজ – এই সপ্তাহের মধ্যেই কলকাতা পুরসভার দখল নিতে চলেছে বিজেপি?

লোকসভা নির্বাচনের পরেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে নাম লেখানোর ধুম পরে গেছে গোটা রাজ্য জুড়ে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের একাধিক বিধায়ক তৃণমূল, বামফ্রন্ট বা কংগ্রেস ছেড়ে যোগ দিচ্ছেন বিজেপিতে। সেই বিধায়কদের সঙ্গে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিচ্ছেন একাধিক কাউন্সিলরও - ফলে ইতিমধ্যেই বেশ কিছু পুরসভার দখল নিয়েছে বিজেপি। আজ দক্ষিণ দিনাজপুর থেকে প্রাক্তন তৃণমূল

সাম্প্রদায়িকতা ও বিজেপি বিরোধী হয়ে হয়েও কেন্দ্র বিরোধী ধর্মঘট কেন ও কিভাবে ব্যর্থ করা হবে জানালেন পার্থ চ্যাটার্জি

দেশ থেকে বিজেপিকে উৎখাত করতে প্রায় উঠতে বসতেই গেরুয়া শিবিরের উদ্দেশ্যে এখন তোপ দাগেন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের নেতারা। এবার বিজেপির বিরুদ্ধেই গর্জে উঠে আগামী ৮ এবং ৯ জানুয়ারি সারা দেশ জুড়ে বাম এবং দক্ষিণপন্থী ট্রেড ইউনিয়নের পক্ষ থেকে দু'দিনব্যাপী এক ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। কিন্তু বিজেপি বিরোধী সেই ধর্মঘট

তদন্তে ‘অন্য কারণ’ উঠে এলেও জয়নগর থেকে আদ্রা সর্বত্রই তৃণমূল কর্মী খুনে ‘গেরুয়া আতঙ্ক’ দেখছেন তৃণমূল মহাসচিব

দু'দিনের মধ্যে দুই জায়গায় চার তৃণমূল কর্মী খুন নিয়ে রীতিমত চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে, একদিকে বিরোধীদের দাবি শাসকদলের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে এই খুন। অন্যদিকে তৃণমূল দোষী করছে বিজেপিকে। দক্ষিণ ২৪ পরগনার জয়নগর ও পুরুলিয়ার আদ্রায় তৃণমূল কর্মী খুনের প্রসঙ্গে শুক্রবার তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় নাম না করে সরাসরি

রাজ্যজুড়ে তৃণমূল নেত্রীর উন্নয়নের জোয়ার শহর কলকাতাতেও জারি রাখতে ‘নিজের গড়’ থেকে নতুন মেয়রকে জেতানোর ব্যবস্থা শুরু

সংশোধিত পুরো আইনের ভিত্তিতে শোভন চট্টোপাধ্যায় ইস্তফা দেবার পর কলকাতা পুরসভার মেয়র পদে বসেছেন ফিরহাদ হাকিম। কিন্তু, এই আইন অনুসারে মেয়র পদে বসার ছয় মাসের মধ্যে শহরের যে কোন ওয়ার্ড থেকে তাঁকে কাউন্সিলর পদে জিতে আসতে হবে। এবার তা পূরণের তোড়জোড় শুরু হয়ে গেল। ইতিমধ্যেই শহরের ৮২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রণব

জয়নগরে তৃণমূল বিধায়কের গুলি কাণ্ডে বিস্ফোরক তথ্য হাতে এলো তদন্তকারী অফিসারদের

জয়নগরে তৃণমূল বিধায়ককে লক্ষ্য করে গুলি চলার ঘটনার পিছনেও উঠে এল শাসকদলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের কথা। পাশাপাশি একই সঙ্গে তাৎপর্যপূর্ণভাবে উঠে এলো আরেকটি চাঞ্চল্যকর তথ্য। তদন্তে নেমে বারুইপুর জেলা পুলিশ, এসওজি এবং সিআইডি অফিসাররা জানতে পারেন, খুন হওয়া জয় হিন্দ বাহিনীর সভাপতি সরফুদ্দিনের বিরুদ্ধে খুন, তোলাবাজি, শ্লীলতাহানি, জমি দখল সহ একাধিক মামলা রয়েছে।

জঙ্গলমহলে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব মেটাতে সুপারিশ তালিকা উড়িয়ে অভিনব পদক্ষেপ তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের

জঙ্গলমহলের গোষ্ঠীকোন্দল মেটাতে নয়া পরিকল্পনা শাসকদলের। তৃণমূলের এই শক্ত ঘাঁটিতেই পদ্মের উত্থান ঘটেছে এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে। তাই আগামী লোকসভা নির্বাচনে জঙ্গলমহলের মাটিতে ফের নিজেদের দাপট বোঝাতে মরিয়া তৃণমূল কংগ্রেস। আর তাই, এসব এলাকায় শাসকদলের সংগঠনকে ঢেলে সাজাতে আসরে নেমেছে তৃণমূলের রথী-মহারথীরা। সুপারিশ তালিকা বাদ দিয়েই কিছুদিন আগে সর্বসম্মতিতে ঝাড়গ্রাম জেলা পরিষদের

ব্রিগেডে জেলা থেকে ৫ লক্ষ লোক নিয়ে যেতে ব্লকে ব্লকে মিটিং অনুব্রতর, বেআইনি কাজ বা তোলাবাজি হলেই জেলে পোড়ার নিদান

আগামী বছরের শুরুতেই শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের ব্রিগেডে কেন্দ্র বিরোধী মহা-সমাবেশ। লোকসভা ভোটকে টার্গেট করে বিজেপি বিরোধী এই বৃহত্তর মহা জন সমাবেশে জেলাস্তর থেকে রেকর্ড পরিমান লোক নিয়ে যাওয়ার নিদান রয়েছে স্বয়ং তৃণমূল নেত্রীর বলে দলীয় সূত্রে খবর। সেই নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করতেই জেলায় জেলায় সভা করতে শুরু করেছেন শাসকদলের

রাহুলের যোগ্যতাকে ছোট করে দেখছেন মমতা- ফের কংগ্রেসের হেভিওয়েট নেতার কটাক্ষের মুখে তৃণমূল নেত্রী

পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে ম্যান অব দ্য ম্যাচের খেতাব ছিনিয়ে নিল কংগ্রেস। নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর কংগ্রেস কর্মী-সমর্থকদের উচ্ছ্বাস ছিল দেখার মতো - সাজো সাজো রব হাত শিবিরে। জয়ের আনন্দে ভাসছেন রাহুলবাহিনী। গোটা দেশেই যেন ফের একবার উৎসবের মরশুম শুরু হল কংগ্রেসীদের। তাছাড়া অভাবনীয় জয়ের সাফল্য উদযাপনে পিছিয়ে নেই প্রদেশ কংগ্রেসও।

তৃণমূলের আক্রমণ থেকে দলকে বাঁচাতে ক্রমশ শক্তিশালী হচ্ছে গেরুয়া শিবিরের লাঠিধারী স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী

রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে গিয়ে প্রায়শই রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলে থাকেন, "আঘাত করতে আসলে প্রত্যাঘাত হবে"। আর এবারে দিলীপবাবুর সেই কথা মতই কোচবিহারের গ্রামেগঞ্জে চোখে পড়তে শুরু করেছে বিজেপির লাঠিধারী স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী। উল্লেখ্য, গত শুক্রবার কোচবিহারের ঝিনাইডাঙ্গায় মঞ্চ রক্ষা ও জমি পাহারার কাজ পালনের মূল

Top
error: Content is protected !!