এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "কেন্দ্রীয় সরকার"

৪১৪ কোটি দিয়েছে দাবি কেন্দ্রের! উড়িয়ে দিল রাজ্য! সত্য-মিথ্যা নিয়ে জারি চূড়ান্ত জল্পনা

2011 সালে রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বিমাতৃসুলভ আচরণের অভিযোগ করে এসেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইউপিএ হোক বা এনডিএ, কেন্দ্রের প্রত্যেক শাসকবর্গের বিরুদ্ধেই রাজ্যকে সাহায্য না করার অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। তবে 2014 সালে কেন্দ্রে বিজেপি সরকার আসার পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেই অভিযোগ আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। এমনি সময় অর্থ দিয়ে

বেকার যুবক-যুবতীদের কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে কেন্দ্রের দেখানো পথেই বড়সড় পদক্ষেপ ঘোষণা রাজ্য প্রশাসনের

বর্তমান সমাজে বোধহয় সবথেকে বড় ইস্যুর নাম - কর্মসংস্থান। পড়াশোনা শিখেও বাড়িতে বসে থাকতে হচ্ছে অনেক যুবক-যুবতীকেই। আর তাই শিক্ষিত বেকার যুবক-যুবতীদের স্বনির্ভরতার লক্ষ্যে বড়সড় পদক্ষেপ নিতে চলেছে প্রশাসন। সূত্রের খবর, রাজ্য সরকারের উৎকর্ষ বাংলা প্রকল্পে বাংলার যুবক-যুবতীদের স্বনির্ভর করে তুলতে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। বর্তমানে অনলাইনের যুগে ক্রমশ বাড়ছে 'টেকনোলজি'

আজ যুবরাজ ও মেয়রকে পাশে নিয়ে কলকাতাবাসীকে বড় উপহার দিতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী

অবশেষে এবার কলকাতাবাসীর জন্য ফের এক নতুন উপহার দিতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, আজ বিকেল চারটেয় জিঞ্জিরা বাজার থেকে বাটানগর পর্যন্ত নবনির্মিত উড়ালপুলের উদ্বোধন করবেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান। জানা গেছে, আউটরাম ঘাটের কাছে গঙ্গাসাগর মেলা গ্রাউন্ড থেকে রিমোটের মাধ্যমেই এই প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন তিনি। আর মুখ্যমন্ত্রী যখন রিমোটের মধ্যে

পেনশনভোগীদের মুখে হাসি ফুটিয়ে বাড়তে পারে পেনশনের পরিমাণ – জানুন বিস্তারিত

অবশেষে ইপিএফের সুদের হার এবং নুন্যতম মাসিক পেনশন বাড়ানোর চিন্তা ভাবনা শুরু করল কেন্দ্রীয় সরকার। সূত্রের খবর, আগামী বাজেটেই এই ব্যাপারে কোনো সুখবর ঘোষণা হতে পারে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ইপিএফের নূন্যতম মাসিক পেনশনের ব্যাপারে কেন্দ্রীয় শ্রমমন্ত্রী সন্তোশকুমার গঙ্গওয়ারের পক্ষ থেকে যে উচ্চপর্যায়ের কমিটি গঠন করা হয়েছিল চলতি মাসেই তারা একটি রিপোর্ট

সর্বভারতীয় শিক্ষক সংগঠনের আন্দোলনের জেরে ‘এক দেশ এক বেতন ক্রম’ কি দিনের আলো দেখবে আগামী সপ্তাহেই?

এই রাজ্যের বঞ্চিত প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষিকাদের মুখে হাসি ফোটাতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার, অন্তত বিশেষজ্ঞ মহলের ধারণা তাই। আর এর পিছনে রয়েছে সর্বভারতীয় শিক্ষক সংগঠন 'বঙ্গীয় নব উন্মেষ প্রাথমিক শিক্ষক সঙ্ঘের (BNUPSS/ABRSM)' 'এক দেশ এক বেতন ক্রম' নিয়ে লাগাতার আন্দোলন। সূত্রের খবর, আগামী সপ্তাহে শ্রম মন্ত্রক আইন আনতে চলেছে লোকসভা ও রাজ্যসভায়।

সংসদের ভিতর অসংসদীয় আচরণের জন্য বড়সড় শাস্তির মুখে দেশের ২৬ জন সাংসদ – জানুন বিস্তারিত

সংসদে শীতকালীন অধিবেশন শুরু হওয়ার আগে থেকেই মনে করা হচ্ছিল - এবারের অধিবেশনে ঝড় তুলতে চলেছেন বিরোধীরা। যেহেতু লোকসভা নির্বাচনের আগে এটাই শেষ পূর্ণাঙ্গ অধিবেশন - তাই কেন্দ্রীয় সরকারের তাড়া থাকবে বেশ কিছু গুরুত্ত্বপূর্ন বিল পাশ করিয়ে নেওয়ার। কিন্তু, সম্মিলিত বিরোধীদের বাধার মুখে তা কতখানি বাস্তব হবে, সেদিকেই তাকিয়ে ছিলেন

লোকসভা নির্বাচনের আগে দেশের ৬ কোটি সংগঠিত শ্রমিকের মুখে হাসি ফোটাতে বড়সড় উদ্যোগ – জানুন বিস্তারিত

দেশের প্রায় ৬ কোটি সংগঠিত শ্রমিক, তা সে সরকারি কর্মচারীই হন বা বেসরকারি, সকলেরই বড় ভরসা ইপিএফ বা এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফান্ড। আর এবার, লোকসভা নির্বাচনের বছরে সেই ইপিএফে সুদের হার বৃদ্ধির ইঙ্গিত দিল ইপিএফওর সেন্ট্রাল ট্রাস্টি বোর্ড। গত বছরে, এমনিতেই ইপিএফওর হাতে ছিল অতিরিক্ত ৬০০ কোটি টাকা। তার উপরে এবছরে প্রায়

বিজেপির ঘুম ওড়াতে এবার লোকসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান এই সুপারস্টার অভিনেতা

নরেন্দ্র মোদী ও নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্ত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকারের তীব্র সমালোচনা করে বারেবারেই তিনি খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন। আর এবার, নরেন্দ্র মোদী সহ বিজেপি নেতৃত্ত্বের ঘুম উড়িয়ে - 'আব কি বার, জনতা কি সরকার' প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সরাসরি নির্বাচনের ময়দানে নামতে চলেছেন দক্ষিণের জনপ্রিয় অভিনেতা প্রকাশ রাজ। তামিল, তেলেগু, কন্নড় সিনেমার তিনি অন্যতম

রাজ্যসভায় তাত্‍ক্ষণিক তিন তালাক বিল – কি হল শেষ পর্যন্ত? জানুন বিস্তারিত

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির স্বপ্নের তাত্‍ক্ষণিক তিল তালাক বিল লোকসভায় পাশ হওয়ার পর আজ পেশ হয় রাজ্যসভায়। আর বিল পেশ হতেই তার সংশোধনীর দাবিতে সরব হয় বিরোধীরা। আর বিরোধীদের তুমুল শোরগোলের জেরে - সুষ্ঠুভাবে আলোচনাই হল না এই বিল নিয়ে। যার জেরে আগামী বুধবার পর্যন্ত অধিবেশন মুলতুবি হয়ে যায়। গত ২৭ শে

রাজ্যের দেড় লক্ষ কৃষকের জন্য একলপ্তে বড়সড় ঘোষণা রাজ্য সরকারের – জানুন বিস্তারিত

লোকসভা ভোটের আগে রাজ্যের কৃষকদের জন্যে বড়সড় ঘোষণা রাজ্য প্রশাসনের। এবার ৩১ শে ডিসেম্বরের মধ্যে দেড় লক্ষ চাষীদের ফসল বিমা যোজনার আওতায় আনতে উদ্যোগ নিতে দেখা গেল বীরভূম জেলা প্রশাসন ও কৃষি দপ্তরকে। দিন দুয়েক আগে বীরভূম জেলার ফসল বিমার দায়িত্বপ্রাপ্ত বিমা কোম্পানির প্রতিনিধি, কৃষি দপ্তর সহ সংশ্লিষ্ট সব আধিকারিকদের

Top
error: Content is protected !!