এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "কলকাতা র ২৪x৭ সেরা নিউজ পোর্টাল"

আসন্ন লোকসভা অধিবেশনে তৃনমূলকে চাপে রাখতে নয়া কৌশল নিচ্ছে বিজেপি

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল নেত্রী 42 এ 42 টি আসন দখলের স্লোগান দিয়েছিলেন। কিন্তু বাস্তবে তার স্লোগান তো পরিপূর্ণতা পায়ইনি, উল্টে 22 টি আসন পেয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে রাজ্যের শাসকদলকে। অন্যদিকে বিজেপি বাংলায় গত 2014 সালে দুটি আসন পেলেও এবার তাদের দখলে এসেছে প্রায় 18 টি আসন। যা নিঃসন্দেহে রাজ্যের শাসকদলকে

তৃণমূলের ভাঙ্গন অব্যাহত, দলে সম্মান নেই – এই অভিযোগে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বিজেপিতে যোগদান

এবারের লোকসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 42 এ 42 এর স্লোগান দিয়েছিলেন। কিন্তু বাস্তবে তার সেই শ্লোগান পরিপূর্ণতা পায়নি। উল্টে 2014 সালে বাংলা থেকে তৃণমূল 34 টা আসন পেলেও এবার তাদের দখলে এসেছে মোটে 22 টি আসন। অন্যদিকে বিজেপি 2 থেকে বড়িয়ে তাদের আসন সংখ্যা 18 করে নিয়েছে। উত্তরবঙ্গের প্রায় প্রতিটা

ছটি আসনে উপনির্বাচনের দিন ঘোষণা করল ইলেকশন কমিশন

সম্প্রতি লোকসভা নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এবার রাজ্যসভায় ফাকা থাকা ছটি আসনের উপনির্বাচনের দিন ঘোষণা করল নির্বাচন কমিশন। জানা গেছে, বিহারের একটি, গুজরাতের দুটি এবং ওড়িশার তিনটি শূন্য থাকা আসনে আগামী 5 জুলাই এই ভোটগ্রহণ পর্ব সম্পন্ন হবে। সকাল 9 টা থেকে বিকেল 4 টা পর্যন্ত এই ভোটগ্রহণ চলবে। তবে যে কটি

এবার উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজের ডাক্তাররা ইস্তফা দিতে শুরু করেছেন এনআরএস কাণ্ডের প্রতিবাদে

পদত্যাগ করেছেন উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজের মনোরোগ বিভাগের প্রধান ও সহকারী অধ্যাপক |প্রশাসনিক অসহযোগিতার কারণে তাদের এই পদত্যাগ বলে জানা গেছে | সাথেই উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে এখনো অবধি পাঁচজন ডাক্তার তাঁদের পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন |এক্ষেত্রে তাঁদের অভিযোগের তির প্রশাসনের ব্যর্থতার দিকে |নিরাপত্তার অভাববোধ থেকেই এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ বলে জানিয়েছেন তাঁরা |

bigbreaking-মুখ্যমন্ত্রীর সামনেই রোগী ও জুনিয়র ডাক্তারদের স্লোগান,পরিস্থিতি উতপ্ত এসএসকেএম এর অন্দরে

এই মাত্র মুখমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এসএসকেএম হাসপাতালে পৌঁছান , এবং জরুরি বিভাগে আসেন। এছাড়া তিনি রোগীদের আত্মীয়দের সাথেও কথা বলছেন। খোঁজ নেন হাসপাতালের পরিস্থিতি নিয়ে। এরপরেই তিনি হাসপাতাল কতৃপক্ষকে তলব করেন। এরপর তিনি হাসপাতাল পরিদর্শনে বের হলে জুনিয়র ডাক্তাররা মুখমন্ত্রীর সামনে 'ওই ওয়ান্ট জাস্টিস" বলে স্লোগান তোলেন। এদিকে রোগীর আত্মীয়রা 'এই পরিস্থিতি

এনআরএস কান্ডে উত্তাল রাজ্য, মুখ্যমন্ত্রীর সময় নেই সেখানে যাওয়ার – ক্ষোভ বাড়ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়‌

এ যেন গোদের উপর বিষফোঁড়া। লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে দলের ভরাডুবি এবং বিজেপির প্রবল উত্থান হওয়ায় ফলাফল পর্যালোচনা বৈঠকে উষ্মা প্রকাশ করেছেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এই লোকসভার ফলাফল প্রকাশের পর থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক সংঘর্ষ ঘটনার ঘটতে থাকায় এবং শাসক-বিরোধী সমস্ত রাজনৈতিক দলের কর্মীরাই নিহত হওয়ায়

সন্দেশখালি কান্ডে নতুন তথ্য -‌ মোদির সভাতে যাওয়ায় স্কুল পড়ুয়াদেরও হুমকি তৃনমূলের?

শাসকের যখন শেষের সময় আসে, তখন যে তারা কতটা ভয়ঙ্কর ও স্বৈরাচারী হয়ে উঠতে পারে তা সন্দেশখালির ঘটনা থেকেই পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে। লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর থেকেই রাজ্যে তৃণমূলের ভরাডুবি এবং বিজেপির উত্থানে আতঙ্কিত শাসক দল তৃণমূলের সমর্থকরা বিভিন্ন জায়গায় বিরোধীদের ওপর আক্রমণ চালাতে থাকে বলে অভিযোগ ওঠে। আর যার

জল্পনা বাড়িয়ে মোদী-শাহর সঙ্গে বৈঠক শেষে বড় দাবি রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর

লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই রাজ্যের রাজনৈতিক হিংসা চরম আকার নিতে থাকে। তৃণমূলের ভরাডুবি এবং বিজেপির প্রবল উত্থানে বেশ কিছু জায়গায় একে অপরের বিরুদ্ধে প্রতিহিংসামূলক আচরণ করায় প্রান যায় অনেক সাধারণ মানুষের। সম্প্রতি সন্দেশখালির ন্যাজাটের হাতগাছি এলাকায় শাসক দল তৃণমূল বনাম বিরোধী দল বিজেপির সংঘর্ষে দুই বিজেপি কর্মী এবং এক তৃণমূল

উত্তরবঙ্গের ঘরছাড়া তৃণমূল কর্মীদের নতুন আশ্রয় বিভিন্ন লজ বা হোটেল!

গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের সময় থেকেই বিভিন্ন রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হতে দেখা গিয়েছিল কোচবিহারকে। তৃণমূলের তীব্র গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে নিজেদের ঘরে ফসল তুলেছিল গেরুয়া শিবির। সেই থেকেই তৃণমূলের অনেক কর্মী বাড়িছাড়া ছিলেন। তবে লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর কোচবিহার জেলার যুব তৃনমূলের অনেক সদস্য তৃণমূল থেকেই গেরুয়া আবীর মেখে তৃণমূলের অনেক কর্মী সমর্থকদের

মুখ্যমন্ত্রী বিদ্যাসাগরের মূর্তি উন্মোচন করবেন বলে পিছিয়ে গেল কলেজের পরীক্ষা! ছিছিক্কার সর্বত্র

বিদ্যাকে নয়, বঙ্গ রাজনীতিতে এখনো অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে বিদ্যাসাগরকে। তবে তার আদর্শকে নয়, মূর্তি প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়েই এ এক নতুন রাজনীতির আমদানি হচ্ছে বাংলায়। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই লোকসভা ভোটের প্রচারে আসা বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ কলকাতার মাটিতে রালি করলে শাসক বনাম বিরোধী দলের তরজায় ভেঙে দেওয়া হয় ঈশ্বর চন্দ্র

Top
error: Content is protected !!