এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "কংগ্রেস"

বড় ধাক্কা কংগ্রেসের! একযোগে ১০ বিধায়কের যোগ বিজেপিতে

বাংলায় এবার লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস দাবি করেছিল - ৪২ এ ৪২, একইসঙ্গে তাদের দাবি ছিল - প্রধানমন্ত্রীর চেয়ার থেকে নরেন্দ্র মোদিকে সরিয়ে দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু গত ২৩ শে মে ফলাফল বেরোলে দেখা যায় সেসব কিছুই হয় নি, উল্টে একাই ৩০৩ টি আসন

বিস্ফোরক উত্তরবঙ্গের তৃনমূলের হেভিওয়েট নেতা, বিজেপি যোগের জল্পনা তুঙ্গে

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল এবার উত্তরবঙ্গে একটি আসনও নিজেদের দখলে রাখতে পারেনি। আটটার মধ্যে সাতটা আসনে বিজেপি এবং একটিতে কংগ্রেস জয়লাভ করেছে। আর উত্তরবঙ্গে দলের ভরাডুবিতে রীতিমত আতঙ্কিত রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস, দলীয় সংগঠনকে নতুন করে ঢেলে সাজাতে শুরু করেছে। তবে সংগঠনকে ঢেলে সাজালেও ভাঙ্গন কিছুতেই রোখা যাচ্ছে না তৃণমূলের। কিছুদিন

বিগ ব্রেকিং নিউজ – এই সপ্তাহের মধ্যেই কলকাতা পুরসভার দখল নিতে চলেছে বিজেপি?

লোকসভা নির্বাচনের পরেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে নাম লেখানোর ধুম পরে গেছে গোটা রাজ্য জুড়ে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের একাধিক বিধায়ক তৃণমূল, বামফ্রন্ট বা কংগ্রেস ছেড়ে যোগ দিচ্ছেন বিজেপিতে। সেই বিধায়কদের সঙ্গে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিচ্ছেন একাধিক কাউন্সিলরও - ফলে ইতিমধ্যেই বেশ কিছু পুরসভার দখল নিয়েছে বিজেপি। আজ দক্ষিণ দিনাজপুর থেকে প্রাক্তন তৃণমূল

আজকের পরে বাংলায় বিজেপির বিধায়ক সংখ্যা কত দাঁড়াল? কে কে আছেন সেই তালিকায়? দেখে নিন একনজরে

২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে বাংলায় রেকর্ডকালীন ভালো ফল করে তিন-তিনজন বিধায়ক পায় ভারতীয় জনতা পার্টি। কিন্তু, তারপর থেকেই দ্রুত বদলাতে থাকে বাংলার রাজনৈতিক পটচিত্র - বামফ্রন্ট ও কংগ্রেসকে পিছনে ফেলে দ্রুত প্রধান বিরোধী হিসাবে উঠে আসে বিজেপি। মুকুল রায় তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেবার পরেই বিভিন্ন উপনির্বাচনে গেরুয়া শিবির বিশাল

বঙ্গ বিজেপির নবাগতরা কি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে টিকিট পাবেন? পেলেও কে কোন আসন থেকে পেতে পারেন?

একদা রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের অঘোষিত দুনম্বর নেতা মুকুল রায় দলত্যাগ করে বিজেপিতে যোগদান করেন। আর গেরুয়া শিবিরে পদার্পন করেই তিনি হুঙ্কার ছেড়েছিলেন, তৃণমূল কংগ্রেসের সংগঠন আদতে নাকি উইয়ের বাসা! সময় এলেই দেখা যাবে তা ঝুরঝুর করে ভেঙে পড়ছে! যদিও মুকুল রায়ের সেই হুঙ্কারে কোনো রকম পাত্তা দেয় নি তৃণমূল

লোকসভার আগে প্রধানমন্ত্রীকে বড় ধাক্কা দিয়ে ৪৩ বছরের পুরোনো ‘বন্ধুর’ ‘চায়েওয়ালা’ ভাবমূর্তি নিয়ে বিস্ফোরক দাবি

২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে থেকেই নিজেকে 'চায়েওয়ালা' হিসাবে দেশবাসীর সামনে তুলে ধরেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী স্বয়ং। কংগ্রেসকে দেশ থেকে মুছে দিতে 'পরিবারতন্ত্রের' বিরুদ্ধে এক 'চায়েওয়ালার' লড়াইকে সবার সামনে এনেছে গেরুয়া শিবির। আর আমজনতার কাছে তা যে অত্যন্ত গ্রহণযোগ্য হয়েছে - তা বিজেপির আকাশচুম্বী সাফল্যেই প্রমাণিত। কিন্তু, ঠিক তার পাঁচ বছর

চা-ওলাকে প্রধানমন্ত্রী করার পর এবার কাগজ কুড়ানিকে গুরুত্বপূর্ণ শহরের মেয়র করে চমকে দিল বিজেপি

লোকসভা নির্বাচনে বিরোধী দলগুলি বিজেপিকে পরাভূত করতে হাতে হাত মেলাচ্ছে, দীর্ঘদিনের বৈরিতা ভুলে এক ছাতার তলায় আসছে - একে অপরের বিরুদ্ধে লড়তে থাকা দলগুলি। বিরোধীদের অভিযোগ বিজেপির নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ জুটি দেশে একনায়কতন্ত্র কায়েম করে গণতন্ত্রকে হত্যা করছে। এমনকি, আম আদমি পার্টির সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল এক ধাপ এগিয়ে দাবি করেছেন

ভারতের নির্বাচনে ইভিএম ‘হ্যাক’ হয় – এবার বিদেশের মাটিতে করা হবে প্রমান?

দীর্ঘদিন ধরেই ভারতের বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির দাবি, ভারতের সাধারণ নির্বাচনে যে ইভিএম ব্যবহার করা হয় তা হ্যাক করা হয় এবং বিজেপি নাকি নির্বাচনের ফল নিজেদের মত করে নেয়। এই নিয়ে সব থেকে বেশি সরব হয় আম আদমি পার্টি ও কংগ্রেস, আর পরবর্তীকালে সেই একই সুরে সুর মেলায় তৃণমূল কংগ্রেস, বহুজন

নতুন রাজ্যে ক্ষমতায় আসতে না আসতেই শুরু নৃশংস দুষ্কৃতীরাজ! লোকসভার আগে ব্যাকফুটে কংগ্রেস?

মাত্র কিছুদিন আগেই প্রবল প্রতিষ্ঠান বিরোধী হাওয়াকে কাজে লাগিয়ে গো-বলয়ের তিন রাজ্য মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড় ও রাজস্থানে ক্ষমতায় এসেছে কংগ্রেস। বিজেপি কড়া টক্কর দিলেও, শেষ হাসি হেসেছে রাহুল গান্ধীর দল - কিন্তু সেই জয়ের রেশ মিলিয়ে যেতে না যেতেই এবার বড়সড় অস্বতির মুখে রাহুল গান্ধী। কেননা আজ ভোরে প্রাতঃভ্রমণের জন্য বাড়ি

ব্রিগেডে হাসিমুখে পাশে বসে থাকলেও, এবার কি বড় ধাক্কা দিতে চলেছেন দিদির এই বিশেষ বন্ধু?

২১ শে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকেই তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বোচ্চ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন ২০১৯ এর ১৯ শে জানুয়ারী ব্রিগেডে বিজেপি বিরোধী দেশের সকল রাজনৈতিক দলকে নিয়ে এক বৃহত্তর সমাবেশ করবেন। আর সেই লক্ষ্যে দুর্গাপুজো শেষ হতেই কার্যত নাওয়া-খাওয়া ভুলে গেছেন শাসকদলের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীরা। আর সেই অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে - ব্রিগেড

Top
error: Content is protected !!