এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "উত্তরবঙ্গ"

বিস্ফোরক উত্তরবঙ্গের তৃনমূলের হেভিওয়েট নেতা, বিজেপি যোগের জল্পনা তুঙ্গে

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল এবার উত্তরবঙ্গে একটি আসনও নিজেদের দখলে রাখতে পারেনি। আটটার মধ্যে সাতটা আসনে বিজেপি এবং একটিতে কংগ্রেস জয়লাভ করেছে। আর উত্তরবঙ্গে দলের ভরাডুবিতে রীতিমত আতঙ্কিত রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস, দলীয় সংগঠনকে নতুন করে ঢেলে সাজাতে শুরু করেছে। তবে সংগঠনকে ঢেলে সাজালেও ভাঙ্গন কিছুতেই রোখা যাচ্ছে না তৃণমূলের। কিছুদিন

বিগ ব্রেকিং নিউজ – বাংলা থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হচ্ছেন কোন পাঁচ জন? দেখে নিন একনজরে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া এক্সক্লুসিভ - জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ঠিক হয়ে গেল বাংলা থেকে নরেন্দ্র মোদির দ্বিতীয় মন্ত্রিসভায় স্থান পেতে চলেছেন কারা। বাংলা থেকে এবার বিজেপির পক্ষে রেকর্ড সংখ্যক ১৮ জন সাংসদ দিল্লিতে গেছেন, ফলে স্বাভাবিক নিয়মেই অন্তত ৪ জন মন্ত্রীসভায় ঠাঁই পাবেন বলে মনে করা হচ্ছিল। কিন্তু, বাংলার মত বড়

লাভপুরে বিজেপি নেতার কন্যা অপহরণ কাণ্ডে এবার বিস্ফোরক অভিযোগে সরব হলেন বিজেপি সভাপতি

লাভপুরের বিজেপি নেতার অপহৃত কন্যা প্রথমা বটব্যালকে খুঁজে পাওয়া গেলেও তাঁর অপহরণ কাণ্ড নিয়ে রাজনীতি করা ছাড়ছে না তৃণমূল-বিজেপি। আর এই রাজনীতির প্রেক্ষিতকে উস্কে দিয়েছে অপহরণ কাণ্ডে অপহৃতার বাবা অর্থাৎ বিজেপি নেতা সুপ্রভাত বটব্যালের গ্রেফতারির খবর। গতকালই নদীয়ায় দাঁড়িয়ে বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল বলেছিলেন, "এটা পুরোপুরি পরিকল্পিত ঘটনা।

তৃণমূল কংগ্রেসের ব্রিগেড থেকে উত্তরবঙ্গে বিজেপির সম্ভাবনা – স্পষ্ট করলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়

আগামী ১৯ শে জানুয়ারী কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে মহাসমাবেশ করতে চলেছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। সেই সমাবেশে রেকর্ড জমায়েতের পাশাপাশি - কেন্দ্র থেকে বিজেপি সরকারকে হঠাতে মরিয়া একঝাঁক আঞ্চলিক ও জাতীয় দলের শীর্ষনেতারাও হাজির থাকতে চলেছেন। তৃণমূল শিবিরের দাবি, এই সমাবেশ থেকেই 'প্ৰথম বাঙালি প্রধানমন্ত্রী' হিসাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে সিলমোহর

সর্বকালের সব রেকর্ড ভেঙে দেওয়া ব্রিগেডের সফল রূপায়নে তৃণমূল নেত্রীর প্রধান ভরসা হতে চলেছেন যুবরাজই

হাতে আর মাত্র কয়েকটা দিন। আর তারপরই দেশের সমস্ত বিরোধী নেতাকে এক মঞ্চে আনতে চলেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত আগামী ১৯ শে জানুয়ারি তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ডাকে কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে ঐতিহাসিক জনসভার আয়োজন করা হয়েছে। যে জনসভার মূল উদ্দেশ্যই হল, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে

বেহালা থেকে কোচবিহার – বিজেপির আইন অমান্য কর্মসূচি ঘিরে তুলকালাম, পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি দুই রাজ্য সম্পাদকের

রাজ্য রাজনীতির মোর ঘোরাতে রাজ্যজুড়ে বিজেপি গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রার পরিকল্পনা করেছিল। কিন্তু, রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা বিঘ্নিত হতে পারে বলে সেই রাজনৈতিক কর্মসূচিতে কিছুতেই অনুমতি দিতে রাজি ছিল না রাজ্য প্রশাসন। ফলে বল গড়ায় আদালতে। সেখানেও, রাজ্য সরকারের কাছে বারবার বাধা প্রাপ্ত হয়ে গেরুয়া শিবির তা টেনে নিয়ে গিয়েছে সুপ্রিম কোর্টে। কিন্তু, দেশের

দিনহাটার স্কুলে গুলি চালানোর ভাইরাল ভিডিওর তদন্তে গ্রেপ্তার তৃণমূল যুবর কর্মী, উদ্ধার রিভলভার-গুলি

কিছুদিন আগেই উত্তরবঙ্গের গীতালদহের বিদ্যালয়ে ঢুকে প্রকাশ্যে শিক্ষকদের উপর গুলি চালানোর খবরে রীতিমত শোরগোল পরে গিয়েছিল রাজ্য রাজনীতিতে। নিন্দার ঝড় উঠেছিল শিক্ষক মহলে ও সুধীজন সমাজে। আর তার পরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই ঘটনার ভিডিও বলে একটি পোস্ট রীতিমত ভাইরাল হয়ে যায়। স্বাভাবিকভাবেই, তার পরিপ্রেক্ষিতে তদন্তে নামে দিনহাটা থানার পুলিশ। কিন্তু, তদন্তে

লোকসভায় অন্যতম ‘সেফ সিটেও’ বড়সড় ভাঙন গেরুয়া শিবিরে, ক্রমশ চিন্তা বাড়ছে রাজ্য বিজেপিতে

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গের আলিপুরদুয়ার আসনটিকে নিজেদের নিরাপদ আসন বলেই বেছে রেখেছিল গেরুয়া শিবির। কিন্তু সেই লোকসভা নির্বাচনের দিন যতই এগিয়ে আসছে ততই যেন এই আলিপুরদুয়ারে অস্বস্তি বাড়তে শুরু করেছে বিজেপির। এবার সেই বিজেপির মণ্ডল সভাপতির দল ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান গেরুয়া শিবিরের অস্বস্তিকে বহুগুণে বাড়িয়ে দিল। উল্লেখ্য, এই আলিপুরদুয়ার জেলায় বিজেপির

ঝিনাইডাঙ্গা নিয়ে মুকুল-কৈলাশদের বিরুদ্ধে এফআইআর, সঙ্গে গোবর-গঙ্গাজলের ব্যবস্থা – তৃণমূলের ‘অভিনব’ পদক্ষেপ

বিজেপির রথযাত্রার পরের দিন রাজ্যের সূচিতা ফিরিয়ে আনতে পবিত্র যাত্রা করার পরিকল্পনার কথা আগেই জানিয়ে দিয়েছিলো তৃণমূল। সুযোগ বুঝে সেই পবিত্রযাত্রার ক্ষুদ্র সংস্করণ আগেই দেখিয়ে দিল এদিন শাসকদল। রথযাত্রায় আপাতত স্থগিতাদেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। তাই ৭ ডিসেম্বর পূর্ব পরিকল্পিত রথযাত্রার সূচনা করতে পারল না বিজেপি। তার পরিবর্তে কোচবিহারে কর্মী সমর্থকদের নিয়ে জনসভায়

‘পাখির চোখ’ কি উত্তরবঙ্গ? নরেন্দ্র মোদীর নতুন পদক্ষেপ ঘিরে তীব্র জল্পনা ছড়াচ্ছে গেরুয়া শিবিরের অন্দরমহলে

বাংলায় সেভাবে কোনোদিন পদ্মফুল না ফুটলেও - আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে দু-একটি নয় একবারে ২২-২৬ টি লোকসভা আসনের স্বপ্ন দেখছে গেরুয়া শিবির। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ যখন সর্বপ্রথম এই কথাটি ঘোষণা করেছিলেন - রাজ্য-রাজনীতির অনেক বিশেষজ্ঞই ভেবেছিলেন কথার কথা! কিন্তু, পঞ্চায়েত নির্বাচনে রাজ্যে বামফ্রন্ট বা কংগ্রেসকে বহু পিছনে ফেলে পদ্মশিবির প্রধান

Top
error: Content is protected !!