এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "আসন্ন লোকসভা নির্বাচন"

তৃণমূল নেত্রীর চিন্তা বাড়িয়ে এবার প্রধানমন্ত্রীত্বের দৌড়ে ঢুকে পড়লেন এই হেভিওয়েট নেতাও

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্র থেকে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারকে হঠাতে মরিয়া বিরোধীরা। আর সেই লক্ষ্যে গত ১৯ শে জানুয়ারি কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে ২৩ দলের ২৬ জন শীর্ষনেতা উপস্থিত থেকে এক বিশাল জনসমাবেশে অংশগ্রহণ করেন। কিন্তু, সেই জোটকে তীব্র কটাক্ষ করে গেরুয়া শিবির প্রশ্ন তোলে - এই জোটের নেতা

লোকসভার আগে প্রধানমন্ত্রীকে বড় ধাক্কা দিয়ে ৪৩ বছরের পুরোনো ‘বন্ধুর’ ‘চায়েওয়ালা’ ভাবমূর্তি নিয়ে বিস্ফোরক দাবি

২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে থেকেই নিজেকে 'চায়েওয়ালা' হিসাবে দেশবাসীর সামনে তুলে ধরেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী স্বয়ং। কংগ্রেসকে দেশ থেকে মুছে দিতে 'পরিবারতন্ত্রের' বিরুদ্ধে এক 'চায়েওয়ালার' লড়াইকে সবার সামনে এনেছে গেরুয়া শিবির। আর আমজনতার কাছে তা যে অত্যন্ত গ্রহণযোগ্য হয়েছে - তা বিজেপির আকাশচুম্বী সাফল্যেই প্রমাণিত। কিন্তু, ঠিক তার পাঁচ বছর

তৃণমূলের মহা-ব্রিগেডে রাহুল গান্ধীর অবস্থান সুবিধা করে দিল বিজেপির, হাত কামড়াচ্ছে কংগ্রেস-বামফ্রন্ট

বর্তমানে সাড়া দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি যাই হোক না কেন - বাংলার ক্ষেত্রে সমীকরণটা একদম সোজা। হয় তৃণমূল-পন্থী, নাহয় তৃণমূল বিরোধী। একদিকে যখন শাসকদলের কর্মী-সমর্থকদের দাবি বাম জামানায় রাজ্য যতখানি পিছিয়ে পড়েছিল, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব নিয়ে বিপুল ঋণের বোঝা মাথায় নিয়েও রাজ্যজুড়ে শুধুই উন্নয়ন করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের পরিস্থিতি পুরোটাই

মোদী-ম্যাজিকে ভর করে বাংলার এই পাঁচ লোকসভায় পদ্ম ফোটানোর মহা-পরিকল্পনায় গেরুয়া শিবির

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলার ৪২ টি লোকসভা আসনের মধ্যে অন্তত ২২-২৩ টি আসন নিজেদের দখলে আনার ভাবছেন নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহরা। গেরুয়া শিবিরের অন্দরে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে, রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস যতই দাবি করুক যে বাংলায় তারা ৪২ টির মধ্যে ৪২ টি আসনই জিতবে এবং কেন্দ্রের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রীর নাম হবে

সর্বকালের সব রেকর্ড ভেঙে দেওয়া ব্রিগেডের সফল রূপায়নে তৃণমূল নেত্রীর প্রধান ভরসা হতে চলেছেন যুবরাজই

হাতে আর মাত্র কয়েকটা দিন। আর তারপরই দেশের সমস্ত বিরোধী নেতাকে এক মঞ্চে আনতে চলেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত আগামী ১৯ শে জানুয়ারি তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ডাকে কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে ঐতিহাসিক জনসভার আয়োজন করা হয়েছে। যে জনসভার মূল উদ্দেশ্যই হল, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে

শুধুমাত্র তৃণমূল ভাঙাই নয়, আরও বড় ‘চমক’ দিতে চলেছেন মুকুল রায়? জল্পনা চরমে

কিছুদিন আগেই মুকুল রায়ের হাত ধরে অভিনেত্রী মৌসুমী চট্টোপাধ্যায় ও বিষ্ণুপুরের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ সৌমিত্র খাঁ বিজেপিতে যোগদান করে। আর এর পরেই সৌমিত্রবাবুর পাশাপাশি বোলপুরের সাংসদ অনুপম হাজরাকেও দলবিরোধী কাজের তকমা দিয়ে দল থেকে বহিস্কৃত করেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। ফলে, জল্পনা ছড়ায় সৌমিত্রবাবুর মত অনুপমবাবুও নাকি এবার বিজেপিতে যোগদান

‘পিসি-ভাইপোর’ অস্বস্তি বাড়িয়ে ‘কাকা’ চললেন কংগ্রেসের সঙ্গে হাত মেলাতে – জানুন বিস্তারিত

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহের ঘুম ওড়াতে দীর্ঘদিনের বৈরিতা ভুলে হাতে হাত মিলিয়ে জোট বেঁধেছেন উত্তরপ্রদেশের 'পিসি' মায়াবতী ও 'ভাইপো' অখিলেশ যাদব। এই 'বুয়া-ভাতিজার' জোট এখন জাতীয় রাজনীতিতে চর্চার বিষয়। বিরোধীরা একত্রিত হয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে একের বিরুদ্ধে এক ফর্মুলায় প্রার্থী দিলে - গেরুয়া শিবিরের কপালে যে ভালোই দুঃখ আছে

আবার বিজেপি ভেঙে শক্তি বৃদ্ধি করল শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস

রাজ্য রাজনীতিতে যত দিন যাচ্ছে ততই দুই যুযুধান প্রতিপক্ষ তৃণমূল কংগ্রেস ও ভারতীয় জনতা পার্টি একে অপরের ঘর ভাঙার কৌশল নিচ্ছে। কিছুদিন আগেই শাসকদলের বিষ্ণুপুরের লোকসভা সাংসদ সৌমিত্র খাঁ তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দলের বর্তমান অঘোষিত দুনম্বর নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে গেরুয়া শিবিরে যোগদান করেছেন। তারপরেই জল্পনা

‘পাখির চোখ’ করা বাংলা নিয়ে আজ দিল্লিতে মেগা বৈঠকে অমিত শাহ, বড় ‘পরিবর্তনের’ আশায় গেরুয়া শিবির

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলাকে মোটামুটি 'পাখির চোখ' করে ফেলেছেন নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ জুটি। বাংলা থেকে বিজেপির অন্তত ২২ টি আসন জেতার দাবি যে কথার কথা নয় - তা প্রমানে এবার বাংলার উপর বিশেষ নজর দিতে চলেছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব বলে সূত্রের খবর। গত দুদিন ধরে দিল্লির রামলীলা ময়দানে বিজেপির জাতীয়

মমতা ব্যানার্জিকে লাগবে না, অমিত শাহকে একই ভো-কাট্টা করার চ্যালেঞ্জ নিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ জানিয়েছেন আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলা থেকে তাঁর দল বিজেপি অন্তত ২২-২৩ টি লোকসভা আসনে জয়লাভ করবে। অন্যদিকে, রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস জানিয়েছেন আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় ৪২ টির মধ্যে ৪২ টি আসনই তৃণমূল কংগ্রেস দখল করতে চলেছে এবং সেক্ষত্রে দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রীর নাম হবে মমতা

Top
error: Content is protected !!