এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "আম আদমি পার্টি"

চা-ওলাকে প্রধানমন্ত্রী করার পর এবার কাগজ কুড়ানিকে গুরুত্বপূর্ণ শহরের মেয়র করে চমকে দিল বিজেপি

লোকসভা নির্বাচনে বিরোধী দলগুলি বিজেপিকে পরাভূত করতে হাতে হাত মেলাচ্ছে, দীর্ঘদিনের বৈরিতা ভুলে এক ছাতার তলায় আসছে - একে অপরের বিরুদ্ধে লড়তে থাকা দলগুলি। বিরোধীদের অভিযোগ বিজেপির নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ জুটি দেশে একনায়কতন্ত্র কায়েম করে গণতন্ত্রকে হত্যা করছে। এমনকি, আম আদমি পার্টির সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল এক ধাপ এগিয়ে দাবি করেছেন

ভারতের নির্বাচনে ইভিএম ‘হ্যাক’ হয় – এবার বিদেশের মাটিতে করা হবে প্রমান?

দীর্ঘদিন ধরেই ভারতের বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির দাবি, ভারতের সাধারণ নির্বাচনে যে ইভিএম ব্যবহার করা হয় তা হ্যাক করা হয় এবং বিজেপি নাকি নির্বাচনের ফল নিজেদের মত করে নেয়। এই নিয়ে সব থেকে বেশি সরব হয় আম আদমি পার্টি ও কংগ্রেস, আর পরবর্তীকালে সেই একই সুরে সুর মেলায় তৃণমূল কংগ্রেস, বহুজন

এনডিএ, ইউপিএ নাকি ফেডারেল ফ্রন্ট – ইন্ডিয়া টিভির সর্বশেষ সমীক্ষা অনুযায়ী কে করবে বাজিমাত? রাজ্যওয়ারি ফলাফল

গতকাল আসন্ন লোকসভা নির্বাচন উপলক্ষে ইন্ডিয়া টিভি ও সিএনএক্সের যৌথ জনমত সমীক্ষা প্রকাশিত হয়েছে। সেই সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে ২০১৪ সালের তুলনায় ক্ষমতাসীন এনডিএর আসন-সংখ্যা অনেকটাই কমছে - এমনকি সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকছে না এনডিএ জোটেরও! যদিও ইউপিএর আসন সংখ্যা অনেকটাই বাড়তে চলেছে নতুন জোটসঙ্গীদের দৌলতে। তবুও, সরকার গড়ার চাবিকাঠি থাকছে আঞ্চলিক দলগুলির

গো-বলয়ের তিন রাজ্যের পাশাপাশি এই রাজ্যেও বড়সড় ধাক্কা বিজেপির, লোকসভার আগে ধুয়ে মুছে সাফ গেরুয়া শিবির!

শিরোমনি আকালি দলের সঙ্গে জোট বেঁধে দীর্ঘদিন পাঞ্জাব নিজেদের দখলে রেখেছিল বিজেপি। কিন্তু, বিগত বিধানসভা নির্বাচনেই ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংয়ের নেতৃত্ত্বে পঞ্চনদের তীরের এই রাজ্য দখল করে কংগ্রেস। তবে, কংগ্রেসের সৌজন্যে শুধু বিজেপি বা তার জোটসঙ্গীই নয়, কপাল পোড়ে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টিরও। আর লোকসভা নির্বাচনের আগে, পাঞ্জাব আরও একবার দেখিয়ে

বারাণসীতে নরেন্দ্র মোদী পুনরায় প্রার্থী হলে তাঁর বিরুদ্ধে লড়তে পারেন এই হেভিওয়েট তরুণ তুর্কি

২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদী একসাথে দুটি লোকসভা আসন থেকে লড়ার সিদ্ধান্ত নেন। তার মধ্যে অন্যতম ছিল উত্তরপ্রদেশের বারাণসী। দুটি আসন থেকেই তিনি জয়ী হওয়ার পর - শেষপর্যন্ত এই বারাণসী আসনটিই নিজের জন্য তিনি রেখে দেন। ২০১৪ সালে তাঁর বিরুদ্ধে আম আদমি পার্টির সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল এই

শাসকদলের নির্দেশের বিরুদ্ধে গিয়ে কংগ্রেসকে সমর্থন করে পদ হারাতে চলেছেন এই বিধায়ক তথা প্রাক্তন কংগ্রেসী

আশঙ্কাকে সত্যি করে দিল্লির বিধানসভা থেকে দলের বিধায়ক অলকা লাম্বাকে পদত্যাগ করার ফতোয়া জারি করল আম আদমি পার্টি। দল থেকে পরিষ্কারভাবে তাঁকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, পদ থেকে ইস্তফা তাঁকে দিতেই হবে। আর এই নির্দেশ এসেছে খোদ আপ সুপ্রিমো তথা দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের তরফ থেকে। স্বাভাবিকভাবেই দলীয় বিধায়ককেই এভাবে বহিষ্কারের

Top
error: Content is protected !!