এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "অখিলেশ যাদব"

তৃণমূল নেত্রীর চিন্তা বাড়িয়ে এবার প্রধানমন্ত্রীত্বের দৌড়ে ঢুকে পড়লেন এই হেভিওয়েট নেতাও

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্র থেকে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারকে হঠাতে মরিয়া বিরোধীরা। আর সেই লক্ষ্যে গত ১৯ শে জানুয়ারি কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে ২৩ দলের ২৬ জন শীর্ষনেতা উপস্থিত থেকে এক বিশাল জনসমাবেশে অংশগ্রহণ করেন। কিন্তু, সেই জোটকে তীব্র কটাক্ষ করে গেরুয়া শিবির প্রশ্ন তোলে - এই জোটের নেতা

ফেডারেল ফ্রন্ট ভাঙতে ‘অতীতের কথা’ তুলে হেভিওয়েট নেত্রীকে ‘বড় অফার’ বিজেপি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

আর মাস দুয়েকের মধ্যেই দেশের লোকসভা নির্বাচন - যেখানে ঠিক হয়ে যাবে পরবর্তী পাঁচ বছরের জন্য দেশের শাসনভার থাকবে কার বা কাদের হাতে। একদিকে, যখন সেই নির্বাচনে জিতে পুনরায় ক্ষমতায় ফিরে আসতে আত্মবিশ্বাসী বর্তমান শাসকদল বিজেপি - অন্যদিকে, তখন বিজেপির ঘুম উড়িয়ে দীর্ঘদিনের বৈরিতা ভুলে গাঁটছড়া বাঁধার প্রক্রিয়া শুরু করে

পিসি-ভাইপোর ‘চক্রান্তেই’ কি টুকরো টুকরো হয়ে যাবে ‘বাঙালি প্রধানমন্ত্রীর’ স্বপ্ন?

প্রিয় বন্ধু বাংলা এক্সক্লুসিভ - আর মাস দুয়েকের মধ্যেই শুরু হয়ে যাবে দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের লক্ষ্যে সাধারণ লোকসভা নির্বাচন। আর সেই নির্বাচনে বিজেপিকে কেন্দ্র থেকে হঠাতে দীর্ঘদিনের বৈরিতা ভুলে এক ছাতার তলায় আসার প্রক্রিয়া শুরু করেছে কংগ্রেস সহ বিভিন্ন আঞ্চলিক দলগুলো। আর তা দেখে, গেরুয়া শিবিরের একটাই প্রশ্ন -

চা-ওলাকে প্রধানমন্ত্রী করার পর এবার কাগজ কুড়ানিকে গুরুত্বপূর্ণ শহরের মেয়র করে চমকে দিল বিজেপি

লোকসভা নির্বাচনে বিরোধী দলগুলি বিজেপিকে পরাভূত করতে হাতে হাত মেলাচ্ছে, দীর্ঘদিনের বৈরিতা ভুলে এক ছাতার তলায় আসছে - একে অপরের বিরুদ্ধে লড়তে থাকা দলগুলি। বিরোধীদের অভিযোগ বিজেপির নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ জুটি দেশে একনায়কতন্ত্র কায়েম করে গণতন্ত্রকে হত্যা করছে। এমনকি, আম আদমি পার্টির সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল এক ধাপ এগিয়ে দাবি করেছেন

ব্রিগেডে হাসিমুখে পাশে বসে থাকলেও, এবার কি বড় ধাক্কা দিতে চলেছেন দিদির এই বিশেষ বন্ধু?

২১ শে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকেই তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বোচ্চ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন ২০১৯ এর ১৯ শে জানুয়ারী ব্রিগেডে বিজেপি বিরোধী দেশের সকল রাজনৈতিক দলকে নিয়ে এক বৃহত্তর সমাবেশ করবেন। আর সেই লক্ষ্যে দুর্গাপুজো শেষ হতেই কার্যত নাওয়া-খাওয়া ভুলে গেছেন শাসকদলের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীরা। আর সেই অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে - ব্রিগেড

আজ তৃণমূলের ঐতিহাসিক ব্রিগেড সমাবেশ – মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্ব মেনে নেন কিনা বিরোধী নেতারা নজর সেদিকেই

২০১৪ সালে দেশজুড়ে প্রবল মোদী হাওয়ার মধ্যেও বাংলায় প্রবলভাবে ছিল দিদি-হাওয়া। আর সেই হাওয়াতে ভর করেই রাজ্য থেকে নিজেদের সর্বকালীন রেকর্ড সংখ্যক ৩৪ টি আসন দখলে এনেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। লোকসভাতে যদিও বিজেপির নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতার সামনে কাজে লাগে নি সেই সংখ্যা - কিন্তু দেশের চতুর্থ বৃহত্তম দল হয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল

কবে হতে পারে লোকসভা নির্বাচন? মোট কত দফায় ভোট? স্পষ্ট করে দিল নির্বাচন কমিশন

একদিকে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারের অভিমত তারা দেশের সাধারণ মানুষের জন্য যা কাজ করেছে তাতে নরেন্দ্র মোদির টানা দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে বসা শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা। অন্যদিকে রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বাধীন জাতীয় কংগ্রেস মনে করছে মানুষ মোটেই বিজেপির দেখানো সপ্নমত 'আচ্ছে দিন' পায় নি, আর তাই রাজনীতির চাকা ঘুরবে -

নরেন্দ্র মোদিকে হঠিয়ে প্রথম বাঙালি প্রধানমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি – কি বলছে ইন্ডিয়া টিভি-সিএনএক্সের সমীক্ষা

ভারতীয় জনতা পার্টি যখন দাবি করছে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে ২০১৪ সালের থেকেও বেশি আসন জিতে কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে পুনরায় শপথ গ্রহণ করবেন নরেন্দ্র মোদী - ঠিক তখনই রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের দাবি - ২০১৯ বিজেপি ফিনিশ। আর শুধু তাই নয় - একইসঙ্গে তাদের দাবি - রাজ্যে ৪২ টির মধ্যে

‘পিসি-ভাইপোর’ জোট সত্ত্বেও বিজেপির সম্ভাবনা নিয়ে যা জানালেন রাজনাথ সিং – জানলে চমকে যাবেন

ভারতীয় রাজনীতিতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হল উত্তরপ্রদেশ। কথাতেই আছে, উত্তরপ্রদেশ যার - দিল্লির কুর্শি তার। আর হবে নাই বা কেন? ভারতের বৃহত্তম এই রাজ্যে আছে সব থেকে বেশি ৮০ টি লোকসভা আসন। ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনেও সেই ৮০ টি আসনের মধ্যে জোটসঙ্গীর ১ টি আসন ধরে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট জিতেছিল

‘পিসি-ভাইপোর’ অস্বস্তি বাড়িয়ে ‘কাকা’ চললেন কংগ্রেসের সঙ্গে হাত মেলাতে – জানুন বিস্তারিত

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহের ঘুম ওড়াতে দীর্ঘদিনের বৈরিতা ভুলে হাতে হাত মিলিয়ে জোট বেঁধেছেন উত্তরপ্রদেশের 'পিসি' মায়াবতী ও 'ভাইপো' অখিলেশ যাদব। এই 'বুয়া-ভাতিজার' জোট এখন জাতীয় রাজনীতিতে চর্চার বিষয়। বিরোধীরা একত্রিত হয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে একের বিরুদ্ধে এক ফর্মুলায় প্রার্থী দিলে - গেরুয়া শিবিরের কপালে যে ভালোই দুঃখ আছে

Top
error: Content is protected !!