এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > স্বামী বিবেকানন্দও আক্রান্ত হতেন আজকের বিজেপির হাতে! বিস্ফোরক দাবি হেভিওয়েট নেতার

স্বামী বিবেকানন্দও আক্রান্ত হতেন আজকের বিজেপির হাতে! বিস্ফোরক দাবি হেভিওয়েট নেতার

কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপির বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে তোপ দাগলেন কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর। রবিবার কংগ্রেস সাংসদ দলীয় প্রচারকার্যে  কেরলের রাজধানী তিরুবনন্তপুরমে উপস্থিত হয়েছিলেন। সেখান থেকে কেন্দ্রের শাসক দলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন তিনি।তাঁর মতে এই সময়ে যদি স্বামী বিবেকানন্দ ভারতে থাকতেন তাহলে তিনি ও দুষ্কৃতিদের হাতে হেনস্থার শিকার হতেন।

উল্লেখ্য, গত ১৭ ই জুলাই  ঝাড়খণ্ডের পাকুরে স্বামী অগ্নিবেশ নামক জনৈক সন্ন্যাসীকে শারীরিক নিগ্রহ করে একদল দুষ্কৃতি। ঐ সন্ন্যাসীর বিরুদ্ধে আততায়ীদের অভিযোগ ছিলো তিনি নাকি হিন্দু ধর্মের বিরুদ্ধাচারণ করছেন। এই ঘটনায় বিজেপি দল জড়িত বলে রাজনৈতিক মহল সূত্রে দাবি করা হয়েছিল। যদিও বিজেপি দল তাদের বিরুদ্ধে আনা এই অভিযোগ অস্বীকার করেছিলো। এদিন সেই প্রসঙ্গকে উদাহরণ হিসেবে এনে আত্মবিশ্বাসী কন্ঠে শশী থারুর দাবি করে বললেন, “আমি নিশ্চিত যদি বর্তমান সময়ে স্বামী বিবেকানন্দ ভারতে আসতেন তাহলে তিনি দুষ্কৃতিদের আক্রমণের লক্ষ্য হতেন। স্বামী অগ্নিবেশকে যে সকল গুন্ডারা আক্রমণ করেছিল তারাই বিবেকানন্দের উপরেও চড়াও হতো।”

শুধু তাই নয় নিগ্রহের ধরণ সম্পর্কেও মন্তব্য করতে পিছপা হলেন না হাত শিবিরের এই অভিজ্ঞ সাংসদ। তিনি বললেন,  “স্বামী বিবেকানন্দের মুখে ইঞ্জিন অয়েলের তেল মাখিয়ে দেওয়া হতো। রাস্তায় ফেলে পেটানো হতো।” এদিন শশী থারুর দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে বিভিন্ন প্রান্তে ঘটে যাওয়া হিংসার ঘটনায় কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে দায়ী করলেন। স্বামী বিবেকানন্দ যিনি পশ্চিমের দেশগুলিতে ভারতীয় দর্শনের প্রচার করেছিলেন। যাঁর ১২৫ বছর আগে শিকাগো ধর্মসম্মেলনে দেওয়া বক্তৃতা আজও দেশে বিদেশের মানুষের কাছে প্রশংসার দাবি রাখে। তিনি কেন এইসময়ে এদেশে থাকলে হেনস্থা হতেন সেই প্রসঙ্গের ব্যখ্যাও অতি সুস্পষ্ট ভাবে দিলেন সাংসদ।

এই প্রসঙ্গে শশী থারুর বললেন, “স্বামী বিবেকানন্দ সকল মানুষকে শ্রদ্ধা করার কথা বলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন যে মনুষ্যত্ব সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এই ধরনের মানুষদের উপরেই বিজেপি হামলা করে।” রাজনৈতিক মহলের মতে শশী থারুর এই মন্তব্য নিয়ে শীঘ্রই বিজেপি এবং কংগ্রেস উভয় রাজনৈতিক দলের মধ্যে রাজনৈতিক তরজা শুরু হতে চলেছে। কারণ বিজেপি দলের শীর্ষ নেতা তথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিজেকে স্বামী বিবেকানন্দের আদর্শে উদ্বুদ্ধ মানুষ বলে দাবি করেন। এমনকি স্বামী বিবেকানন্দের পিতৃ দত্ত নাম নরেন্দ্রনাথ দত্ত ছিলো। সব মিলিয়ে কংগ্রেস সাংসদের এই মন্তব্য অল্প সময়ের মধ্যেই দু দলের মধ্যে রাজনৈতিক টানাপোড়েন তৈরী করবে সেই বিষয়েও খানিক নিশ্চিত রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!