এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > শুভেন্দু-গড়েই তৃণমূল অফিসে ঢুকে তান্ডব-মারধর, অভিযোগের তীর বিজেপির দিকে

শুভেন্দু-গড়েই তৃণমূল অফিসে ঢুকে তান্ডব-মারধর, অভিযোগের তীর বিজেপির দিকে

রাজ্যে তৃনমূল সন্ত্রাস করছে- বহুদিন ধরেই এই অভিযোগ করে আসছে বিজেপি। কিন্তু এবারে সেই তৃনমূলের কার্যালয়ে ঢুকে শাসকদলের কর্মীদের ওপর হামলা চালানোর ঘটনায় নাম জড়িল বিজেপি কর্মীদের। কিন্তু কেন? ঠিক কি কারনে এই শাসক- বিরোধী রাজনৈতিক সংঘর্ষ?

সূত্রের খবর, বিগত বিধানসভা ভোটের পর থেকেই চন্দ্রকোনা 1ব্লকের লক্ষীপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে বিজেপির সংগঠন ফুলে ফেপে বেড়ে উঠতে থাকে। সদ্য পঞ্চায়েত নির্বাচনে সিপিএম ও তৃনমূল থেকে বেশ কজন কর্মী সমর্থক যোগ দেয় বিজেপিতে। শনিবার বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের সভায় বেশি সংখ্যক কর্মী নিয়ে যেতে আগের দিন  বিকেল থেকেই এলাকার বিজেপি কর্মীরা পতাকা ও ফেস্টুন লাগাতে শুরু করে। বিজেপির অভিযোগ; এই কাজ করার সময় তৃনমূলের কিছু কর্মী এসে তাঁদের অমিত শাহের সভায় যাতে না যাওয়া হয় তার কারনে হুমকি দেয়। আর এতেই উত্তেজিত হয়ে পড়েন বিজেপি কর্মীরা। যা দুপক্ষের মধ্যে বচসা থেকে হাতাহাতি পর্যন্ত রুপ নেয়।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

তৃনমূলের দাবি, এই ঘটনায় তাঁদের 6 জন কর্মী জখম হয়েছেন। দুজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঘাটাল মাল্টি স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিন এ প্রসঙ্গে বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দেগে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা তৃনমূলের সাধারন সম্পাদক গৌতম ভট্টাচার্য বলেন, “লক্ষকপুর পূর্ব বুথে দলীয় কার্যালয়ে আমাদের 6-7 জন কর্মী যখন দলের কাজ করছিলেন তখন বিজেপির 15-20 জন লাঠি ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে আমাদের অফিসে এসে কর্মীদের ওপর হামলা করে।”

বহিরাগত দুস্কৃতি দিয়ে দলের কর্মীদের ওপর এহেন হামলার জন্য বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন চন্দ্রকোনা 1 ব্লকের তৃনমূল সভাপতি চিত্ত পাল। তবে তৃনমূলের এই সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে অমিত শাহর সভায় যেতে চাওয়ায় বিজেপি কর্মীদের ওপরই তৃনমূল হামলা চালিয়েছে বলে শাসকদলের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন বিজেপির ঘাটাল সাংগঠনিক জেলার সাধারন সম্পাদক সুশান্ত মন্ডল। এদিকে এই ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলে শনিবারই তিনজনকে আটক করে পুলিশ। সব মিলিয়ে পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর গড়েই তৃনমূল কর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। যে ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে এলাকায়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!