এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ‘টার্গেট’ বিজেপির থেকে বেশি লোক টানা, শুভেন্দু-অভিষেকের সভায় গাড়ির জন্য হাহাকার

‘টার্গেট’ বিজেপির থেকে বেশি লোক টানা, শুভেন্দু-অভিষেকের সভায় গাড়ির জন্য হাহাকার

সম্প্রতি মেদিনীপুরে সভা করে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এবার পূর্ব ঘোষিত নীতি অনুযায়ী সেই বিজেপির পাল্টা সভা ডেকে রেকর্ড ভিড় করতে আগামীকাল মেদিনীপুরে সভা করবেন যুব তৃনমূল কংগ্রেসের সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। কিন্তু লোক তো নাহয় নিয়ে যাওয়া যাবে, তবে এত গাড়ি পাওয়া যাবে কোথায়?

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এই প্রশ্নের উত্তরের খোঁজেই এখন সন্দিহান জেলার বিভিন্ন ব্লকের নেতারা। ইতিমধ্যেই জেলার তৃনমূল সভাপতি নির্দেশ দিয়েছেন, জেলায় যে তিন হাজারের কিছু বেশি বুথ রয়েছে সেই প্রতিটা বুথ থেকে 100 জন কর্মী আনতে হবে। আর তার সাথে কৃষক, মহিলা, ছাত্র-যুব ছাড়াও স্বহায়ক গোষ্টীর এক লক্ষ মহিলাকে আনা বাধ্যতামূলক। কিন্তু সব বুথ থেকে যদি 100 কর্মী আনা হয় তাহলেই তো লাগবে তিন হাজারেরও বেশি বাস। এদিকে জেলায় বাস রয়েছে মোটে 400 টি।

ইতিমধ্যেই প্রায় প্রায় সব বাস ভাড়াও হয়ে গিয়েছে। ফলে ট্রেকার আর ছোটো গাড়ি দিয়ে কিভাবে বাকি লোকেদের নিয়ে যাওয়া যাবে তা নিয়ে বড় প্রশ্নচিহ্ন দেখা দিতে শুরু করেছে। অনেক নেতারই বক্তব্য, “অতিরিক্ত ভাড়া দিয়েও এখন আর কোনো গাড়ি পাওয়া যাচ্ছে না।” তবে লরি, টেম্পো করা হচ্ছে ঠিকই, কিন্তু যদি বৃষ্টি হয় তাহলে খোলা গাড়িতে কেই বা ভিজে সেই সভায় যেতে চাইবেন! এদিন খড়গপুর 2 ব্লকের তৃনমূল সভাপতি তৃষিত মাইতি বেশকিছু বাস ও ছোট গাড়ি সভার জন্য আগেভাগেই বুকিং করে রাখা হয়েছে বলে জানান।

অন্যদিকে খড়গপুর শহরের তৃনমূল নেতা তথা পুরসভার সিআইসি সদস্য তুষার চৌধুরী বলেন, ” প্রতি ওয়ার্ডের জন্য একটি বাসভাড়া করা হলেও একটি ট্রেকারও ভাড়া করতে বলা হয়েছে।” এদিকে নারায়নগড়ে এই সভায় যাওয়ার জন্য 30 টি বাস করা হলেও পর্যাপ্ত গাড়ি না পাওয়ার আক্ষেপ শোনা গেল তৃনমূলের নারায়নগড় ব্লকের সভাপতি মিহির চন্দের মুখে। তবে এত সব সত্তেও সভায় যেতে কোনো সমস্যাই হবে না বলে জানিয়েছেন জেলা তৃনমূলের সভাপতি অজিত মাইতি। রাজনৈতিক মহলের মতে, এ যেন ঢাল না থাকা নিধিরাম সর্দারের মত। হয়ত বা বিজেপির নরেন্দ্র মোদীর সভার থেকে অনেক বেশি জনসমাগম হবে তৃনমূলের এই সভায়। কিন্তু বুথ পিছু এই বিপুল কর্মী যদি পর্যাপ্ত গাড়িই না পান তাহলে তাঁরা যাবেন কিভাবে? প্রশ্নটা থেকেই যাচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!