এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > আপোষহীন উন্নয়নের লক্ষ্যে কোমর বেঁধে ময়দানে নামতে আজ বিশেষ বৈঠকে শুভেন্দু অধিকারী

আপোষহীন উন্নয়নের লক্ষ্যে কোমর বেঁধে ময়দানে নামতে আজ বিশেষ বৈঠকে শুভেন্দু অধিকারী

সদ্যসমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটি বলে পরিচিত মুর্শিদাবাদের শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে কিছুটা হলেও ভালো ফল করেছে তৃনমূল। তবে শুভেন্দুবাবুর মূল টার্গেটে থাকা বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্র কংগ্রেসের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিতে পারেনি শাসকদল।

আর এই পরিস্থিতিতে সামনেই 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে এবার মুর্শিদাবাদ জেলার সমস্ত দলীয় জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে আজ কলকাতায় বৈঠক করতে চলেছেন মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। সূত্রের খবর আজ সন্ধ্যায় মুর্শিদাবাদ জেলার সমস্ত বিধায়ক, বিভিন্ন পৌরসভার চেয়ারম্যান এবং জেলা পরিষদের কর্মাধক্ষদের নিয়ে একটি বৈঠক করবেন জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক।

অনেকে বলছেন, আগামী মাসেই মুখ্যমন্ত্রী প্রশাসনিক বৈঠক করতে মুর্শিদাবাদে আসতে পারেন। আর তার আগে এবার সেখানকার সমস্ত দলীয় জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে শুভেন্দু অধিকারী বৈঠক করে মানুষের সাথে সকলকে আরও বেশি করে জনসংযোগ করার পরামর্শ দেবেন।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

জানা গেছে, কিছুদিন আগেই ডোমকল পৌরসভার কাজ নিয়ে বিস্তর অভিযোগ ওঠায় চেয়ারম্যান পদ থেকে সৌমিক হোসেনকে সরিয়ে দেওয়া হয়। পাশাপাশি বহরমপুর এবং কান্দি এলাকার জনপ্রতিনিধিদের কাজেও তৃণমূলের নেতৃত্ব খুব একটা সন্তুষ্ট নয় বলে খবর।

অন্যদিকে বহরমপুরে এবার তৃণমূলের জয় না হওয়ার পেছনে স্থানীয় নেতৃত্বরা অনেকাংশেই দায়ী বলে ফলাফল পর্যালোচনায় উঠেছে। আর তাই আজকে মুর্শিদাবাদ জেলার সমস্ত দলীয় নেতা এবং জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে কলকাতায় শুভেন্দু অধিকারী বৈঠক থেকে সকলকে হুঁশিয়ারি বার্তা দিতে পারেন বলেও মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

দলের একাংশ কর্মীর মতে, বহরমপুর এবং কান্দি মহকুমার বেশ কিছু নেতার আরামপ্রিয় জীবনযাপন সাধারণ মানুষ ভালোভাবে নিচ্ছেন না। পাশাপাশি লালাগোলান এবং ফারাক্কাতেও শাসকদলের দুই গোষ্ঠীর দ্বন্দ চরমে উঠেছে। যার ফলে সেখানে দলীয় কর্মসূচি করা কারও পক্ষেই সম্ভব হচ্ছে না। তাই যে সমস্ত নেতা এখনও পর্যন্ত একে অপরের সাথে দ্বন্দ্বে লিপ্ত রয়েছেন এবং যারা সাধারণ মানুষের সঙ্গে জনসংযোগ করছেন না, তাদেরকে ছেটে আজকের বৈঠক থেকে নতুন কাউকে দায়িত্ব দেন কিনা মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক!

সেদিকেও তাকিয়ে রয়েছেন অনেকে। এদিন এই প্রসঙ্গে মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূলের এক নেতা বলেন, “যাদের বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ রয়েছে, তাদেরকে নিয়েই বেশ কয়েকজন বিধায়ক ঘুরছেন। যার ফল আরও খারাপ হচ্ছে। এই সমস্ত বিষয়ে শুভেন্দুবাবুর কাছে তথ্য রয়েছে। তাই আজকের বৈঠকে তিনি এই বিষয়টি তুলতে পারেন।” সব মিলিয়ে এখন শেষ পর্যন্ত সন্ধ্যার বৈঠকে শুভেন্দু অধিকারী মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূলের নেতাদের ঠিক কি বার্তা দেন, সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!