এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ভাতৃশোক ভুলে শুভেন্দু অধিকারীর অনুরোধে দলের কঠিন সময়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব এগিয়ে এলেন দাদা

ভাতৃশোক ভুলে শুভেন্দু অধিকারীর অনুরোধে দলের কঠিন সময়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব এগিয়ে এলেন দাদা

পুরানে দাদা-ভাইয়ের নীতিকথা আমরা রামায়ণে পড়েছিলাম। দাদা রামের প্রতি ভাই ভরত কিংবা লক্ষণের নিবেদন প্রায় সকলেরই জানা। হয়ত বাস্তবেও এরকম কিছু দাদা ভাইয়ের সম্পর্ক রয়েছে। আর সেরকমই একটা আভাস পাওয়া গেল ভাই কুরবান শার মৃত্যুতে শোকসন্তপ্ত অবস্থাতেও সেই ভাইয়ের পূরণ না করা দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিলেন তারই দাদা আফজল শা।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই মৃত্যু হয়েছে কুরবান শার। মাইসোরের এহেন দাপুটে নেতার মৃত্যুতে রীতিমতো শোকাহত হতে দেখা গেছে রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে। জানা যায়, কুরবান শার মত তৃণমূলের ডাকাবুকো নেতার মৃত্যুতে রীতিমতো হতাশার সৃষ্টি হয়েছে এলাকার তৃণমূল শিবিরে। কেননা তিনি যখন এই এলাকার দায়িত্বে ছিলেন, তখন কোনো নির্বাচনে বিরোধীদের সক্রিয়তা চোখে পড়া তো দূর অস্ত, নমিনেশন সাবমিট পর্যন্ত করতে দেখা যেত না। কিন্তু হঠাৎই সেই কুরবান শাকে খুনের ঘটনায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

কুরবানের অনুপস্থিতিতে কে এলাকায় দলের হাল ধরতে পারবে, তা নিয়ে নানা মহলে গুঞ্জন সৃষ্টি হয়। গত শুক্রবার সেই কুরবান শার স্মরণসভায় যোগ দিতে এসে তারই বরদা আফজল শাকে মাইশোরায় দলের হয়ে নেতৃত্ব দেওয়ার প্রস্তাব দেন জেলা তৃণমূলের নেতা তথা রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। কিন্তু তখন সেই ভাবে এই শুভেন্দু অধিকারীর দেওয়া প্রস্তাব নিয়ে নিহত তৃণমূল নেতার দাদা কোনো মন্তব্য না করলেও শেষ পর্যন্ত নিহত ভাই কুরবান শার অসম্পূর্ণ দায়িত্ব নিজের হাতেই তুলে নিলেন তার দাদা আফজল শা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

জানা গেছে, এদিন ব্লক তৃণমূল নেতৃত্ব মাইশোরা বাজারে একটি জরুরি বৈঠক ডাকেন। আর সেখানেই সর্বসম্মতিক্রমে 11 জনের নতুন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। যার প্রধান করা হয় সেই নিহত তৃণমূল নেতার দাদা আফজাল শাকে। পাশাপাশি এই কমিটিতে জায়গা পেয়েছেন নিহত তৃণমূল নেতা কুরবান শার স্ত্রী তথা মাইশোরা পঞ্চায়েতের প্রধান সাবানা বানু খাতুনও।

এদিন এই নতুন কমিটি প্রসঙ্গে পাঁশকুড়া ব্লক তৃণমূলের সভাপতি দীপ্তি জানা বলেন, “জেলা নেতৃত্বের নির্দেশে দলের সাংগঠনিক কাজ পরিচালনায় কোর কমিটি করেছি। যার প্রধান কুরবানের দাদা আফজলকে করা হয়েছে।” তাহলে কি তিনি ভাইয়ের দায়িত্ব পালন করতেই মাইশোরায় শুভেন্দু অধিকারীর কথামতো সংগঠনের দায়িত্ব নিলেন! এদিন এই প্রসঙ্গে আফজল শা বলেন, “শুভেন্দুবাবু আমাকে ভাইয়ের জায়গায় দেখতে চেয়েছেন। তার ডাকে সাড়া দিয়ে ভাইয়ের অসম্পূর্ণ কাজ শেষ করতেই দলের দায়িত্ব নিলাম।”

কিন্তু আফজল শা ভাইয়ের মৃত্যুতে ভাইয়ের দায়িত্ব পালন করার কথা বললেও শেষ পর্যন্ত তিনি কতটা দক্ষতার সহকারে এলাকায় দলীয় সংগঠনকে বাড়াতে সক্ষম হন! এখন সেদিকেই তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!