এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ঝাড়গ্রামে ঘুরে দাঁড়াতে বড়সড় পদক্ষেপ নিলেন শুভেন্দু অধিকারী

ঝাড়গ্রামে ঘুরে দাঁড়াতে বড়সড় পদক্ষেপ নিলেন শুভেন্দু অধিকারী

লোকসভা নির্বাচনে দলের ফল খুব একটা ভাল হয়নি। আর তারপরেই বিভিন্ন জায়গায় সংগঠনকে চাঙ্গা করতে উদ্যোগী হয়েছে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। সূত্রের খবর, এবার দলকে চাঙ্গা করতে ঝাড়গ্রাম জেলায় চারটি ব্লকের কোর কমিটি গঠন করে দিলেন পরিবহণমন্ত্রী তথা জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী। জানা গেছে, জামবনী, ঝাড়গ্রাম গ্রামীণ, লালগড় ও বেলপাহাড়ি এই চারটি ব্লকেই কোর কমিটি গঠিত হয়েছে। যার মধ্যে ঝাড়গ্রাম গ্রামীণ, জামবনী ও বেলপাহাড়ি, এই তিনটি ব্লকে নতুন করে তিনজনকে পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

সূত্রের খবর, ঝাড়গ্রাম গ্রামীণ ব্লকে পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে নয়াগ্রাম ব্লক তৃণমূলের সভাপতি উজ্জ্বল দত্তকে। অন্যদিকে জামবনী ব্লকে জেলা কোর কমিটির সদস্য প্রসূন ষড়ঙ্গী এবং বেলপাহাড়ি ব্লকে জেলা শ্রমিক সংগঠনের কনভেনার গৌরাঙ্গ প্রধানকে পর্যবেক্ষক করা হয়েছে।

বস্তুত, গত রবিবার মেদিনীপুরে এই ঝাড়গ্রাম জেলার চারটি ব্লকের নেতৃত্বদের ডেকে পাঠান শুভেন্দু অধিকারী। যেখানে উপস্থিত ছিলেন জেলা তৃণমূলের সভাপতি সুকুমার হাঁসদা, বিধায়ক চূড়ামণি মাহাত, চারটি ব্লকের নেতা ছাড়াও জেলাস্তরের বেশ কয়েকজন নেতা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

জানা যায়, সেখানেই প্রত্যেক ব্লক সভাপতি তালিকা দেওয়ার পর শুভেন্দু অধিকারী নিজে কিছু নাম কেটে বাদ দেন, আবার কিছু নতুন নাম সংযোজনও করেন। যেখানে ঝাড়গ্রাম গ্রামীণ ব্লকে তিনি 18 জনের কোর কমিটি গঠন করে দিয়ে সেই কোর কমিটিতে প্রাক্তন ব্লক সভাপতি অনিল মণ্ডলকে রাখেন শুভেন্দু অধিকারী। অন্যদিকে ঝাড়গ্রাম গ্রামীণ ব্লক সভাপতির দায়িত্ব রবীন্দ্রনাথ মাহাতকে দিয়ে ওই ব্লকের চেয়ারম্যান সুকুমার হাঁসদা ও কো-চেয়ারম্যান চূড়ামাণি মাহাতকে করা হয়। পাশাপাশি ঝাড়গ্রাম গ্রামীণ ব্লকের পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে উজ্জ্বল দত্তকে দেওয়া হয়েছে। এদিন এই প্রসঙ্গে উজ্জ্বল দত্ত বলেন, “দল যে দায়িত্ব দিয়েছে, সেই দায়িত্ব পালন করব। সংগঠনকে আরও বেশি শক্তিশালী করব।”

অন্যদিকে বেলপাহাড়ি ব্লকে মোট 18 জনের কোর কমিটি গড়া হয়েছে। যে কমিটিতে রয়েছেন প্রাক্তন ব্লক সভাপতি বংশীবদন মাহাত, জেলা শ্রমিক সংগঠনের কনভেনার বিকাশ সিং, পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি অনুশ্রী মাহাত। ব্লক সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন বুবাই মাহাত। বেলপাহাড়ি ব্লকের চেয়ারম্যান খগেন্দ্রনাথ মাহাতোকে করা হয়েছে। আবার জামবনী ব্লকে ১৪জনের কোর কমিটি গঠন করা হয়। যেখানে রয়েছেন যুব তৃণমূলের জেলা সভাপতি দেবনাথ হাঁসদা, এসটি ও এসসি সেলের নেতা অর্জুন হাঁসদা, প্রাক্তন ব্লক সভাপতি জগদীশ মাহাত সহ অন্যান্যরা। তবে জামবনী ব্লকের পর্যবেক্ষকের দায়িত্বপেয়ে প্রসূন ষড়ঙ্গী বলেন, “দলীয় সংগঠন ও এলাকার সার্বিক উন্নয়নের প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করার জন্য যা কাজ করার, তাই করব।”

অন্যদিকে লালগড় ব্লকে 17 জনের কোর কমিটিতে প্রাক্তন ব্লক সভাপতি বনবিহারী রায়, বিনপুরের নেতা জলধর পণ্ডা, লসো হেমব্রম প্রমুখ ব্যাক্তিরা রয়েছেন। শ্যামল মাহাতকে ব্লক সভাপতি করে চেয়ারম্যান করা হয়েছে সুকুমার হাঁসদাকে। এদিন এই প্রসঙ্গে শ্যামলবাবু বলেন, “কোর কমিটির কে কে থাকবেন, তা দাদা ঠিক করেছেন। তবে কমিটি বড় কথা নয়, কাজ করাটাই বড় কথা।” তবে কিছু ব্লক করা হলেও বাকি যে সমস্ত ব্লক রয়েছে, সেগুলো খুব তাড়াতাড়ি সম্পন্ন করে দেওয়া হবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।

Top
error: Content is protected !!