এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বেলাগাম শুভেন্দু অধিকারী, অস্বস্তিতে শাসকদল

বেলাগাম শুভেন্দু অধিকারী, অস্বস্তিতে শাসকদল

 

তিনি দক্ষ সংগঠক। ভালো বক্তাও বটে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দুর্দিনের সঙ্গী হিসেবে পরিচিত। কিন্তু এহেন জনপ্রিয় নেতৃত্বের মুখ থেকে যখন বেলাগাম শব্দ প্রয়োগ হতে দেখা যায়, তখন নিঃসন্দেহে অবাক হয়ে যায় রাজনৈতিক মহল। তিনি আর কেউ নন, রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী তথা একাধিক জেলার তৃণমূলের পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী।

বর্তমানে ভোট রাজনীতিতে উত্তপ্ত বাংলার মাটি। প্রায় প্রতিনিয়তই শাসক-বিরোধী সমস্ত রাজনৈতিক দল একে অপরকে উদ্দেশ্য করে কড়া ভাষায় আক্রমণ করছেন। আরে দলীয় প্রার্থীদের জেতাতে ইতিমধ্যেই কালিয়াগঞ্জ থেকে খড়গপুর দৌড়ে বেড়াচ্ছেন তৃণমূলের শুভেন্দু অধিকারী।

কেননা 2016 সালে এই দুই কেন্দ্রে কোথাও বিজেপি আবার কোথাও কংগ্রেস জয়যুক্ত হয়েছে। আর তাই এবার এই দুই কেন্দ্রে দলীয় প্রার্থীকে জয়লাভ করানোর জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী। সূত্রের খবর, এদিন উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থী তপন দেব সিংহের হয়ে প্রচার করেন শুভেন্দুবাবু।

আর সেখানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন তিনি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে শুভেন্দু অধিকারী “হাফমন্ত্রী”, “গরুর গাড়ির হেডলাইট” এই শব্দগুলো উল্লেখ করেন।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

বিশ্লেষকরা বলছেন, দেবশ্রীদেবী কেন্দ্রের প্রতিমন্ত্রীর দপ্তর সামলাচ্ছেন। আর তাই তাকে উদ্দেশ্য করে রসিকতাস্বরূপ “হাফমন্ত্রী” বলে উল্লেখ করেছেন রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী বলে মত পর্যবেক্ষকদের। তবে এই প্রথম নয়, এর আগে খড়্গপুরের দলীয় প্রার্থীর প্রচারে গিয়ে সেখানকার ভূতপূর্ব বিধায়ক বিজেপির দিলীপ ঘোষকেও কড়া ভাষায় আক্রমণ করতে দেখা যায় শুভেন্দু অধিকারীকে।

যেখানে তিনি বলেন, “দিলীপ ঘোষ অপদার্থ। বিধানসভায় থাকাকালীন তিন বছরে তিনি কোনো কাজ করতে পারেননি। কাজের নিরিখে দিলীপ ঘোষের স্থান 294 নম্বরে। সেই কারণেই তিনি সাংসদ হয়ে চলে গিয়েছেন।” আর দীলিপবাবুর পর এবার রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরীর বিরুদ্ধে শুভেন্দু অধিকারীর এই মন্তব্য এখন প্রবল আলোড়ন সৃষ্টি করেছে রাজ্য রাজনীতিতে। তবে বিজেপি অবশ্যই সমস্ত মন্তব্যকে গুরুত্ব দিতে নারাজ।

তাদের দাবি, তৃণমূল ভয় পেয়ে এই সমস্ত কথা বলছে। তবে তারা যত এই সমস্ত কথা বলবে, তত বিজেপি ভালোর দিকে এগোবে। সব মিলিয়ে নির্বাচনী প্রচারে এবার বিরোধীদের কটাক্ষ করে শোরগোল ফেলে দিলেন রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!