এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে এবার অভিনব সুবিধা পেতে চলেছেন কলকাতাবাসী

শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে এবার অভিনব সুবিধা পেতে চলেছেন কলকাতাবাসী

পুজোর আগেই কোলকাতাবাসীকে চমকে দেওয়ার মতো নতুন পরিষেবা আনতে চলেছে রাজ্য পরিবহন দপ্তর। সবটাই করা হচ্ছে শহরবাসীকে যাত্রাপথের ঝঞ্ঝাট থেকে মুক্তি দিতে। এবার থেকে একটা টিকিটেই সরকারি বাস,মেট্রো এবং ফেরির সুবিধা পেতে চলেছেন কোলকাতাবাসী। এই পরিষেবা চালু করা নিয়ে রাজ্যের পরিবহণ দপ্তরের বৈঠকও হয়ে গেছে মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষের। বৈঠকে ইতিবাচক সাড়াও পাওয়া গেছে মেট্রো রেলের আধিকারিকদের তরফ থেকে। এর পরবর্তী ধাপে লোকাল ট্রেনেও এই অভিন্ন টিকিট ব্যবস্থা চালু করা যায় কিনা তা নিয়ে রাজ্য পরিবহন দপ্তরের তরফ থেকে প্রস্তাবও গেছে পূর্ব এবং দক্ষিণ-পূর্ব রেলের কাছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

রাজ্য পরিবহন দপ্তর সূত্রে আরো জানা গেছে, ‘কোলকাতা ট্রান্সপোর্ট কার্ড’ (কেটিসি) নামক এই নয়া পরিষেবাটি প্রথমে মিলবে কোলকাতার সমস্ত সরকারি বাস ডিপো এবং নির্দিষ্ট কয়েকটি মেট্রো স্টেশানে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকে পুজোর আগেই শহরবাসীর সুবিধার জন্য চালু করা হবে ‘কেটিসি স্মার্ট’ পরিষেবা। জানা গেছে, বিশ্বেরর বিভিন্ন উন্নত দেশগুলোতে একটি কার্ডের মাধ্যেমেই যাত্রীরা বিভিন্ন পরিবহন মাধ্যমে যাতায়াতের সুবিধাটি পেয়ে থাকেন। এবার সেই দেশগুলোর যাতায়াত পরিষেবা ব্যবস্থাটিকে অনুসরণ করেই রাজধানীতে আসতে চলেছে ‘কেটিসি স্মার্ট’ পরিষেবা।

এই নতুন কার্ডটি তৈরিতে বিশ্বব্যাংকের সহায়তার কথাও জানা গেছে। কার্ড রিচার্জ করানোর বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যে দুটি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কের সঙ্গে বৈঠক হয়ে গেছে পরিবহন দপ্তরের। তবে এখনো কোনো  চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের কথা জানাননি ব্যাঙ্কের কর্মকর্তারা। তাঁরা সম্মতি দিলেই অনলাইনে কার্ড রিচার্জের সুবিধা পাবেন যাত্রীরা। এছাড়া জানা গেছে, কোলকাতার দুটি ফেরি ঘাটে স্মার্টকার্ড পরীক্ষার মেশিন বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে দপ্তরের। পরিবহন দপ্তরের সঙ্গে চুক্তির পরেই মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ নয়া কার্ডটির জন্য টিকিট পরীক্ষার স্বয়ংক্রীয় গেটের সংস্কার করার পদক্ষেপ নেবে। একইসঙ্গে বাসডিপো ও ফেরিঘাটেও নতুন গেট তৈরি করা হবে বলেই খবর পাওয়া গেছে। প্রশাসনের তরফ থেকে পুজোর আগেই নতুন উপহার পাওয়ার খবরে রীতিমতো উল্লাসিত শহুরে মানুষজন। এই নতুন পরিষেবা উপভোগ করার জন্যে তাঁরা অধীর আগ্রহে প্রতীক্ষার দিন গুনছে বলেই জানা যাচ্ছে।

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!