এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > লোকসভাতেই কংগ্রেসকে ‘সাইনবোর্ড’ করার উদ্দেশ্যে এবার বড়সড় পরিকল্পনায় শুভেন্দু অধিকারী

লোকসভাতেই কংগ্রেসকে ‘সাইনবোর্ড’ করার উদ্দেশ্যে এবার বড়সড় পরিকল্পনায় শুভেন্দু অধিকারী

দলের কর্মীদের লোকসভা ভোটের প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে দলের ব্লক ও মহাকুমা সভাপতিদের নিয়ে আগামীকাল কোলকাতায় দলের নেতাদের সঙ্গে একটি বৈঠক করার সিদ্ধান্ত নিলেন পরিবহণ ও পরিবেশমন্ত্রী তথা তৃণমূলের মুর্শিদাবাদ জেলা পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী। ইতিমধ্যে বুথস্তরে কর্মীদের চাঙ্গা করতে পাড়ায় পাড়ায় ঘরোয়া বৈঠক শুরু করেছে তৃণমূল।

দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্রিগেড সমাবেশের প্রচারের জন্যে জেলায় প্রাথমিক প্রস্তুতি সেরে ফেলেছেন তৃণমূলের জেলা পর্যবেক্ষক। এরপর গত ১৬ ফেব্রুয়ারি শহরের রবীন্দ্র সদনে দলের জেলা কমিটি, ত্রিস্তর পঞ্চায়েতের জনপ্রতিনিধি ও পুরসভার কাউন্সিলারদের নিয়ে তিনটি বৈঠক করে ভোট নিয়ে দ্বিতীয় দফার প্রস্তুতি শুরু করেছেন। সেই বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুসারে দলের জেলার নেতারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে জনসংযোগ বাড়ানো তথা পাড়া বৈঠক শুরু করেছে বর্তমানে।

এছাড়া চলতি মাসের ১৬ তারিখ শহরের ওয়াইএমএ ময়দামে মিনি ব্রিগেড সভা করার কথা রয়েছে দলের জেলা পর্যবেক্ষকের। এই অবস্থায় জেলার পাঁচটি মহকুমা এবং ২৬টি ব্লকের দলীয় সভাপতিদের কলকাতায় ডেকে মিনি ব্রিগেড সভার প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি জেলার তিনটি লোকসভা কেন্দ্র ছিনিয়ে নেওয়ার ‘ব্লু-প্রিন্ট’ তৈরি করা হবে বলেই ধারনা অভিজ্ঞমহলের।

এ প্রসঙ্গে,জেলা পরিষদের সভাধিপতি তথা তৃণমূলের নওদা ব্লক সভাপতি মোশারফ হোসেন মণ্ডল বলেন,’দলের জেলা পর্যবেক্ষক কলকাতায় কী বিষয়ে আলোচনা করবেন, তা জানা নেই। তাছাড়া, বিষয়টি দলীয়। এ ব্যাপারে প্রকাশ্যে কিছু বলা যাবে না। তবে, এবার লোকসভা ভোটে জেলার মাটি থেকে কংগ্রেস সহ বিরোধীদের সাফ করব।’

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

মুর্শিদাবাদ কংগ্রেসের দুর্ভেদ্যঘাঁটি হলেও গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে জোড়াফুল শিবির কংগ্রেসের সেই দর্পচূর্ণ করেছে। তবে ফের ভেঙে যাওয়া ঘর গোছাতে তৎপর হয়ে উঠেছেন প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা সংসদ সদস্য অধীর চৌধুরী। গতকাল বহরমপুর ব্লকের হাতিনগর গ্রাম পঞ্চায়েতের বকুলতলায় অঞ্চল সম্মেলন করেন তিনও।

সেখানে সমগ্র বুথ থেকে প্রায় ৫০০ জন কর্মী উপস্থিত ছিলেন৷ সেখানে লোকসভা ভোটে তৃণমূলের সঙ্গে জোট না করার ব্যাপারেই অধিকাংশ কর্মীরা মত দেন। পাশাপাশি পঞ্চায়েতে ভোট দিতে না পারার ব্যাপারে উষ্মাও প্রকাশ করেছেন দলীয় কর্মীরা। তবে এবারের লোকসভা ভোটে মুর্শিদাবাদ কেন্দ্রে তৃণমূলকে কংগ্রেসের ক্ষমতা দেখিয়ে দেবে বলেই দৃঢ় প্রতিজ্ঞা নিয়েছেন অধীরবাবু। তাই কংগ্রেসের শক্তঘাঁটিতে ফের কংগ্রেসকে ধরাশায়ী করতে তৃণমূলও ফের সঙ্ঘবদ্ধ হচ্ছে।

তবে কংগ্রেসের গতকালের সম্মেলনে তৃণমূলের ৭০০ জন কর্মী যোগ দিয়েছেন বলে দাবী করেছে কংগ্রেস। তবে এ দাবী একেবারেই ভুয়ো বলে মন্তব্য করলেন জেলা তৃণমূলের সহ সভাপতি অশোক দাস। তাঁর বক্তব্য,’রাজনৈতিকভাবে কোণঠাসা হয়ে দল ভাঙানোর আষাঢ়ে গল্প ছড়িয়ে হাওয়া গরম করার চেষ্টা করছে কংগ্রেস।’

অন্যদিকে,তৃণমূলের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়ার অভিযোগ তুলে গত ৩ মার্চ থেকে আন্দোলন শুরু করেছে কংগ্রেস। এই আন্দোলনের জেরে ইতিমধ্যে ২৬ টি থানার মধ্যে বহরমপুর, হরিহরপাড়া, রানিনগর, মুর্শিদাবাদ প্রভৃতি থানা এলাকায় প্রতিবাদ মিছিল ও ডেপুটেশন দেওয়া হয়েছে।

আগামী শুক্রবার পর্যন্ত এই কর্মসূচি চলবে বলেই জানা গিয়েছে। এ প্রসঙ্গে প্রদেশ কংগ্রেসের মুখপাত্র জয়ন্তবাবু বলেন,কয়েকজন সুযোগসন্ধানী নেতা দলত্যাগ করলেও জেলাবাসীর এখনো অধীর চৌধুরীকে মানেন। তাই এবারের লোকসভা ভোটে তৃণমূলকে টেক্কা দিয়ে কংগ্রেস জয় লাভ করবে তাতে কোনো সন্দেহ নেই।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!