এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রাজীব কুমারকে সিবিআই জেরা কাণ্ডে এবার ‘মাঙ্কি টুপি’ রহস্য, ক্রমশ বাড়ছে জল্পনা

রাজীব কুমারকে সিবিআই জেরা কাণ্ডে এবার ‘মাঙ্কি টুপি’ রহস্য, ক্রমশ বাড়ছে জল্পনা

চিটফান্ড তদন্ত কাণ্ডে রাজ্য সরকারের গঠিত সিটের প্রধান তথা অধুনা কলকাতা পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে সিবিআইয়ের জেরা নিয়ে ক্রমশ বাড়ছে জল্পনা। গত শনিবার থেকে টানা জেরা করা হচ্ছে রাজীব কুমারকে। প্রথম দিনেই অবশ্য তিনি ও তাঁর আইনজীবী দাবি করেছিলেন যে ১২ তারিখ থেকে রাজ্যে শুরু হওয়া মাধ্যমিকের কথা মনে রেখে তাঁকে জেরা-পর্ব যেন ১১ তারিখের মধ্যেই শেষ করে ফেলা হয়। কিন্তু কোথায় কি? সিবিআই আজকেও জেরা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজীব কুমারকে।

আজ রাজীব কুমারের শিলংয়ে সিবিআই দপ্তরে ঢোকার কথা ছিল সকাল ১০:৪০ মিনিটে, সেই মত তিনি পৌঁছেও যান। কিন্তু, রাজীব কুমার সিবিআই দপ্তরে পৌঁছনোর আধঘন্টা আগে এক রহস্যময় ব্যক্তির আগমন হয় সেখানে। একটি গাড়িতে করে তিন সিবিআই আধিকারিকের সঙ্গে এক ব্যক্তি আসেন সিবিআই দপ্তরে। তাঁর পরিচিতি যাতে কেউ না জানতে পারেন, তাই চূড়ান্ত গোপনীয়তা রক্ষার্থে তাঁর মুখ ঢাকা ছিল ‘মাঙ্কি ক্যাপে’। যে গর্তে তাঁকে আনা হয় তার সামনে চালকের পাশের আসনে ছিলেন সারদার তদন্তকারী আধিকারিক তথাগত বর্ধন।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

ওই ব্যক্তি পিছনের আসনে অন্য দুই সিবিআই আধিকারিকের মধ্যে বসেছিলেন। এইভাবে অত্যন্ত গোপনীয়তার সঙ্গে এক ব্যক্তিকে সিবিআই দপ্তরে আনতেই স্পষ্ট হয়ে যায় এঁর সঙ্গে রাজীব কুমারকে জেরা করার বিশেষ সম্পর্ক আছে। বিশেষ করে গতকাল, রাজীব কুমার এক দক্ষ অফিসারের কথা জানিয়েছিলেন – যিনি নাকি বকলমে সিটের তদন্ত চালাচ্ছিলেন। অন্যদিকে, আরেকটি মহলের দাবি, ইতিমধ্যেই সারদা মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া এক প্রাক্তন পুলিশ আধিকারিক হতে পারেন উনি। এমনকি সারদা গ্রূপের এক ভাইস প্রেসিডেন্টের নামও ভেসে উঠছে।

এদিকে, প্রথম দুদিন রাজীব কুমারকে সারদা নিয়ে জেরা করা হলেও গতকাল মূলত তাঁর কাছ থেকে রোজভ্যালি তদন্ত নিয়ে জানতে চাওয়া হয়। আজ, টাওয়ার গ্রূপের তদন্ত নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চলতে পারে বলে সূত্রের খবর। এদিকে, ভুবনেশ্বর এবং দিল্লি থেকে সিবিআইয়ের আরও দুই এসপি পদমর্যাদার আধিকারিক শিলং পৌঁছেছেন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। অর্থাৎ, সবমিলিয়ে রাজীব কুমারকে জেরার সময় দীর্ঘায়িত হবে বলেই মনে করা হচ্ছে – খুব তাড়াতাড়ি তাঁর জেরা-পর্ব মিটবে বলে মনে হচ্ছে না। এর পাশাপাশিই – একসঙ্গে এতগুলো চিটফান্ড কান্ড নিয়ে জেরা চলায়, নতুন অনেক প্রভাবশালীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সিবিআই ডাকতে পারে বলে জল্পনা ছড়িয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top