এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > সুপ্রিম কোর্টে বড় ধাক্কা – রাজীব কুমারকে বড়সড় নির্দেশ দেশের সর্বোচ্চ আদালতের

সুপ্রিম কোর্টে বড় ধাক্কা – রাজীব কুমারকে বড়সড় নির্দেশ দেশের সর্বোচ্চ আদালতের

গত রবিবার রাত থেকে কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে সিবিআইয়ের জেরা করা নিয়ে কার্যত নজিরবিহীন ঘটনা চলছে রাজ্যজুড়ে – যা তোলপাড় করে দিয়েছে রাজ্যের সীমানা ছাড়িয়ে জাতীয় রাজনীতিও। রাজ্যে সারদাকাণ্ডের তদন্তের জন্য রাজ্য সরকার একটি স্পেশ্যাল ইনভেস্টিগেশন টীম বা সিট গঠন করে। যার মাথায় ছিলেন রাজীব কুমার। এরপরে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সারদা কাণ্ডের তদন্তভার হাতে তুলে নেয় সিবিআই।

ফলে সিটের আর তদন্তে কোনো কাজ থাকে না – কিন্তু বিরোধীদের তরফে বারবার অভিযোগ ওঠে সিটের নামে আসলে সারদা কাণ্ডের বহু নথি নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে এবং এর নেতৃত্ব দিয়েছেন রাজীব কুমার। অন্যদিকে, সিবিআইয়ের তরফে স্পষ্ট দাবি, সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেনকে জেরা করে জানতে পারা গেছে রাজীব কুমার একটি ল্যাপটপ, ৫ টি মোবাইল ফোন, হার্ডডিস্ক, পেন ড্রাইভ তদন্তের সময় সিজ করেছেন আর সেখানে নাকি বহু প্রভাবশালীকে দেওয়া সুদীপ্ত সেনের হিসাব আছে।

অথচ, সেই সব গুরুত্ত্বপূর্ন নথি রাজীব কুমার সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেন নি বলে অভিযোগ ওঠে। এরফলে, গত দুবছর ধরে তাঁকে তিন-তিনবার সিবিআইয়ের তরফে ডেকে পাঠানো হলেও, তিনি সিবিআইয়ের সঙ্গে দেখা করেননি। ফলে গত রবিবার সিবিআইয়ের একটি টীম রাজীব কুমারের সঙ্গে তাঁর বাড়িতে দেখা করতে গেলে কলকাতা পুলিশ কার্যত গোয়েন্দা আধিকারিকদের ঘাড় ধরে বা চ্যাংদোলা করে থানায় নিয়ে চলে যায়। ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

তিনি জানিয়ে দেন, রাজীব কুমার নির্দোষ ও পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ পুলিশ অফিসার। নরেন্দ্র মোদী রাজনৈতিক প্রতিহিংসা নিতে সিবিআই লাগিয়েছে আর এর প্রতিবাদে তিনি সেদিন রাত থেকেই মেট্রো চ্যানেলে ধর্নায় বসেন। অন্যদিকে রাজীব কুমারকে জেরা করতে গিয়ে কলকাতা পুলিশের হাতে এইভাবে হেনস্থা হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টে যায় সিবিআই। প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে তিন সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চ আজ সেই মামলার শুনানি করে। সেই শুনানিতেই একাধিক গুরুত্বপূর্ণ দিক উঠে এল।

১. রাজীব কুমারের নেতৃত্বাধীন সিট যে তদন্ত রিপোর্ট সিবিআইয়ের হাতে তুলে দিয়েছিল তা অসম্পূর্ন
২. এমনকি অনেক বিকৃত (ট্যাম্পার্ড) কল রেকর্ড দেওয়া হয়েছে, সুদীপ্ত সেনের কম্পিউটার থেকে পাওয়া অনেক তথ্য উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে সিটের নেতৃত্বে
৩. সিবিআই যদি মনে করে রাজীব কুমারকে সিবিআই তদন্তের মুখোমুখি হতেই হবে
৪. তবে আপাতত গ্রেফতার করা যাবে না রাজীব কুমারকে
৫. আগামী ২০ শে ফেব্রুয়ারি রাজীব কুমারকে সশরীরে সুপ্রিম কোর্টে হাজির হতে হবে
৬. এর পাশাপাশি ওই দিনের মধ্যেই রাজ্যের মুখ্যসচিব ও রাজ্য পুলিশের ডিজিকে সুপ্রিম কোর্টের পাঠানো নোটিশের জবাব দিতে বলা হয়েছে
৭. সবথেকে বড় কথা, তদন্তে সিবিআইকে পূর্ন সহযোগিতা করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাজীব কুমারকে
৮. এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে আগামী আগামী ২৮ শে ফেব্রুয়ারি

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!