এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মেদিনীপুর > পদ্মকাঁটা তুলে খড়্গপুর ঘাসফুলে ছেয়ে যেতেই দলীয় নেতাদের জন্য বড়সড় উপহার নিয়ে হাজির শুভেন্দু

পদ্মকাঁটা তুলে খড়্গপুর ঘাসফুলে ছেয়ে যেতেই দলীয় নেতাদের জন্য বড়সড় উপহার নিয়ে হাজির শুভেন্দু

বহু চেষ্টা করে অবশেষে খড়্গপুরে বিজেপি হাওয়াকে দমিয়ে দিয়ে প্রদীপ সরকারের জয় নিশ্চিত করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। 2016 থেকে 2019 পর্যন্ত খড়্গপুরে বিজেপির বাড়বাড়ন্ত দেখা গেলেও 2019 এর বিধানসভা উপনির্বাচনে সেই খড়্গপুরে জয়লাভ করতে পারেনি বিজেপি প্রার্থী। উল্টে শুভেন্দু অধিকারীর রাজনৈতিক ক্যারিশমায় সেখানে জয়লাভ করেছেন তৃণমূলের প্রদীপ সরকার।

যা রীতিমতো তৃণমূলের কাছে উৎসাহ হওয়ার কারণ। আর তৃণমূল প্রার্থীকে জয়লাভ করার পেছনে যেমন শুভেন্দুবাবুর উন্নয়নের বার্তা কাজে দিয়েছে, ঠিক তেমনই দলের রণকৌশলও অনেকাংশে কাজে এসেছে বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের। এদিকৈ জয়লাভের সাথে সাথেই সাধারণ মানুষকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করতে খড়গপুরে এসেছিলেন রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী। আর সেদিনই তিনি জানিয়ে দিয়েছিলেন যে, মঙ্গলবার ফের তিনি খড়্গপুরে আসবেন।

সেইমতো আজ মঙ্গলবার খড়্গপুরে এসে প্রতিশ্রুতি মতো বেশ কয়েকটি মন্দিরে সময় কাটিয়ে দলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করতে চলেছেন তৃণমূলের শুভেন্দু অধিকারী। জানা গেছে, বৈঠক শেষে সেই সমস্ত নেতৃত্বের সঙ্গে নৈশভোজে করার কথা রয়েছে তার। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, খড়গপুর বিধানসভা নির্বাচনের দিন ঘোষণা হওয়ার অনেক আগে থেকেই এখানে জেতবার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছিলেন শুভেন্দুবাবু। খড়গপুর পৌরসভার 35 টি ওয়ার্ডের জন্য দলের পক্ষ থেকে 54 জনকে বাছাই করে পর্যবেক্ষক করা হয়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

যাদের জন্য ওয়ার্ড ভিত্তিক একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ চালু করা হয়েছিল। যেখানে শুভেন্দুবাবুর বাছাই করা পর্যবেক্ষকরা ছিলেন। আর সেই পর্যবেক্ষকদের কাছে প্রতিমুহূর্তে গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ দিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। যার পুরোটাই এই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের মাধ্যমে সম্পন্ন হয়েছিল বলে খবর। হোয়াটস অ্যাপে পর্যবেক্ষকদের মাধ্যমে খড়গপুর পৌরসভার তৃণমূলের অবস্থা কেমন, তা জেনে নিতেন শুভেন্দু অধিকারী। পরে তা মেরামতির জন্য টনিক দিতেন তিনি।

আর এর ফলেই যে খড়্গপুরে তৃণমূলের জয় এবার নিশ্চিত হয়েছে, তা বুঝতে বাকি নেই কারোরই। আর এই পরিস্থিতিতে জয়লাভের পর মানুষকে ধন্যবাদ জানাতে এসে সেই সমস্ত হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে থাকা পর্যবেক্ষকদের সাথে কথা বলবেন বলে জানিয়ে দিয়েছিলেন জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক। অবশেষে কথা দিয়ে কথা রাখতে চলেছেন তিনি। সূত্রের খবর, আজ মঙ্গলবার খড়গপুরে এসে বেশ কয়েকটি মন্দিরের সময় কাটানোর পাশাপাশি রাতে সেই ওয়ার্ড পর্যবেক্ষকদের সঙ্গে বৈঠক করবেন শুভেন্দু অধিকারী।

অনেকে বলছেন, বিধানসভা উপনির্বাচনে জয়যুক্ত হওয়ার পর মানুষকে ধন্যবাদ জানাতে এসে সভা মঞ্চ থেকেই শুভেন্দু অধিকারী বলেছিলেন, “মঙ্গলবার পর্যবেক্ষকদের সঙ্গে বসব। এতদিন ধরে যে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপটা ছিল, তোমাদের সঙ্গে আলোচনা করার পর তা বন্ধ করে দেব। পরবর্তীকালে তোমাদের দলে আরও দায়িত্ব দেওয়া হবে।” ফলে রাতে সেই সমস্ত পর্যবেক্ষকদের সঙ্গে বৈঠকের পর হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ বন্ধ করে দিয়ে শুভেন্দু অধিকারী সেই সমস্ত ব্যক্তিদের ঠিক কি দায়িত্ব দেন, সেদিকে তাকিয়ে রয়েছেন অনেকেই।

এদিন এই প্রসঙ্গে জেলা তৃণমূলের সভাপতি অজিত মাইতি বলেন, “শুভেন্দুবাবু প্রতি ওয়ার্ডে একজন করে পর্যবেক্ষক বাছাইয়ের কথা বলেছিলেন। মঙ্গলবার 54 জনকে নিয়ে তিনি মেদিনীপুরে আলোচনা করবেন। নির্বাচনী সাফল্যের জন্য তাদের ধন্যবাদ জানানো হবে। পাশাপাশি তাদের সঙ্গে আমরা সকলেই নৈশভোজ সারব।” তবে নৈশভোজ হওয়ার পাশাপাশি এখন সেই সমস্ত নির্বাচনে খেটে জয় আনা ব্যক্তিদের শুভেন্দু অধিকারী কি উপহার দেন, তার দিকে তাকিয়ে রয়েছে, গোটা রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!