এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > শিক্ষামন্ত্রীর হস্তক্ষেপে সেন্ট পলস্‌ নিগ্রহ কাণ্ডে দুই অভিযুক্ত ছাত্রের বিরুদ্ধে কড়া ব্যাবস্থা কতৃপক্ষের

শিক্ষামন্ত্রীর হস্তক্ষেপে সেন্ট পলস্‌ নিগ্রহ কাণ্ডে দুই অভিযুক্ত ছাত্রের বিরুদ্ধে কড়া ব্যাবস্থা কতৃপক্ষের

শহরের একটি বহু প্রাচীন  কলেজ সেন্ট পলস্‌ সম্প্রতি একটি ছাত্র নিগ্রহের ঘটনার জেরে খবরের পাতায় অন্যভাবে জায়গা করে নিলো। গত মাসে কলেজ ক্যম্পাসে মদ্যপানের প্রতিবাদ করায় এক ছাত্রকে নগ্ন করে নিগ্রহের অভিযোগ উঠেছিলো কলেজেরই দুই অন্যের ছাত্রের বিরুদ্ধে। এদিন অভিযুক্ত দুই ছাত্র ইউনিট সভাপতি অর্ণব ঘোষ, এবং অভিজিত্‍ দলুইকে কলেজ কর্তৃপক্ষ বহিষ্কার করল ।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

জানা যাচ্ছে গত সপ্তাহে এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পরেই ঘটনার বিশদে তদন্তের জন্যে  কলেজের তরফে ৭ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। আভ্যন্তরীণ তদন্তের পরেই ঐ কমিটি কলেজ কর্তৃপক্ষকে রিপোর্ট জমা দেয়। এরপর কলেজ কর্তৃপক্ষ নির্দিষ্ট ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানিয়ে রাজ্যের শিক্ষা দফতরকেও অবগত করে। গত সপ্তাহে এই ঘটনার কথা শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কানে গেলে তিনি এই বিষয়ে অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দানের আশ্বাস দেন। উল্লেখ্য সেন্ট পলস কলেজের টিএমসিপি ইউনিটের এক সদস্য স্টুডেন্টস এইড ফান্ড-এর হিসেব চেয়েছিলেন। এর জবাবে ইউনিট সভাপতি অর্ণব ঘোষ, কলেজের অস্থায়ী অশিক্ষক কর্মী অনন্ত প্রামানিক, অভিজিত দলুই এবং শেখ এনামূল হক ওই ছাত্রকে নগ্ন করে নিগ্রহ করে। এবং পরবর্তীতে ঐ ছবি সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করা হয়। এই ঘটনার কথা জানাজানি হতে ওই চারজনের বিরুদ্ধে নিকটবর্তী আমহার্স্ট স্ট্রিট থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। এরপরে কলেজ কুর্তৃপক্ষ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের প্রথম পর্যায়ে  অস্থায়ী অশিক্ষক কর্মী অনন্ত প্রামাণিককে বরখাস্ত করা হয়। এবং কলেজের পক্ষ থেকে ৭ জন সদস্যের কমিটি গঠন করে তদন্ত করে অভিযুক্ত বাকি ২ জন ছাত্রকে বহিঃস্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!