এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুরুলিয়া-ঝাড়গ্রাম-বাঁকুড়া > খাবারের প্যাকেটে ‘বিতর্কিত’ শব্দের ‘প্রতিবাদ’ করে গ্রেপ্তার বিজেপি নেতা, উত্তাল পুরুলিয়া

খাবারের প্যাকেটে ‘বিতর্কিত’ শব্দের ‘প্রতিবাদ’ করে গ্রেপ্তার বিজেপি নেতা, উত্তাল পুরুলিয়া

গত শনিবার বিজেপি নেতাকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে ১২ ঘন্টার বনধ পালিত হল পুরুলিয়ার জয়পুরের। প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার সাম্প্রদায়িক উস্কানি ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় বিজেপির জেলা সম্পাদক রবিন সিংদেওকে। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে বিজেপি নেতাদের গ্রেফতার করা হচ্ছে বলে দাবী করে জেলা বিজেপি। শনিবার এই প্রতিবাদে জেলা বিজেপির ডাকে পুরুলিয়ার জয়পুরে ডাকা ১২ ঘন্টার বনধে ব্যাপক সারা ফেলেছিল l এলাকায় প্রায় সমস্ত দোকানপাট বন্ধ ছিল। বেসরকারি যানবাহন বা বাস সারাদিনে প্রায় চলেইনি। তবে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সারাদিন ধরেই এলাকায় পুলিশের টহলদারি চলতে থাকে। তবে বনধে সাড়া স্বতঃস্ফূর্ত হওয়ায় সারাদিনে কোনো অশান্তির খবর পাওয়া যায় নি। বনধের সমর্থনে গেরুয়া শিবির বিশাল মিছিল বের করলে তাতে সাধারণ মানুষের যোগদানও ছিল চোখে পড়ার মত।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগেই সরকারের তরফ থেকে স্থানীয় নবম শ্রেণী থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত ছাত্রীদের যে শুকনো খাবার সরকারের তরফ থেকে দেওয়া হয় তাতে ‘বিতর্কিত’ শব্দ লেখা আছে বলে সরব হন বিজেপি নেতা রবিন সিংদেও। এই বিস্ফোরক অভিযোগ নিয়ে তিনি পুরুলিয়ার জয়পুর ব্লকের বিডিও নয়না দেকে স্মারকলিপিও জমা দেন। এরপরেই সেই স্মারকলিপির ছবি ও ভিডিও নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ছবি প্রকাশ করা ও প্রকাশ্যে সাম্প্রদায়িক উস্কানি ছড়ানোর অভিযোগে জয়পুর বিডিও অফিসের উদ্যাগে গত বৃহস্পতিবার জয়পুর থানায় লিখিত অভিযোগ করা হলে, গত শুক্রবার পুরুলিয়া জেলা পুলিশের অপরাধ দমন শাখা রবিনবাবুকে গ্রেফতার করে। কিন্তু তাঁর গ্রেফতারির পরেই এলাকার পরিস্থিতি ক্রমশ উত্তপ্ত হয় বলে দাবি গেরুয়া শিবিরের। আর তারফলেই সাধারণ মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে এই গ্রেফতারির প্রতিবাদ জানাতে এই বনধ ডাকে বলেও দাবি করেছেন স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ত্ব।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!