এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বিধানসভায় ক্রমশ শক্তি বাড়াচ্ছে বিজেপি, দলীয় বিধায়কদের কড়া নির্দেশিকা তৃণমূলের

বিধানসভায় ক্রমশ শক্তি বাড়াচ্ছে বিজেপি, দলীয় বিধায়কদের কড়া নির্দেশিকা তৃণমূলের


বেশ কিছুদিন আগেই তৃণমূলের কোর কমিটির বৈঠকে দলীয় বিধায়কদের বিধানসভায় হাজিরা দেওয়ার ব্যাপারে কড়া নির্দেশ দিতে দেখা যায় তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কিন্তু নেত্রীর সেই নির্দেশ যে দলীয় বিধায়কদের কানে এখনও পৌঁছায়নি তা ফের স্পষ্ট হয়ে গেল। লোকসভা নির্বাচনের পর যখন বাংলায় বিজেপির শক্তি দিনকে দিন বৃদ্ধি হচ্ছে, যখন শাসকদলের একের পর এক জনপ্রতিনিধি গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাচ্ছেন – ঠিক তখনই শাসকদলের বিধায়কদের বিধানসভায় সেইমতো উপস্থিত না হওয়ার ঘটনা বড়ই ভাবাতে শুরু করেছে তৃনমূলকে।

যার ফলস্বরূপ এবার শাসকদলের বিধায়কদের উপস্থিতির হার বাড়াতে নির্দেশিকা জারি করতে হল বিধানসভার মুখ্যসচেতক নির্মল ঘোষকে। জানা গেছে, বিধানসভায় দলীয় বিধায়কদের অনুপস্থিতি নিয়ে অসন্তুষ্ট মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই মুখ্যসচেতক নির্মল ঘোষকে দলীয় বিধায়কদের যাতে অধিবেশনের সময় উপস্থিত হন, তার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। আর মুখ্যমন্ত্রীর সেই নির্দেশকে মান্যতা দিয়েই দলীয় বিধায়কদের উদ্দেশ্যে গত মঙ্গলবার সেই নির্দেশিকা জারি করেছেন নির্মলবাবু।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে নির্মল ঘোষ বলেন, “দলের সমস্ত বিধায়কদের নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে অধিবেশনে উপস্থিত থাকার জন্য। বিশেষ করে মুখ্যমন্ত্রী যেদিন অধিবেশন কক্ষে থাকবেন, সেদিন উপস্থিত থাকা বাধ্যতামূলক।” কিন্তু হঠাৎ দলীয় বিধায়কদের অধিবেশনে উপস্থিত থাকার ব্যাপারে এইভাবে শাসকদলের নির্দেশিকা দেওয়ার পেছনে তৈরি হয়েছে জল্পনা। বিরোধীরা বলছেন, লোকসভা ভোটের পর যেভাবে তৃণমূলের জনপ্রতিনিধি এবং বিধায়করা বিজেপিতে যোগদান করতে শুরু করেছেন, তাতেই আতঙ্কিত হয়ে উঠেছে তৃণমূল।

আর তার জেরেই এবার রাজ্য বিধানসভায় যখন শাসকের বিরুদ্ধে একের পর এক এক ইস্যুতে সরব হচ্ছে বিরোধীরা, ঠিক তখনই সেখানে দলীয় বিধায়কদের অনুপস্থিতিতে রীতিমতো চিন্তিত হয়ে উঠছে ঘাসফুল শিবির। আর তাতেই এবার মুখ্যসচেতককে দিয়ে দলীয় বিধায়কদের বিধানসভার অধিবেশনে উপস্থিত হওয়ার ব্যাপারে নির্দেশিকা জারি করান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেই মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!