এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রাজ্যের ডাকসাইটে মন্ত্রীকে সোশ্যাল মিডিয়ায় কুরুচিকর আক্রমণ করে শ্রীঘরে দুই যুবক!

রাজ্যের ডাকসাইটে মন্ত্রীকে সোশ্যাল মিডিয়ায় কুরুচিকর আক্রমণ করে শ্রীঘরে দুই যুবক!

পুজোর মরসুমেও একে অপরকে উদ্দেশ্য করে কটূক্তির রেওয়াজ এই বাংলায় থামল না। এবার সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিককে উদ্দেশ্য করে অশালীন মন্তব্যের অভিযোগে গ্রেফতার করা হল এক যুবককে। বস্তুত, দুর্গাষষ্ঠীর দিনে হাবরার শ্রীনগর এলাকার আমবাগান পুজো মণ্ডপের উদ্বোধন করতে এসেছিলেন উত্তর 24 পরগনা জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।

আর সেখানেই নিজেদের ক্লাবের উদ্বোধন মন্ত্রীর হাত দিয়ে হওয়ায় সেই ছবির একটি অংশ ফেসবুকে পোস্ট করেন ওই ক্লাবেরই সদস্য তমাল বণিক। যেখানে তমালবাবু লেখেন, “মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক আমাদের পুজোর উদ্বোধন করেছেন। তাঁকে সংবর্ধনা দিতে পেরে আমরা অত্যন্ত খুশি।” আর এত পর্যন্ত সমস্ত কিছু ঠিকঠাক থাকলেও এই পোস্টে এক ব্যক্তির কমেন্টকে ঘিরেই ছড়িয়ে পড়েছে বিতর্ক।

অভিযোগ, ক্লাব সদস্য তমাল বণিকের করা এই ফেসবুক পোস্টের নিচে রামপ্রসাদ দাস ওরফে রাহুল দাস নামে এক ব্যক্তি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিককে “চোর” বলে সম্বোধন করেছেন। যার পরেই স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব এই ব্যাপারে হাবড়া থানায় অভিযোগ জানালে পুলিশ তদন্তে নেমে সেই রামপ্রসাদ দাসকে বাউগাছি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে। জানা গেছে, ধৃতকে রবিবার বারাসাত জেলা আদালতে তোলা হলে বিচারক তার চার দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে স্থানীয় তৃণমূল নেতা সীতাংশু দাস বলেন, “আমরা ফেসবুকে দেখেছিলাম। সঙ্গে সঙ্গেই থানায় অভিযোগ জানিয়েছি। ওই যুবক মন্ত্রীর বিরুদ্ধে যে মন্তব্য করেছেন, তা অত্যন্ত কুরুচিকর। আমরা ওর কঠোর শাস্তি চাইছি। খাদ্যমন্ত্রী তথা এলাকার বিধায়ক জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের সম্মান ও ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্যই এই ধরনের মন্তব্য করা হয়েছে।”

এদিকে ধৃত ব্যক্তির এই কমেন্টে তার পরিবারের পক্ষ থেকেও দুঃখ প্রকাশ করা হয়েছে। তবে যাকে নিয়ে এত কিছু, সেই অভিযুক্ত যুবক রামপ্রসাদ দাস বলেন, “আমি অত্যন্ত গর্হিত কাজ করেছি। সোশ্যাল সাইটে মন্ত্রীর সম্বন্ধে এমনটা লেখা উচিত হয়নি।”

এদিকে এই গোটা ঘটনায় বিজেপির মদত রয়েছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করতে দেখা গেছে উত্তর 24 পরগনা জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিককে। তবে এই প্রসঙ্গে মন্ত্রীর করা অভিযোগকে সম্পূর্ণরূপে অস্বীকার করেছেন গেরুয়া শিবিরের নেতৃত্বরা।

এদিন এই ব্যাপারে বারাসাত সাংগঠনিক জেলা বিজেপির সহ-সভাপতি বিপ্লব হালদার বলেন, “যিনি এই মন্তব্য করেছেন, তিনি আমাদের দলের কর্মী নন। বিজেপি নিচু সংস্কৃতিতে বিশ্বাস করে না।” সব মিলিয়ে পুজোর মরসুমে খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হলে তার নিচে করা এক ব্যক্তির কুরুচিকর কমেন্টের পরিপ্রেক্ষিতে সেই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!