এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > সুপ্রিম কোর্টে চলছে মামলা – আইন বাঁচিয়ে পঞ্চায়েতের নতুন বোর্ড গঠনের প্রক্রিয়া শুরু

সুপ্রিম কোর্টে চলছে মামলা – আইন বাঁচিয়ে পঞ্চায়েতের নতুন বোর্ড গঠনের প্রক্রিয়া শুরু

পঞ্চায়েতে উন্নয়নমূলক কর্মসূচির গতি অব্যাহত রাখার উদ্দেশ্যকে সামনে রেখেই ত্রিস্তর পঞ্চায়েতের নতুন বোর্ড গঠনের প্রক্রিয়া শুরু করল রাজ্য সরকার। পঞ্চায়েত দপ্তর থেকে এই মর্মেই বিজ্ঞপ্তি জারি করা হল। আইনি জটিলতা নেই যেসব গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি এবং জেলা পরিষদে শুধুমাত্র সেগুলিতেই বোর্ড গঠন প্রক্রিয়া শুরু করা যাবে বলে জানানো হল। ইতিমধ্যে সমস্ত জেলাশাসককে চিঠি পাঠিয়ে বোর্ড গঠনের প্রক্রিয়া শুরু করতে বলা হয়েছে।

১,৬৩৮ টি গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন প্রক্রিয়া চলবে ১৬ থেকে ২৯ অগাষ্ট পর্যন্ত। ১২৩ টি পঞ্চায়েত সমিতিতে বোর্ড গঠনের কাজ চলবে ৩১ অগাষ্ট থেকে ৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এবং ৮ টি জেলা পরিষদে বোর্ড গঠনের প্রক্রিয়া চলবে ১০ থেকে ১৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বোর্ড গঠন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার নির্দেশ রয়েছে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে। উল্লেখ্য, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার ,দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদা, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া এবং হাওড়া – এই আইনি জটিলতাহীন আটটি জেলা পরিষদই পঞ্চায়েত বোর্ড গঠনের ছাড়পত্র পেয়েছে বলে খবর পঞ্চায়েত দপ্তর সূত্রে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

প্রসঙ্গত, এ বছরে ১৪ ই মে-র পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফল ঘোষিত হয়েছিল ১৭ মে। ফলাফল সামনে আসার পর দেখা গেছে মোট ৪৮,৬৫০ টি গ্রাম পঞ্চায়েত আসনের মধ্যে ১৬,৮১৪ টি আসনেই নিরঙ্কুশ ভাবে জয়ী হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। ৯,২১৭ টি পঞ্চায়েত সমিতির আসনের মধ্যে ৩,০৫৯ টি আসনে এবং জেলা পরিষদের ৮২৫ টি আসনের মধ্যে ২০৩ টি আসনেও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তৃণমূলই জয় পেয়েছে। আর এত বিপুল আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তৃণমূল কংগ্রেসের জয় লাভ করা নিয়ে তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করে বিরোধীরা।

এমনকি এই নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থও হন বিরোধীরা। সেই মামলার এখনো কোনো রায়দান হয় নি, আগামী ১৩ আগষ্ট মামলার শুনানির দিন ধার্য হয়েছে। মামলার রায় না বেরোনোর জন্য এতোদিন বোর্ড গঠন নিয়ে কোনো সক্রিয়তা দেখায়নি রাজ্য সরকার। এমনকী পঞ্চায়েতের ফল ঘোষনার পর গেজেট বিজ্ঞপ্তি জারি করে জয়ী প্রার্থীর নামও ঘোষণা করা হয়নি।

তবে এবার আর চুপ করে বসে থাকতে রাজি নয় রাজ্য সরকার। বোর্ড গঠন না হওয়ার জন্য থমকে আছে পঞ্চায়েতের কাজকর্ম, আর তার সাথেই রাজ্যের উন্নয়ন বলে দাবি নবান্নের কর্তাদের। তাই স্বাভাবিকতা ফেরাতে আইনি গেরোয় আটকে নেই যেসব পঞ্চায়েতগুলো সেগুলিতে বোর্ড গঠনের প্রক্রিয়া শুরু করল রাজ্য সরকার বলে দাবি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!