এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বাইরে গিয়ে আটকে পড়া মানুষদের নিয়ে নয়া সিদ্ধান্ত রাজ্যের, কেন্দ্রের কাছে কি আর্জি? জেনে নিন!

বাইরে গিয়ে আটকে পড়া মানুষদের নিয়ে নয়া সিদ্ধান্ত রাজ্যের, কেন্দ্রের কাছে কি আর্জি? জেনে নিন!

করোনা ভাইরাসকে আটকাতে ইতিমধ্যেই রাজ্যজুড়ে শুরু হয়ে গিয়েছে লকডাউন। তবে রাজ্য থেকে বিভিন্ন কারণে বাইরে যাওয়া মানুষেরা পড়েছেন নানা সমস্যায়। কেননা দেশের বিভিন্ন জায়গায় এখন প্রবল সংকট চলছে। সেদিক থেকে পশ্চিমবঙ্গ থেকে ভিন রাজ্যে যাওয়া মানুষেরা না পারছেন নিজের রাজ্যে ফিরতে, না পারছেন সেই রাজ্যে সুষ্ঠুভাবে থাকতে। আর এই পরিস্থিতিতে সেই ভিন রাজ্যে গিয়ে আটকে পড়া বাসিন্দাদের নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন যেতেই তার ব্যাপারে তৎপরতা গ্রহণ করল রাজ্য সরকার।

সূত্রের খবর, সোমবার দুপুরে নবান্নের সভাগৃহে একটি সর্বদলীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে বাম, কংগ্রেস, বিজেপি, তৃণমূল সহ প্রতিটি রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে প্রতিনিধিরা উপস্থিত হন। আর সেখানেই বিভিন্ন দলের পক্ষ থেকে এই বিষয়টি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। যার পরেই সকলকে আশ্বস্ত করে এই ব্যাপারে কেন্দ্রকে চিঠি লেখার কথা জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, “ভিন রাজ্যে গিয়ে আটকে পড়া এখানকার বাসিন্দাদের যাতে কোনো সমস্যা না হয়, তার জন্য মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা কেন্দ্রের ক্যাবিনেট সচিব এবং সংশ্লিষ্ট রাজ্যের মুখ্যসচিবকে চিঠি লিখবেন। অনুরোধ করা হবে, আগামী 15 এপ্রিল পর্যন্ত যাতে সেই সমস্ত আটকে পড়া মানুষের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থাটুকু করা হয়।” অর্থাৎ, ভিন রাজ্যে থাকা মানুষজন এতদিন আতঙ্কে থাকলেও, এবার কেন্দ্রের কাছে দরবার করে সেই সমস্ত মানুষদের জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যা এই পরিস্থিতিতে অত্যন্ত সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত বলেই মত বিশেষজ্ঞদের।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিকে এদিনের এই বৈঠকে সকলকে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন থাকার ব্যাপারে পরামর্শ দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “এখন আতঙ্কিত না হয়ে নিজেকে এবং পরিবারের লোকজনকে সুস্থ রাখাই আমাদের সকলের লক্ষ্য। সতর্ক থাকতে হবে। এই কদিনে অনেকের সঙ্গে দেখা করেছি। ভাইপোরা সহ বাড়ির অন্যান্যরা আমাকে অনেক সময় খাবার দিতে আসে। তাদের বারণ করেছি। আমি এখন একাই থাকছি।”

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেকে দিয়ে বুঝিয়ে দিতে চাইলেন যে, তিনিও নিয়মের বেড়াজালের বাইরে নয়। তাই তো অনেকের সঙ্গে দেখা করলে তিনিও যে পৃথকভাবে বাড়িতে থাকছেন, তা তুলে ধরে সকলকে সচেতন হওয়ার কথা বললেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!