এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > অসংগঠিত শ্রমিকদের জন্য বড়সড় সাহায্য রাজ্য সরকারের – জানুন বিস্তারিত

অসংগঠিত শ্রমিকদের জন্য বড়সড় সাহায্য রাজ্য সরকারের – জানুন বিস্তারিত

রাজ্যের অসংগঠিত শ্রমিকদের উন্নয়নের জন্য নানা সময়ে বিভিন্ন প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেছেন রাজ্যের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবারে মুখ্যমন্ত্রীর সেই উদ্যোগকে বাস্তব রূপ দিতে মৌলালির রামলীলা পার্কে আয়োজিত কলকাতা শ্রমিক মেলায় প্রায় দু’হাজার নথিভূক্ত শ্রমিককে তিন কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা করা হল।

সূত্রের খবর, মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত ওই কলকাতার শ্রমিক মেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাংসদ সুব্রত বক্সি। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের শ্রমমন্ত্রী মলয় ঘটক, বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায়, ক্রেতা সুরক্ষা মন্ত্রী সাধন পান্ডে, বিপর্যয় মোকাবিলা মন্ত্রী জাভেদ আহমেদ খান, রাষ্ট্রমন্ত্রী নির্মল মাঝি, সুজিত বসু, জাকির হোসেন সহ সাংসদ দোলা সেন, কলকাতা পৌরসভার চেয়ারম্যান মালা রায়, বিধায়ক মালা সাহা ও অন্যান্যরা।

আর সেই অনুষ্ঠানেই উপস্থিত হয়ে প্রত্যেকেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাজ্যের বর্তমান তৃণমূল সরকারের অসংগঠিত শ্রমিকদের জন্য উন্নয়নে রাজ্যের বিভিন্ন প্রকল্পের কথা বিস্তারিতভাবে তুলে ধরেন।প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সামাজিক সুরক্ষা যোজনা প্রকল্প গড়ে এই শ্রমিকদের ভবিষ্যত পরিকল্পনা এবং সন্তানের পড়াশোনার খরচের জন্য একটি অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য। যেখানে মাসে 25 টাকা করে জমা দিতে হবে। আর সরকারর পক্ষ থেকে দেওয়া হবে 30 টাকা।

 

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

আর একটা সময়ের পর সেই শ্রমিকের 60 বছর বয়স হলে বা কোনো কারণে তাঁর মৃত্যু হলে সেই টাকা সুদ সহ মিটিয়ে দেবে রাজ্য সরকার।এমনকি দুর্ঘটনায় কোনো শ্রমিকের মৃত্যু হলে তাঁর পরিবারকে দু লক্ষ টাকা এবং স্বাভাবিক মৃত্যুর ক্ষেত্রে 50 হাজার টাকা ও অঙ্গহানির ক্ষেত্রে 50 হাজার থেকে 2 লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করবে রাজ্য সরকার।

এছাড়াও চিকিৎসার জন্য বার্ষিক 20 হাজার এবং অস্ত্রপ্রচারের জন্য 60 হাজার টাকার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এমনকি ইতিমধ্যেই অবিবাহিত কন্যা সন্তানরা স্নাতক স্তর পর্যন্ত পড়াশুনা করলে তাঁদেরও সরকারের পক্ষ থেকে 25 হাজার টাকা এককালীন অনুদান হিসেবে সাহায্য করা হবে বলেও ঘোষণা করা হয়েছে।

এদিন রাজ্যের সেই সমস্ত প্রকল্পের কথা উল্লেখ করে অনুষ্ঠানে উপস্থিত সমস্ত বক্তারাই বিগত বামফ্রন্ট সরকারের বিরুদ্ধে নিজেদের সুর চড়ান। তারা বলেন, “অসংগঠিত ক্ষেত্রকে বিগত বামফ্রন্ট সরকার খুব একটা গুরুত্ব দেয়নি। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অসংগঠিত শ্রমিকদের জন্য অনেক কাজ করেছেন। তাই মুখ্যমন্ত্রীকে আমরা ধন্যবাদ জানাই।” সব মিলিয়ে এবার কলকাতার শ্রমিক মেলায় উপস্থিত হয়ে তৃণমূলের সাংসদ থেকে মন্ত্রীদের মুখে শোনা গেল সেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরই প্রশংসা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!