এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুজোর মুখে বড় সুখবর দিল রাজ্য সরকার – হলদিয়ায় বিনিয়োগ ৪৫ হাজার কোটি, এক হাজার কর্মসংস্থান

পুজোর মুখে বড় সুখবর দিল রাজ্য সরকার – হলদিয়ায় বিনিয়োগ ৪৫ হাজার কোটি, এক হাজার কর্মসংস্থান

আর হাতে গোনা কয়েকদিন পরই পুজো। আর তার আগেই রাজ্যে বিনিয়োগের খবর হাসি ফোটালো বেকার যুবক যুবতীদের। হলদিয়া শিল্পাঞ্চলে ৪৫ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে চলেছে চ্যাটার্জী গ্রুপ। এর ফল প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ ভাবে এক হাজার কর্মসংস্থানের পথ সুগম হল। চলতি বছরের ডিসেম্বর থেকেই শুরু হবে নয়া প্রকল্পের কাজ। হলদিয়া ডেভেলপমেন্ট অথরিটির ল্যান্ড ব্যাঙ্কের তরফ থেকে এই শিল্পের জন্য প্রয়োজনীয় জমি বরাদ্দ করা হয়েছে। আর এদিন নবান্নে মন্ত্রীসভার বৈঠকে কারখানা তৈরির জন্য জমি দেওয়ার প্রস্তাবও অনুমোদন হয়ে গিয়েছে। শিল্পশহর হলদিয়ায় এই নতুন প্রকল্পের মাধ্যমে কর্মসংস্থানের নতুন পথ খুলে দেবে বলেই মনে করছে রাজ্যসরকার।

বলাবাহুল্য ক্ষমতায় এসেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে বিনিয়োগ আনতে যথাসাধ্য চেষ্টা করে চলেছেন। বিশ্ববঙ্গ বানিজ্য সম্মেলন চালু করেছেন মুখ্যমন্ত্রী,একথা অজানা নয় কারো। এছাড়া কখনো চীন,কখনো ইউরোপ সফরে যাচ্ছেন নেত্রী শিল্পের জন্য লগ্নি আনার তাগিদে। সম্প্রতিই ইউরোপ সফরে গিয়েছিলেন নেত্রী। রাজ্যে বিনিয়োগের উদ্দেশ্যে ইউরোপের বিভিন্ন শিল্পপতি এবং সরকারি প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন তিনি। ইতিবাচক সাড়া মিলেছে জার্মানি,ইতালির মতো সমৃদ্ধ দেশের শিল্পপতিদের থেকে। শুধু বিদেশ নয়,দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকেও বিনিয়োগকারীরা বাংলায় শিল্প গড়তে উদ্যোগী হয়েছেন।

 

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আর এদিকে হলদিয়ায় সাড়ে ৪ হাজার কোটির লগ্নি চ্যাটার্জি গ্রুপ তৈরি করবে পিউরিফায়েড অ্যাসিড প্ল্যান্ট। হলদিয়া উন্নয়ন পর্ষদের দেওয়া প্রায় ৯৯ একর জমিতে তৈরি হবে নয়া প্রকল্প। নবান্নের মন্ত্রীসভার বৈঠকে এই প্রকল্পের জন্য জমির ছাড়পত্র দিয়েছে রাজ্য সরকারের শিল্প সংক্রান্ত স্যান্ডিং কমিটি। পুর ও নগরোন্নয়ন দপ্তর মারফত জমি চেয়ে সরকারের কাছে প্রস্তাব পাঠিয়েছিলেন শিল্পপতি পূর্ণেন্দু চট্টোপাধ্যায়। উল্লেখ্য, রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী হলদিয়া উন্নয়ণ পর্ষদেরও চেয়ারম্যান। নবান্নে মন্ত্রীসভার বৈঠকের পর তিনিই জানান,নয়া প্রকল্পের জন্য প্রজেক্ট রিপোর্ট ইতিমধ্যেই হলদিয়া উন্নয়ন পর্ষদে জমা পড়ে গিয়েছে। এই প্রস্তাবিত প্রকল্পের হাত ধরে কর্মসংস্থানের নতুন সুযোগ পেতে চলেছে তরুণ প্রজন্মরা। আপাতত কবে এই নয়া প্রকল্পের সূচনা হবে, সেদিকেই নজর রয়েছে বেকার যুবক যুবতীদের। রাজ্যসরকারের এই উদ্যোগকে দেখে কর্মসংস্থান নিয়ে আশাবাদী তারা। এমনটাই মনে করা হচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!