এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > গ্রাম পঞ্চায়েতের উন্নয়নে এবার নজিরবিহীন পদক্ষেপ রাজ্য সরকারের, জানুন বিস্তারিত

গ্রাম পঞ্চায়েতের উন্নয়নে এবার নজিরবিহীন পদক্ষেপ রাজ্য সরকারের, জানুন বিস্তারিত

2011 সালে রাজ্যে পালাবদলের পর থেকেই গ্রামীন এলাকায় উন্নয়নে আরও জোর দিতে সকলকে সক্রিয় হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার সেই কাজের গতিকে আরও তরান্বিত করতে রাজ্যের সমস্ত পঞ্চায়েতগুলিকে জিওগ্রাফিক্যাল ইনফরমেশন সিস্টেম বা জিআইএসের আওতায় আনতে চাইছে রাজ্য সরকার। পাশাপাশি এই কাজে যাতে কোনো গাফিলতি না আসে তার জন্যও এর মাধ্যমেই বাড়তি নজর দিতে চায় রাজ্য সরকার।

সূত্রের খবর, মূলত গ্রামের বার্ষিক উন্নয়ন পরিকল্পনা, উন্নয়নমূলক কাজ তৈরিতে নোডাল অফিসার নিয়োগ, গ্রামস্তরের সমস্ত উন্নয়নমূলক পরিকল্পনাকেই এই জিআইএসের অধীনে নিয়ে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু ঠিক কী কী কাজ করতে হবে এই জিআইএসে? জানা গেছে, উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শনে গিয়ে স্মার্ট ফোনের জিআইএস চালু করে বিভিন্ন প্রকল্পের ছবি তুলে তা ওয়েবসাইটে পোস্ট করবেন প্রশাসনিক আধিকারিকরা। এমনকী এই ছবি পোস্টের সময় দিন, তারিখ, ভৌগোলিক অবস্থান সব কিছুরই উল্লেখ থাকবে। যার জেরে জেলার প্রশাসনিক ভবন থেকেই বিভিন্ন প্রকল্পের কাজের বাস্তবায়ন দেখতে পারবেন সরকারি আধিকারিকরা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার এক ভিডিও কনফারেন্সে এই ব্যাপারে প্রতিটি জেলার জেলাশাসক এবং জেলা পঞ্চায়েত দপ্তরের আধিকারিকদের একটি নির্দেশ দিয়েছেন রাজ্য পঞ্চায়েত দপ্তরের কর্তারা। জানা গেছে, আগামী 10 অক্টোবর এইব্যাপারে কোলকাতায় একটি প্রশিক্ষন শিবির হওয়ারও কথা রয়েছে। যেখানে জেলাশাসক এবং জেলা পঞ্চায়েত দপ্তরের আধিকারিকরাও উপস্থিত থাকবেন। অন্যদিকে মুর্শিদাবাদে এই কাজ শুরু হয়েছে বলে জানান জেলার অতিরিক্তি জেলাশাসক (জেলাপরিষদ এবং পঞ্চায়েত) সুদীপ্ত পোড়েল। সব মিলিয়ে পঞ্চায়েতের উন্নয়নে গতি আনতে আরও একধাপ এগোলো রাজ্য সরকার

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!