এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > রাজ্য সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডিএ ও বেতন কমিশনের ক্ষোভ নাকি মিটে গিয়েছে বিদেশ ভ্রমণের সুযোগ পেয়ে! দাবি সরকারি দপ্তরের

রাজ্য সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডিএ ও বেতন কমিশনের ক্ষোভ নাকি মিটে গিয়েছে বিদেশ ভ্রমণের সুযোগ পেয়ে! দাবি সরকারি দপ্তরের

রাজ্যের সরকারি কর্মচারীদের বকেয়া মহার্ঘ ভাতা এবং বেতন কমিশন কার্যকর করা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন বিরোধী দল থেকে রাজ্য সরকারি কর্মীদের একাংশ। কিন্তু এবার সেই ক্ষোভকে প্রশমন করতে সেই রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বিদেশযাত্রার সুবর্ণ সুযোগ করে দেওয়ার জন্য নাকি রাজ্য সরকারের প্রতি অনেকটাই সন্তুষ্ট সরকারি কর্মচারীরা – বর্তমানে এমনটাই দাবি করতে শুরু করেছে অর্থ দপ্তর।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত 2015 সালে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের এলডিসি নিয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে রাজ্যের অর্থ দপ্তর। যেখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরেই সেই সরকারি কর্মচারীদের বিদেশ যাত্রার জন্য একটি অভিনব সুযোগ করে দেওয়া হয়। যে নির্দেশিকায় বলা হয়, 2015 সাল থেকে দশ বছর, অর্থাৎ 2025 পর্যন্ত রাজ্যের কর্মরত সরকারি কর্মচারীরা রাজ্যের ভেতরে ঘোরার সুযোগ পাবেন।

পাশাপাশি অন্তত একবার ভিন রাজ্যে যাওয়ার সুযোগ পাবেন তাঁরা। আর সেই যাতায়াতের সম্পূর্ণ খরচ বহন করবে রাজ্য সরকার। আর রাজ্যের পরিবর্তনের সরকারের আমলে এহেন সুযোগ পেয়ে খুশি ছিলেন সিংহভাগ সরকারি কর্মচারীরাই। পাশাপাশি ই-ফাইলিং ব্যবস্থাতেও গতি এসেছে রাজ্যের বর্তমান সরকারের আমলে। রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের স্বাস্থ্য বীমার পরিমাণ যেমন এক লাফে বেড়েছে, ঠিক তেমনি নগদহীন ব্যবস্থাও সেখানে যোগ হয়েছে। 

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে বছরে দুদুবার ভ্রমণের সুযোগ পেয়ে আনন্দিতও হয়েছেন সরকারি কর্মচারীরা। ব্যাংকক থেকে পাটায়া যাওয়ার ক্ষেত্রে কেবলমাত্র প্লেনে আসা যাওয়ার ভাড়াটা মিটিয়ে দিলেই সরকারি কর্মীচারীদের দুদিন ব্যাংকক এবং তিন দিন পাটায়া থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা করে দিচ্ছে সংশ্লিষ্ট সংস্থা।

আর এর পরে সেখান থেকে ফিরে অফিসে নিজেদের বিল জমা করলে সেই টাকা ফেরত পেয়ে যাচ্ছেন সরকারি কর্মচারীরা। আর এই খরচ মেটাতে রাজ্য সরকারের যে প্রতিনিয়ত কত অর্থ বেরিয়ে যাচ্ছে এদিন সেই কথা শোনা যায় রাজ্যের অর্থ দপ্তরের এক কর্তার গলায়।

এদিন রাজ্যের অর্থ দপ্তরের ওই কর্তা বলেন, “বকেয়া ডিএ নিয়ে প্রচুর কথা শোনা যায়। কিন্তু সরকারি কর্মীদের বিদেশ যাত্রা বাবদ খরচ মেটাতে প্রতিবছর রাজকোষ থেকে মোটা টাকা গলে যাওয়ার ঘটনা কিন্তু অনেকেই জানেন না।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!