এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বড়সড় সুখবর গ্রামীন এসএসকে-এমএসকে শিক্ষকদের জন্য

বড়সড় সুখবর গ্রামীন এসএসকে-এমএসকে শিক্ষকদের জন্য

এবার গ্রামীণ এসএসকে এবং এমএসকে শিক্ষকদের ব্যাপারে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে রাজ্য সরকার। বস্তুত, দীর্ঘ সময় ধরে এই এমএসকে অর্থাৎ মাধ্যমিক শিক্ষা কেন্দ্র এবং এসএসকে অর্থাৎ শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষকরা তাদের দাবি নিয়ে তীব্র আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

এমনকি তাদের এই দাবিগুলো যাতে পূরণ করা হয়, তা নিয়ে কিছুদিন আগেই রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের সঙ্গে বিধানসভায় দীর্ঘক্ষন বৈঠকও করেন তারা।

জানা যায়, সেখানেই তারা রাজ্যের পুরমন্ত্রীকে তাদের একাধিক দাবি দাওয়া সম্পর্কে অবগত করেছেন। এমনকি তাদের সঙ্গে কথা বলার পর এই ব্যাপারে প্রকাশ্যে মুখ খুলেছিলেন কলকাতা পৌরসভার মেয়র তথা রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমও।

যেখানে তিনি বলেন, “শিক্ষকেরা গ্রামীন এসএসকে, এমএসকের সমহারে বেতন, ছুটি সহ একাধিক সুযোগ-সুবিধার দাবি জানিয়েছেন। রাজ্য সরকার এই দাবির সঙ্গে সম্পূর্ণ সহমত। খুব শীঘ্রই এই বিষয়ে লিখিত নির্দেশিকা জারি করা হবে।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

সূত্রের খবর, পুরমন্ত্রীর কথা অনুযায়ী ইতিমধ্যেই কলকাতা শহরের এসএসকে, এমএসকে শিক্ষকদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা সুনিশ্চিত করতে রাজ্যের পুর দফতরের তরফে একটি ফাইল অর্থ দপ্তরের পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। আর যেহেতু এখন এই ফাইলটি অর্থ দপ্তরের হাতে রয়েছে, সেহেতু অর্থ দপ্তরের পক্ষ থেকে সেই ফাইলটি ছেড়ে দেওয়া হলেই লিখিত নির্দেশিকা জারি হতে আর বেশি সময় লাগবে না বলেই মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।

এদিন এই প্রসঙ্গে রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, “ফাইলটি অর্থ দপ্তরে রয়েছে। পুরো বিষয়টি অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রের এক্তিয়ারভুক্ত। খুব তাড়াতাড়ি এই ব্যাপারে লিখিত নির্দেশিকা জারি হবে।” আর যদি এটাই বাস্তব হয়, তাহলে গ্রামীন এসএসকে এবং এমএসকে শিক্ষকদের সমহারে বেতন, ছুটি সহ একাধিক সুযোগ-সুবিধার দাবি যে এবার মিটতে চলেছে, সেই ব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিত প্রায় প্রত্যেকেই।

Top
error: Content is protected !!