এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মাথার উপরে মামলার খাঁড়া তবুও তড়িঘড়ি শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু, বাড়ছে জট

মাথার উপরে মামলার খাঁড়া তবুও তড়িঘড়ি শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু, বাড়ছে জট

বহু আইনী জটিলতার পরে স্কুল সার্ভিস কমিশন (এসএসসি) উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগের জন্যে মেধা-তালিকা প্রকাশ করেছিল। কিন্তু তাতেও আদালতে আবার পালটা মামলা রুজু হয়। তবে এত কিছুর পরেও সোমবার স্কুল সার্ভিস কমিশন (এসএসসি) জানালো উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগের কাউন্সেলিং ২৬ জুলাই থেকে ২ রা অগষ্ট অবধি চলবে।
সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি শেখর ববি শরাফ শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত মামলায় মেধা-তালিকা প্রকাশ না-করে কাউন্সেলিং চলবে না এই নির্দেশ দিয়েছিলেন। বিচারপতির এই নির্দেশকে মাণ্যতা দিয়েই স্কুল সার্ভিস কমিশন (এসএসসি) মেধা-তালিকা প্রকাশ করে। এরপরেও কিছু কর্মপ্রার্থী স্কুল সার্ভিস কমিশনের (এসএসসি) তালিকা প্রকাশের পদ্ধতি নিয়ে আপত্তি জানিয়ে গত ১৭ জুলাই আবার মামলা করেছেন। সেই মামলার প্রথম শুনানির আগেই এদিন এসএসসি-কর্তৃপক্ষ কাউন্সেলিংয়ের সময়সূচী জানিয়ে দিল।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

তাদের কর্ম পদ্ধতিতে আপত্তি জানিয়ে মামলা দায়ের হয়েছে একথা জেনেও সেই মামলার শুনানির আগেই কাউন্সেলিংয়ের নির্ঘণ্ট প্রকাশ করা হল কেন এই প্রশ্নের জবাবে এসএসসি-র এক কর্তা জানালেন, হাইকোর্টে দায়ের হওয়া দ্বিতীয় মামলাটির বিষয়ে তাঁরা কিছু জানেন না।

১২ জুলাই হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছিল, অবিলম্বে মেধা-তালিকা প্রকাশ করতে হবে। আদালতের সেই নির্দেশকে স্কুল সার্ভিস কমিশন (এসএসসি) সম্পূর্ণভাবে পালন করেছেন। এখন স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠেছে, এই দ্বিতীয় মামলার ভিত্তি কী? এই মামলাদায়েরকারীর আইনজীবির জানিয়েছেন, কী পদ্ধতিতে মেধা-তালিকা তৈরী হবে, সেই ব্যাপারে এসএসসি-কর্তৃপক্ষ ২০১৬ সালের ২০ সেপ্টেম্বর পূর্ববর্তী বিধিতে সংশোধন আনেন। তাতে বলা রয়েছে, লিখিত পরীক্ষা, শিক্ষাগত যোগ্যতা, পার্সোনালিটি টেস্ট এবং বিএড প্রশিক্ষণের জন্য প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে আগে মেধা-তালিকা প্রকাশ করতে হবে। তার পরে কাউন্সেলিং হবে।

এদিকে অভিযোগকারীর দাবি সেই সংশোধিত বিধি মেনে মেধা-তালিকা তৈরী এবং প্রকাশ করা হয়নি। স্কুল সার্ভিস কমিশন উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগ পদ্ধতিতে এখনও ২০১৩ সালের বিধি অনুসরন করছে। আইনজীবি আরও জানালেন, ২০১৬ সালের ২০ শে সেপ্টেম্বর কমিশনের সংশোধিত বিধিতে কত ফাঁকা আসনের জন্য কী অনুপাতে ক’জনের তালিকা প্রকাশ করতে হবে, সেই ব্যাপারেও স্পষ্ট নির্দেশ দেওয়া রয়েছে । এমনকি ১:১.৪ অনুপাতে ওয়েটিং লিস্ট-সহ প্যানেল তৈরী করতে হবে সেকথার উল্লেখ রয়েছে বিধিতে। কিন্তু কমিশনের প্রকাশিত মেধা তালিকায় দেখা যাচ্ছে সেই অনুপাতের থেকে অনেক বেশি প্রার্থীর নাম সেখানে প্রকাশ করা হয়েছে।

Top
error: Content is protected !!