এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রাজ্য বিজেপির প্রাথমিক প্রার্থী তালিকা – ২২ জনের নামের তালিকা ঘিরে তীব্র জল্পনা গেরুয়া শিবিরের অন্দরমহলে

রাজ্য বিজেপির প্রাথমিক প্রার্থী তালিকা – ২২ জনের নামের তালিকা ঘিরে তীব্র জল্পনা গেরুয়া শিবিরের অন্দরমহলে

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলার শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস যতই ৪২ এ ৪২ আসন জেতার অঙ্গীকার করুক, প্রবল যুযুধান প্রতিপক্ষ বিজেপিও রেখেছে এবারের বাংলা থেকে গেরুয়া শিবিরের ঝুলিতে নাকি কম করে ২২-২৩ টি আসন যাবে। আর বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের এই হুঙ্কার শুধু যে কথার কথা নয় – তা এবার বিজেপির টিকিট পাওয়ার চাহিদা দেখেই বোঝা যাচ্ছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। বিজেপি সূত্রের খবর, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলা থেকে বিজেপির প্রার্থী হতে চেয়ে ৪২ টি আসনের জন্য মোট আড়াই-তিন হাজার আবেদনপত্র জমা পড়েছিল।

আর সেই আবেদনপত্রের মধ্যে থেকে প্রাথমিক প্রার্থী তালিকা তৈরির জন্য গতকাল কলকাতার এক অভিজাত হোটেলে এক বৈঠকে বসেন গেরুয়া শিবিরের নেতারা। সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, রাজ্যের নির্বাচনী আহ্বায়ক মুকুল রায়, রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক রাহুল সিনহা ও রাজ্যের নির্বাচনী কমিটির ১৬ জন সদস্য। ওই বৈঠকের আগে জানা গিয়েছিল – রাজ্যের ৩ টি কেন্দ্রের প্রার্থী চূড়ান্ত। বাকি ৩৯ টি কেন্দ্রের জন্য এই বৈঠকে কেন্দ্র পিছু ৩-৪ জন করে প্রার্থীর নাম বাছাই করে কেন্দ্রে পাঠানো হবে।

কিন্তু, গতকালের বৈঠকের পর কার্যত মুখে কুলুপ এঁটেছেন রাজ্য বিজেপির নেতারা। কালকের বৈঠকে উপস্থিত কেউই কোনো কথা বলতে চাইছেন না। তবে গেরুয়া শিবিরের অন্দরে কান যাচ্ছে মাত্র ছজন প্রার্থীর নাম কেন্দ্র ধরে ঠিক হয়েছে। এঁরা হলেন –
১. বাবুল সুপ্রিয় – আসানসোল
২. সুরিন্দর সিংহ আহলুওয়ালিয়া – দার্জিলিং
৩. সৌমিত্র খাঁ – বিষ্ণুপুর
৪. মনোজ টিগ্গা – আলিপুরদুয়ার
৫. শমীক ভট্টাচার্য্য – দমদম
৬. ভারতী ঘোষ – ঘাটাল

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এছাড়া আরও ১৬ জন প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে, যেখানে তাঁদের সংশ্লিষ্ট কেন্দ্র থেকে দ্বিতীয় কোনও নাম পাঠানো হয় নি, তবে কার জন্য কোন কেন্দ্রের কথা ভাবা হয়েছে সে সম্পর্কে কিছু জানা যায় নি। এঁরা হলেন –
১. রাহুল সিনহা
২. অমিতাভ রায়
৩. সায়ন্তন বসু
৪. রাজকমল পাঠক
৫. দেবজিৎ সরকার
৬. সঞ্জয় সিং
৭. শতরূপা বসু
৮. বিশ্বপ্রিয় রায় চৌধুরী
৯. নরহরি মাহাতো
১০. সুভাষ সরকার
১১. চন্দ্রকুমার বসু
১২. দেবশ্রী চৌধুরী
১৩. অমিয় সরকার
১৪. হুমায়ুন কবীর
১৫. লকেট চট্টোপাধ্যায়
১৬. অম্বুজ মোহান্তি

যদিও এই নাম বা কেন্দ্র নিয়ে বিজেপির তরফে সরকারিভাবে কিছুই জানানো হয় নি – তাই সবটাই জল্পনার স্তরে আছে। সব থেকে বড় কথা ২২ টি কেন্দ্রের নাম নিয়ে জল্পনা ছড়ালেও – বাকি ২০ টি কেন্দ্র নিয়ে কি হবে? নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিজেপি নেতার কথায় – অন্তত ১০ টি কেন্দ্র আপাতত ফাঁকা রয়েছে। কেননা, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল থেকে অনেক হেভিওয়েট নেতারাই বিজেপিতে আসার জন্য কথাবার্তা চালাচ্ছেন। তাঁরা যদি বিজেপিতে শেষ পর্যন্ত যোগদান করেন, তাহলে স্বাভাবিকভাবেই তাঁরাই ওই সব কেন্দ্রে টিকিট পাবেন।

পাশাপাশি ওই নেতার আরও বক্তব্য, বাকি ১০ টি কেন্দ্রের ক্ষেত্রে সঙ্ঘের প্রস্তাবিত নাম বা জেলাস্তরের প্রস্তাবিত নাম নিয়ে ভাবনা চিন্তা করা হবে। তবে, এই সব নামই আপাতত যাচ্ছে দিল্লিতে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে। কোন নামে শেষপর্যন্ত সিলমোহর পড়বে আর কোন নাম শেষপর্যন্ত বাদ যাবে বা নতুন কোনো নাম সেই তালিকায় ঢুকবে – সেই সিদ্ধান্ত শেষ পর্যন্ত নেবেন কেন্দ্রীয় নেতৃত্বই। ফলে, এই তালিকায় যাঁদের নামই থাকুক তা চূড়ান্ত হবে একমাত্র দিল্লির সিলমোহর পেলেই।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!