এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ছাত্র ভর্তিতে তোলাবাজি রুখতে নজিরবিহীন পদক্ষেপের পথে কলকাতা পুলিশ

ছাত্র ভর্তিতে তোলাবাজি রুখতে নজিরবিহীন পদক্ষেপের পথে কলকাতা পুলিশ

সম্প্রতি কলেজে ভর্তির নামে তোলাবাজি চলছে রাজ্যের বেশ কিছু কলেজে বলে অভিযোগ উঠেছে, এমনকি খোদ কোলকাতার উপকন্ঠের কলেজেও চলছে এসব দুর্নীতিমূলক কাজ বলে অভিযোগ কোনো কোনো মহলের। ইতিমধ্যেই শ্রীশচন্দ্র কলেজের (সান্ধ্য বিভাগ) তৃণমূল ছাত্র পরিষদের দুই নেতা রীতেশ জয়সওয়াল ও লালসাহেব গুপ্ত এই তোলাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছেন। কলকাতা পুলিশ তাঁদের নিজেদের হেফাজতে রেখেছেন বর্তমানে। এদিকে তাঁদেরকে জেরা করেই পাওয়া গেছে, অন্য এক ছাত্রনেতা, জয়পুরিয়া কলেজের ছাত্র সংসদের প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক তিতান সাহার নাম। ইনিও কলেজের ছাত্র ভর্তির নাম করে তোলাবাজি চালাতেন বলে অভিযোগ। পুলিশ অবিলম্বে তিন অভিযুক্তকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে চায় বলে জানা গেছে, কলেজে ভর্তি নিয়ে তোলাবাজির অভিযোগ ওঠার পর পুলিশের এই পদক্ষেপ এক কথায় নজিরবিহীন বলে সংশ্লিষ্ট মহলের ধারণা।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অন্যদিকে অভিযোগ, তিতান সাহার কাছ থেকে পাওয়া গেছে ছাত্র ভর্তি সংক্রান্ত বেশ কিছু বেআইনি নথি। আদালতে ধৃত টাইটান সাহার আইনজীবী জামিনের আপিল করলে সরকারি আইনজীবী তাতে ঘোর আপত্তি জানিয়েছেন। তাঁর বক্তব্য, অভিযোগ গুরুতর। তাই তদন্ত চলাকালীন জামিনে অভিযুক্ত ছাড়া পেলে মামলা ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে। এ বিষয়ে আপত্তি প্রকাশ করেছে কলকাতা পুলিশও। তাই তাঁর সমস্ত নথি, কেস ডায়েরি(সিডি) ভালো করে খতিয়ে দেখে ধৃতের জামিনের আর্জি বাতিল করেন এদিন বিচারক। উল্লেখ্য, এদিন জয়পুরিয়া কলেজের প্রাক্তন ছাত্র নেতা তিতান সাহাকে আদালতে হাজির করা হলে সেখানে তাঁর অনুগামীদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত। তবে সবাইকে অবাক করে দিয়ে এক দাপুটে তৃণমূল নেতাকেও সেখানে দেখা যায়। তবে পুলিশ তাঁদেরকে এজলাসে ঢুকতে দেননি, কোর্টচত্বরে যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে তার জন্য কড়া ব্যবস্থা রেখেছিল পুলিশ। এদিন দুপুরে মামলার রায় ঘোষিত হলে ছাত্রনেতার অনুগামীদের ভিতর তীব্র চাঞ্চল্য লক্ষ্য করা যায়, তবে পুলিশ কড়া হাতে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!