এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > বাংলায় বাড়ছে বিজেপি, ভোট ঘোষণার অনেক আগেই এবার নিজের কেন্দ্রে বিশেষ প্রচারে এই হেভিওয়েট সাংসদ

বাংলায় বাড়ছে বিজেপি, ভোট ঘোষণার অনেক আগেই এবার নিজের কেন্দ্রে বিশেষ প্রচারে এই হেভিওয়েট সাংসদ

মালদায় ভোট মানেই – গনি খান চৌধুরী! তাঁর মৃত্যুর পরেও এখনও তাঁর নামেই ভোট হয়। তাঁর নিজের দল কংগ্রেস তো বটেই – এমনকি বিরোধী দলের ভোটপ্রার্থীরাও প্রচারে দাবি করতে থাকেন – তাঁরা জানি খানের কত ঘনিষ্ঠ ছিলেন! এমনকি, তাঁর মৃত্যুর এত বছর পরেও এখনও গনি-মিথ মালদায় অদম্যভাবে চলছে। বা বলা ভালো চলছিল! কেননা – আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে, আপাত দৃষ্টিতে নড়বড় করছে কংগ্রেসের এই গড়!

একদিকে, আগ্রাসী শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস আর অন্যদিকে প্রবল গতিতে উত্থান গেরুয়া শিবিরের। মাঝে পরে রীতিমত হাঁসফাঁস অবস্থা কংগ্রেসের। যে মালদাতে গনি খানের পরিবারের লোক প্রার্থী মানেই কয়েক যোজন এগিয়ে যাওয়া – সেখানেই এবার লোকসভা নির্বাচনের দিন ঘোষণা নয়, ভোটার তালিকা প্রকাশ হলেই পুরাদস্তুর প্রচারে নেমে পড়তে চান হেভিওয়েট কংগ্রেস সাংসদ মৌসম বেনজির নূর।

কংগ্রেস শিবিরের অবশ্য বক্তব্য, লোকসভা নির্বাচন বিস্তীর্ন এলাকা জুড়ে হয়। সেখানে সকল ভোটদাতার কাছে পৌঁছাতে গেলে – শেষমুহূর্তে প্রচন্ড ছুটোছুটি করতে হয়। তার উপরে মৌসমদেবী হচ্ছেন দলের ‘ষ্টার ক্যাম্পেনার’ – নিজের কেন্দ্র বাদেও অন্যান্য কেন্দ্রেও তাঁকে প্রচারে ছুটতে হবে। আর, তাই আগেভাগেই প্রচারে নেমে পড়ছেন যাতে, সুষ্ঠুভাবে সব দিকটা সম্পন্ন করা যায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

কংগ্রেস শিবিরের আরও দাবি, এমনিতেই মৌসম বেনজির নূর এলাকায় সবসময় জনসংযোগ বজায় রাখেন। ব্যক্তিগতভাবেও তিনি এলাকায় অসম্ভব জনপ্রিয়। কিন্তু, সাধারণ ভোটারের মনের ইচ্ছাকে সম্মান দিয়ে নির্বাচনের আগে ব্যক্তিগতভাবে পুরো লোকসভাকেই কাছ থেকে ধরা দিতেই এই অভিনব উদ্যোগ নিচ্ছেন নেত্রী। ইতিমধ্যেই, তাঁর নির্বাচনী কেন্দ্রের কেন্দ্রস্থল চাঁচলে বাড়িভাড়া নিয়ে ‘ওয়ার রুম’ বানিয়ে কাজও শুরু হয়ে গেছে।

কিন্তু, দুর্জনেরা যে বলছেন অন্য কথা! একদা যে জেলা কংগ্রেসের-গড় হিসাবে পরিচিত ছিল সেই মালদাতেই সদ্য সমাপ্ত পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফলাফল চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে কংগ্রেসের সংকট! পঞ্চায়েতের হিসাবে এই জেলায় কংগ্রেস তৃতীয় – ফলে হতোদ্যম কর্মী-সমর্থকরা কতখানি নির্বাচনের কাজে নামবেন, সন্দেহটা থেকেই যাচ্ছে। অনেক কর্মীই ইতিমধ্যেই শিবির পাল্টে ঘাসফুল শিবিরে নাম লিখিয়েছেন।

আর যাঁরা কোনো অবস্থাতেই তৃণমূল কংগ্রেসটা করবেন না, তাঁরা আপাতত গোপনে ভরসা রাখছেন গেরুয়া শিবিরের সঙ্গে। নাহলে, যে মালদা উত্তরে বিজেপির সংগঠন বলে সেভাবে কিছু নেই – সেখানে পঞ্চায়েতে বিজেপির ফল এরকম চমকে দেওয়ার মত হয় কি করে? আর তাই, সবমিলিয়ে ঘাসফুলের উত্থানের থেকেও পদ্মের পাপড়ি মেলাটা বড় চিন্তার থেকেই যাচ্ছে। আর তাই তো দিল্লি থেকে ‘স্পেশাল গাড়ি’ আসছে জানুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহ থেকেই মৌসম বেনজির নূরের প্রচারকে অন্য মাত্রায় নিয়ে যেতে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!