এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > শোভন-তৃণমূল সম্পর্কে ফের বাঁধতে চলেছে জটিলতা, কারণ কি সেই রত্না?জেনে নিন বিস্তারিত

শোভন-তৃণমূল সম্পর্কে ফের বাঁধতে চলেছে জটিলতা, কারণ কি সেই রত্না?জেনে নিন বিস্তারিত

স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিচ্ছেদ হওয়া এবং বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার পরেই প্রিয় ভাই কাননের ওপর প্রবল পরিমাণে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন তৃনমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমনকি বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি শোভনের মনোযোগ অত্যন্ত বৃদ্ধি পাওয়ায় সে দল এবং সরকারের কাজে ঠিক মত সময় দিচ্ছে না বলে অভিযোগ তুলে কলকাতা পৌরসভার মেয়র এবং মন্ত্রিত্ব থেকে সেই শোভন চট্টোপাধ্যায়কে সরিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী। আর এরপরই বেহালা পূর্ব কেন্দ্রের এই বিধায়কের সঙ্গে ক্রমশ দূরত্ব বাড়তে থাকে শাসক দলের।

সম্প্রতি শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিজেপি যোগের জল্পনা জোরালো হয়ে ফুটে উঠতে শুরু করে। আর এরপরই সেই শোভনবাবুর মানভঞ্জন করতে বারেবারেই তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। কিন্তু তাতেও সেইভাবে বরফ না গলায় অবশেষে গত শুক্রবার বেহালার 19 জন তৃণমূল কাউন্সিলরকে নিয়ে বিধানসভায় নিজের ঘরে একটি বৈঠক করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

আর সেখানেই উপস্থিত 16 জন কাউন্সিলরের মধ্যে তিন জনের একটি কমিটি করে দেন মুখ্যমন্ত্রী। যার মাথায় বসানো হয় সেই শোভন চট্টোপাধ্যায়েরই স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়কে। আর এই ঘটনাতেই এখন তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। অনেকে বলছেন, তৃণমূলের দক্ষ নেতা হিসেবে পরিচিত শোভন চট্টোপাধ্যায় কলকাতা পৌরসভার একাধিক তৃণমূল কাউন্সিলরকে নিয়ে বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন বলে সম্প্রতি জল্পনা চলছিল। আর তারপরই বিধানসভায় সেই বেহালার সমস্ত কাউন্সিলরদের নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বৈঠকে বিশেষ কমিটি করে তার মাথায় সেই শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সাথে বিবাদমান রত্না চট্টোপাধ্যায়কে বসানো অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

পর্যবেক্ষকদের মতে, বর্তমানে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে অত্যন্ত খারাপ সম্পর্ক তার স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়ের। ডিভোর্স কেস নিয়ে বর্তমানে তাদের মধ্যে মামলা চলছে। এমনকি শোভনবাবুর মন্ত্রিত্ব খোয়ানোর পেছনে রত্না চট্টোপাধ্যায় রয়েছেন বলেও অভিযোগ করেন শোভনবাবুর অনুগামীরা।

আর এই পরিস্থিতিতে বিশেষ কমিটি করে তার মাথায় সেই রত্না চট্টোপাধ্যায়কে রেখেই প্রিয় ভাই কাননকে বার্তা দিতে চাইলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের। একাংশের প্রশ্ন, তাহলে কি অবশেষে শোভন চ্যাটার্জিকে পুরোপুরি ছেঁটে ফেলার প্রক্রিয়া শুরু করল তৃণমূল! আর তাই কি তার স্ত্রীকে বাড়তি দায়িত্ব দেওয়া হল! তবে যদি এই আশঙ্কাই সত্যি হয়, তাহলে তৃণমূলের কলকাতা পৌরসভার প্রাক্তন মেয়রের দলবদল যে শুধুই সময়ের অপেক্ষা, সেই ব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিত বিশেষজ্ঞরা। তবে এখন কি হয়, তা দেখবার জন্য নজর রাখতেই হবে ভবিষ্যতের দিকে।

Top
error: Content is protected !!