এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বড়সড় ধাক্কা শোভন-বৈশাখীর, কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের মন্তব্যে মেয়র ও বান্ধবীর বিজেপিতে ভবিষ্যৎ নিয়ে জল্পনা

বড়সড় ধাক্কা শোভন-বৈশাখীর, কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের মন্তব্যে মেয়র ও বান্ধবীর বিজেপিতে ভবিষ্যৎ নিয়ে জল্পনা

এক মাস কাটতে না কাটতে বিজেপিতে শোভন বৈশাখীর মধুরেণ সমাপয়েৎ এর রেশ কেটে গেল‌। শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় রীতিমতো সাংবাদিক সম্মেলন করে বিজেপিতে যোগদান করেন। কিন্তু এক মাস যেতে না যেতেই বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় ও শোভন চট্টোপাধ্যায়ের নানা দাবি-দাওয়া শুনে বিজেপি শিবির স্বভাবতই অসন্তুষ্ট, যার মধ্যে দেবশ্রী রায়ের বিজেপিতে যোগদান নিয়ে শোভন বৈশাখীর এর মধ্যেই দল ছাড়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

এবার বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব স্পষ্ট করে জানিয়ে দিলেন দল সবার আগে। দলের নীতি ও আদর্শ সবার আগে থাকবে। কারোর ব্যক্তিগত পছন্দ-অপছন্দের সাথে তাল মিলিয়ে দল চলবে না একথা স্পষ্ট করে দিলেন বুধবার মুকুল রায়, কৈলাস বিজয়বর্গীয়রা।

এদিন কৈলাস বিজয়বর্গীয় বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের এ বিষয়ে বলেন, ‘দলে থাকবেন কিনা, সেটা একান্তই ওঁদের ভাববার বিষয়। এটা নিয়ে আমাদের চিন্তা ভাবনা করার কিচ্ছু নেই। দলে কার গুরুত্ব বেশি এটা আমাদের এখানে কোন ব্যক্তি ঠিক করে না, দলই ঠিক করে।’অন্যদিকে মুকুল রায় শোভন বৈশাখীর ব্যাপারে জানান, ‘আমার সঙ্গে ওঁদের এখনো কথা হয়নি। তবে এইটুকু বলে রাখি দলের নীতি ও আদর্শই বড় কথা। এই নীতি ও আদর্শ মেনে যদি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বিজেপিতে যোগ দিতে চান, দল তাকে গ্রহণ করবে।’

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

বোঝাই যাচ্ছে বিজেপি দল শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে রীতিমত অস্বস্তিতে পড়েছে। বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের নানান অনৈতিক দাবি যে দলের পক্ষে মানা সম্ভব নয় তা ক্রমশ স্পষ্ট হয়ে উঠছে। ইতিমধ্যে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় দলের কাছে দাবি জানান, দলে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সমান গুরুত্ব তাঁকে দিতে হবে বলে। যা বিজেপি দল দিতে একান্তই নারাজ বলে জানা গেছে। বিজেপিতে যোগদানের পর থেকেই বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় দল নিয়ে রীতিমতো অখুশি, এই নিয়ে তিনি সংবাদমাধ্যমের কাছে তাঁর ক্ষোভও জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, সোমবার রাতে মুকুল রায়ের সাথে শোভন বৈশাখীর এক দীর্ঘ বৈঠক চলে। বৈঠক শেষে মুকুল জানান, ‘সমস্যা মিটে গিয়েছে। শোভন-বৈশাখী বিজেপিতে ছিলেন, আছেন।’ এবং একইভাবে এই কথাকে সমর্থন জানিয়েছিলেন শোভন বৈশাখীও। কিন্তু দিল্লি থেকে কলকাতা ফেরা মাত্রই শোভন বৈশাখী সম্পূর্ণ বিপরীত সুরে কথা বলতে থাকেন। এদিন স্পষ্ট করে শোভন চট্টোপাধ্যায় জানিয়ে দেন দেবশ্রী রায় বিজেপিতে যোগদান করলে তার পক্ষে সেই দলে থাকা কোন মতেই সম্ভব নয়। বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় তাকে পূর্ণ সমর্থন জানান।

তাই এবার শোভন-বৈশাখীর রাতারাতি এই পরিবর্তনকে বিজেপি শিবির মোটেই ভালভাবে নিচ্ছে না। তবে দেবশ্রী রায়ের বিজেপিতে যোগদান প্রসঙ্গে দল যে কোনভাবেই শোভন-বৈশাখী কাছে ঝুঁকবে না তা রীতিমতো স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। এবার শোভন-বৈশাখীর কোর্টে বল। তাঁরা কিভাবে সমস্ত পরিস্থিতি সামলায় সেটাই দেখার। অন্যদিকে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বও যে আর শোভনবাবুর দাবি মানবেন না তা স্পষ্ট করে দিয়েছে ফলে বিজেপিতে থাকবেন না পুরোনো দলে যাবেন বা তৃণমূল তাঁকে আবার দলে নেবে কিনা সব কিছু নিয়েই উঠছে প্রশ্ন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!