এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মন্ত্রীত্ব-মেয়র পদ ছাড়লেও কি তৃণমূল ছাড়বেন শোভন চট্টোপাধ্যায়? জল্পনা বাড়িয়ে উত্তর দিলেন কংগ্রেস নেতা

মন্ত্রীত্ব-মেয়র পদ ছাড়লেও কি তৃণমূল ছাড়বেন শোভন চট্টোপাধ্যায়? জল্পনা বাড়িয়ে উত্তর দিলেন কংগ্রেস নেতা

চলতি সপ্তাহে মন্ত্রীত্ব-মেয়র পদ দুটোই হারিয়ে রাজ্যরাজনীতির চর্চায় শোভন চট্টোপাধ্যায়। এমনকি তাঁর তরফ থেকে এমনটাও শোনা গিয়েছে,নেত্রী যদি চান তাহলে বিধায়ক এবং কাউন্সিলরের পদ থেকে ইস্তফা দিতে রাজি তিনি। ব্যক্তিগত সম্পর্কের টানাপোড়েনের মন্ত্রীত্বের কাজ অবহেলিত হচ্ছিল তাঁর। দফায় দফায় মুখ্যমন্ত্রী তাকে সতর্ক করেছেন,এমনকি ধমকও দিয়েছেন স্নেহের কানন-কে। তবুও ফর্মে ফেরেননি শোভন।

আর এদিন বিধানসভার অধিবেশন শেষে স্পিকারের ঘরে শোভনকে ডেকে তাঁর কাজ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বিরক্তি প্রকাশ করলে আঁতে ঘা লাগে শোভনের। পরোক্ষ ভাবে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাঁর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক নিয়ে কটাক্ষও করেন শোভনকে। এই ঘটনার ২৪ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই মেয়র এবং মন্ত্রীত্ব দুটি পদ থেকেই সরে দাঁড়ালেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। এরপর থেকেই তুমুল শোরগোল পড়ে যায় রাজ্যরাজনৈতিক মহলে। তবে কি তৃণমূলে শোভন অধ্যায়ের অবসান হল? এ প্রশ্ন নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে এখন। তিনি দলবদল করবেন কিনা তা নিয়েও কৌতূহলী সমালোচক মহল। এই প্রেক্ষিতে জল্পনায় ইন্ধন দিয়ে মন্তব্য করলেন কংগ্রেসের বর্ষীয়ান নেতা তথা আইনজীবী অরুনাভ ঘোষ। বললেন,’মন্ত্রীত্ব-মেয়র পদ ছাড়লেও শোভন তৃণমূল ছাড়বে না। তৃণমূল ছাড়লে বৈশাখী ওকে ছেড়ে চলে যাবে।’ কেন এরকম বললেন অরুণাভ বাবু? আসুন জেনে নেওয়া যাক।

শোভন-বৈশাখীর ‘পরকীয়া’ এখন সংবাদমাধ্যমের স্পটলাইটে। সেই প্রসঙ্গে মন্তব্য করে গনগনে আগুনে ঘি ঢালার কাজটাই করলেন অরুনাভ ঘোষ। বললেন,বৈশাখী তাঁর বহুদিনেরই পরিচিত। এর আগেও তিনি একজন উকিল এবং একজন সাংবাদিকের সংসার ছারখার করেছেন। শোভন চট্টোপাধ্যায়ও একইভাবে শিকার হলেন। আর মন্ত্রীত্ব এবং মেয়র পদে ইস্তফার ব্যাপারে তাঁর মতামত,এই ইস্তফা প্রদানের কাজটা শোভন চট্টোপাধ্যায় আবেগের বশে করে ফেলেছেন। তাঁর পূর্ণ বিশ্বাস,শোভন নিজে থেকে সরে না আসলে নেত্রী কখনোই তাঁর স্নেহের ভাইকে দল থেকে বাদ দিতে পারতেন না। তবে মন্ত্রীত্ব এবং মেয়র পদ থেকে সরে আসলেও তৃণমূল ছাড়তে পারবেন না তিনি। বৈশাখীর সঙ্গে সম্পর্ক রাখার খাতিরেই এটা করতে পারবেনা তিনি।

উল্লেখ্য,গতকাল শোভন পত্নী রত্মা চট্টোপাধ্যায়ও বৈশাখীকে আক্রমণ করে জানিয়েছিলেন,আগে যে মানুষ ৪০০ টাকা দামের জামা পড়ত,তাঁর গায়ে এখন লক্ষ লক্ষ টাকার গয়না থাকে কীভাবে? আর এদিন ফের বৈশাখীকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে অরুনাভ ঘোষ প্রশ্ন ছুঁড়লেন-‘রত্না আর ওর স্বামীর এতো টাকা এতো গাড়ি কোথা থেকে এল? সে ও বলুক।’

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অর্থাৎ তৃণমূল করেই যে শোভন চট্টোপাধ্যায় এতো টাকার সম্পত্তির মালিক হয়েছেন আর সেই সম্পত্তির লোভেই যে শোভনের সঙ্গে সম্পর্ক রেখেছেন বৈশাখী,সেটাই একরকম ইঙ্গিতে বলতে চাইলেন বর্ষীয়ান এই কংগ্রেস নেতা,এমনটাই মনে করছেন অভিজ্ঞ মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!