এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বিজেপিতে যোগ দিয়েই বড় প্রাপ্তি প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ সৌমিত্র খাঁর – জানুন বিস্তারিত

বিজেপিতে যোগ দিয়েই বড় প্রাপ্তি প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ সৌমিত্র খাঁর – জানুন বিস্তারিত

রাজ্য রাজনীতিতে এখন খবরের শিরোনামে তৃণমূল কংগ্রেসের বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। কিছুদিন আগেই খবরে প্রকাশিত হয় – তৃণমূল ত্যাগী বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রাখার কারণে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে আর তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিট পাচ্ছেন না – আর তাই তিনি নাকি বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন।

এই ব্যাপারে মুকুলবাবুর সঙ্গে তখন যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, তাঁর সঙ্গে সৌমিত্রবাবু সহ অনেকেরই ব্যক্তিগতস্তরে যোগাযোগ আছে – কিন্তু বিজেপিতে যোগদানের ব্যাপারে কোনো আলোচনা হয় নি। এরপরে হঠাৎই গত পরশু রাতে সৌমিত্রবাবু ফেসবুক লাইভে এসে বিষ্ণুপুর থানার এসডিপিও সুকমল দাসের বিরুদ্ধে তাঁকে খুন করার চক্রান্ত ও তাঁর আপ্তসহায়ককে অপহরণের অভিযোগ আনেন।

একইসাথে জানান, সুকমলবাবু কত বড় ‘হনু’ হয়েছেন তা দেখে নেওয়ার জন্য তিনি সকাল ১০ টায় বিষ্ণুপুর পৌঁছাচ্ছেন। কিন্তু, এর পরেই তিনি সবাইকে চমকে দিয়ে দুপুরে সোজা চলে যান দিল্লিতে বিজেপির হেড কোয়ার্টারে। সেখানে প্রথমে তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বোচ্চ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দলের অঘোষিত দুনম্বর নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ উগরে দিয়ে মুকুল রায়ের হাত ধরে যোগদান করেন বিজেপিতে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এই যোগদানের পরে স্বাভাবিকভাবেই সৌমিত্রবাবুকে প্রশ্ন করা হয়, তাহলে কি তিনি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির টিকিটে বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করতে চলেছেন? জবাবে তিনি জানান, বাংলায় এখন পিসি-ভাইপোর রাজ চলছে। যুবকদের সঙ্গে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে! তার প্রতিকার করতেই নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে – সবকা সাথ সবকা বিকাশ করতে বিজেপিতে যোগদান করেছেন। বাকি, বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব তাঁকে নিয়ে যা সিদ্ধান্ত নেবেন তাই হবেন।

কিন্তু, সূত্রের খবর সৌমিত্রবাবু বিজেপিতে যোগদানের আগে দুটি শর্ত রাখেন। এক, তাঁকে বিষ্ণপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির হয়ে টিকিট দিতে হবে। আর দুই, বিজেপি যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব তাঁকে দিতে হবে। এখনো পর্যন্ত যা জানা যাচ্ছে – সৌমিত্রবাবুর দ্বিতীয় শর্তটি নাকচ হয়ে গেছে। আর প্রথম শর্তের ব্যাপারে তাঁকে সরকারিভাবে কিছু জানানো না হলেও, বিষ্ণুপুর লোকসভা কেন্দ্রে জনসংযোগ বাড়ানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ফলে, রাজনৈতিক মহলের মতে যেহেতু লোকসভা নির্বাচন নিয়ে এখনও কিছু সরকারি ঘোষণা হয় নি – তাই প্রার্থী হিসাবে সৌমিত্রবাবুর নাম ঘোষণা করা হল না। কিন্তু, এই নির্দেশের ফলে ঘুড়িয়ে তাঁর প্রথম শর্তকে মান্যতা দেওয়া হল। প্রসঙ্গত, গতকাল সৌমিত্র খাঁ বিজেপিতে যোগদান করলে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি তথা ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কড়া চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে বলেন – ক্ষমতা থাকলে ভোটে জিতে দেখাক! যদিও পাল্টা সৌমিত্র খাঁ বলেন, বিষ্ণুপুরের মানুষই ঠিক করবেন কে ভোটে জিতবেন!

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!