এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মৃত্যুর পরেও সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়কে বিতর্ক থামছে না সিপিএমের অন্দরে

মৃত্যুর পরেও সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়কে বিতর্ক থামছে না সিপিএমের অন্দরে

কথায় আছে, “বেচে থাকতে দিল না ভাত কাপড়, মরে গেলে হয় দানসাগর।” কিন্তু লোকসভার প্রাক্তন স্পিকার তথা সিপিএমের বহিস্কৃত নেতা প্রয়াত সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়কে বেচে থাকতে তো কোনো ভ্রুক্ষেপই করল না সিপিএম এমনকী মারা যাওয়ার পরও তাঁর স্মরনসভা না করার ব্যাপারে সিপিএমের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের তরফ থেকে পাঠানো হল সতর্কবার্তা। কিন্তু কেন?

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই প্রয়াত সোমনাথ চট্টোপাধ্যায় যখন লোকসভার অধ্যক্ষ ছিলেন তখন তিনি কেন্দ্রের ইউপিএ সরকারের ওপর থেকে সমর্থন প্রত্যাহারের সময় দল থেকে সংবিধানকেই বেশি মর্যাদা দিয়েছিলেন। আর এরপরেই সিপিএম থেকে দলবিরোধী কাজের জন্য বহিস্কার করা হয় সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়কে। কিন্তু এরপরও এই নেতার মৃত্যুর পর রাজ্য নেতারা তাঁর বাড়িতে পৌছে যান। কিন্তু এবার সেই প্রয়াত নেতার স্মরনসভা নিয়ে বেশি মাতামাতি করলে তা গঠনতন্ত্রের পরিপন্থী হবে বলে সিপিএমের বঙ্গ ব্রিগেডকে হুশিয়ারিও দিয়েছে দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

যার ফলে চরম সমস্যায় পড়েছেন এই রাজ্যের বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্ররা। যদিও বা দলের জন্য করে যাওয়া এই মানুষটির স্মরনসভা না করায় গত রবিবার সুভাষ চক্রবর্তী  ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আয়োজিত এক স্মরনসভায় খেদও প্রকাশ করেন কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়, তড়িৎ তোপদারের মত নেতারা। সব মিলিয়ে এখন প্রয়াত সিপিএম নেতা সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়ের স্মরনসভা করা নিয়ে দলীয় বিধিনিষেধে অস্বস্তিতে বঙ্গের সিপিএম নেতারা।

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!